বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ‘আমি অন্ধকারে’, এই পথ যদি না শেষ হয় থেকে বাদ পড়া নিয়ে ফেসবুকে রাগ দেখাল ছোটদাদু
‘এই পথ যদি না শেষ হয়’-তে কেন আর দেখা মিলছে না ছোটদাদুর?

‘আমি অন্ধকারে’, এই পথ যদি না শেষ হয় থেকে বাদ পড়া নিয়ে ফেসবুকে রাগ দেখাল ছোটদাদু

  • জি বাংলার ‘আমাদের এই পথ যদি না শেষ হয়’ থেকে বাদ পড়া নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করলেন ঊর্মি-সাত্যকির ছোট দাদু। যা লিখলেন তিনি…

জি বাংলার ‘আমাদের এই পথ যদি না শেষ হয়’ টিআরপি তালিকায় সেরা দশে প্রতি সপ্তাহে নিজের জায়গা করতে না পারলেও, ঘর করে নিয়েছে দর্শক মনে। খাঁটি মধ্যবিত্ত পরিবারের গল্পকে ভরে ভরে ভালোবাসা দিয়েছে দর্শক। তাই তো স্বর্ণেন্দু সমাদ্দার পরিচালিত এই ধারাবাহিক সম্প্রতি নিয়ে আসা হয়েছে প্রাইম টাইমেও। তবে এই ‘পারফেক্ট’ পরিবারের উপরই মারাত্মক অভিযোগ তুলল সাত্যকির ছোটদাদু, অর্থাৎ ফাল্গুনী চট্টোপাধ্যায়।

বেশ কয়েকমাস ধরেই ধারাবাহিকে দেখা মিলছে না ছোটঠাম্মি আর ছোটদাদাুর। মানসী সিনহা নিজের প্রথম সিনেমা পরিচালনা করার জন্য ব্রেক নিয়েছেন। তবে ফাল্গুনীর কেন দেখা নেই তা নিয়ে প্রশ্ন ছিল দর্শক মনে। সে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেকে নানা ম্যাসেজও করছিল তা নিয়ে। এবার প্রকাশ্যেই সেইসবের জবাব দিলেন। বলা ভালো ‘এই পথ যদি না শেষ হয়’ নির্মাতাদের দিকে কটাক্ষও ছুঁড়ে দিয়েছেন।

এক নেট-নাগরিককে কমেন্টের জবাবে লিখেছেন, ‘‘বিগত আড়াই মাস ধরে এই প্রশ্নের উত্তর না পেয়ে আমিও অন্ধকারে। আমি তো ভেবেই পাইনা, প্রায় প্রতিদিন উপস্থিতির পর আদর্শ যৌথ পরিবার ‘সরকার বাড়ি’র দুটো গুরুত্বপূর্ণ চরিত্র কী করে কোনো কারণ না দেখিয়ে ভ্যানিশ হয়ে যেতে পারে? গল্পের বিশ্বাসযোগ্যতা কি তাতে মজবুত হয়? আমি জানিনা, সত্যিই জানিনা ভাই।’’

ফাল্গুনীর সেই ভাইরাল কমেন্ট। 
ফাল্গুনীর সেই ভাইরাল কমেন্ট। 

আপাতত ফাল্গুনীকে দেখা যাচ্ছে ‘ধুলোকণা’য়। তবে ছোটদাদুর চরিত্রটা এমনিতে খুব ভালোবাসা পেত দর্শকদের কাছে। বিশেষ করে বাড়ির বউ ঊর্মির সঙ্গে দাদুর ইকুয়েশনটা খুব মিস করছে তাঁরা। তাই আর্জি, যেন জলদি ফিরিয়ে আনা হয় চরিত্রটাকে।

 

বন্ধ করুন