বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Prosenjit-Chiranjeet: ‘৩০ বছর বুম্বা একা টলিউডকে টেনেছে! আমরা কি তবে পার্শ্ব অভিনেতা?’খোঁচা চিরঞ্জিতের
প্রসেনজিৎ-কে একহাত দিলেন চিরঞ্জিৎ

Prosenjit-Chiranjeet: ‘৩০ বছর বুম্বা একা টলিউডকে টেনেছে! আমরা কি তবে পার্শ্ব অভিনেতা?’খোঁচা চিরঞ্জিতের

  • 'প্রভাবশালী' প্রসেনজিতের বিরুদ্ধে কেউ মুখ খোলে না টলিউডে, দাবি চিরঞ্জিতের। আর কী বললেন বর্ষীয়ান অভিনেতা? 

টলিউডের ‘ইন্ডাস্ট্রি’ বলতে সকলে একজনকেই চেনে, প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। এক যুগ ধরে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের পোশাকি নাম ‘ইন্ডাস্ট্রি’। সৃজিতের ছবির সংলাপ বুম্বাদা বলেছিলেন, ‘আমি অরুণ চ্যাটার্জি, আমি ইন্ডাস্ট্রি’। সেই থেকেই সত্যি ‘ইন্ডাস্ট্রি' হয়ে উঠেছেন তিনি। কিন্তু প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় একাই ‘ইন্ডাস্ট্রি’, এই কথা মানতে না-রাজ অভিনেতা চিরঞ্জিৎ। এই প্রসঙ্গে বিস্ফোরক দাবিও করেন বর্ষীয়ান অভিনেতা। 

এর জন্য পিছন ফিরে তাকাতে হবে কয়েকটা বছর। জি বাংলার জনপ্রিয় শো ‘অপুর সংসার’এ অতিথি হয়ে এসেছিলেন চিরঞ্জিৎ। সঞ্চালক শাশ্বত চট্টোপাধ‍্যায় কথায় কথায় বলেছিলেন, ‘বাংলা বিনোদন দুনিয়া বলে, একটা দীর্ঘ সময় প্রসেনজিৎ একাই টলিউডকে টেনে নিয়ে গিয়েছেন। চিরঞ্জিৎ কী বলেন?’ স্পষ্টভাষী তারকা বিধায়ক বলে বসেন, ‘৩০ বছর। তখন মিঠুন ছিলেন না? ভিক্টর ছিলেন না? তাপস, অভিষেক, আমি ছিলাম না? আমরা কি তা হলে পার্শ্ব অভিনেতা ছিলাম?’ 

শাশ্বতর বাউন্সার প্রশ্নের জবাবে ব্যাট উঁচিয়ে ছক্কা হাঁকান চিরঞ্জিৎ। বাধ্য হয়েই অপুদাও জবাব দেন, ‘না’। পরে চিরঞ্জিৎ ব্যাখা করে জানান,ওই সংলাপ প্রসেনজিৎ ‘অটোগ্রাফ’ ছবিতে বসেছিলেন। সেটাই লোকের মুখে মুখে ফেরে। পর্দার ‘মনের মানুষ’-এর অন্তহীন প্রতিভা নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই সতীর্থ চিরঞ্জিৎ-এর। বরং অভিনেতা অকপটে মেনে নেন,  টলিউডকে সবচেয়ে ভালো করে আর কাছ থেকে চেনেন প্রসেনজিৎ। একইসঙ্গে বুম্বাদা ‘প্রভাবশালী', আর সেই কারণেই কেউ চট করে তাঁর সামনে তাঁর ভালো-মন্দ নিয়ে কথা বলবার সাহস পায় না। 

মুখে হাসির রেশ ধরে রেখেই চিরঞ্জিৎ বলে চলেন, প্রসেনজিতের বিরুদ্ধে একটা কথাও কেউ বলতে পারে না ইন্ডাস্ট্রিতে। শাশ্বত প্রশ্ন করেন, কেন বললে কী হবে? পালটা চিরঞ্জিৎ-এর সংযোজন, ‘তুই বল না। মানুষের দোষ গুণ দুটোই তো থাকে। খারাপটা বলবে না?’।  জবাবে পর্দার শবর দাশগুপ্ত শাশ্বত, তিনি বুম্বাদাকেই ব‍্যক্তিগত ভাবে বলবেন সেটা। নিজের দৃষ্টিভঙ্গি চোখে আঙুল দিয়ে বুঝিয়ে চিরঞ্জিৎ চওড়া হেসে বলেন, ‘ওটা চুপিচুপিই সবাই বলে’। 

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে প্রসেনজিৎ নিজের মুখে বলেছেন কোনওভাবেই তিনি ইন্ডাস্ট্রি নন, একা মানুষ কোনওদিন ইন্ডাস্ট্রি হতেই পারে না। তাঁর কথায়, ‘একটি সংস্থাকে দাঁড় করাতে গেলে এক জন সিইও যা যা করেন, সেগুলোই করার চেষ্টা করে এসেছি। আমি টলিউড ইন্ডাস্ট্রি নই বরং এই ইন্ডাস্ট্রির সিইও’। 

 

 

বন্ধ করুন