বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > অনন্যার লাইগারের ব্যর্থতা নিয়ে বড় মন্তব্য বাবা চাঙ্কির! কী বললেন মেয়ের নামে?

অনন্যার লাইগারের ব্যর্থতা নিয়ে বড় মন্তব্য বাবা চাঙ্কির! কী বললেন মেয়ের নামে?

লাইগারের ব্যর্থতা নিয়ে মুখ খুললেন চাঙ্কি পাণ্ডে। 

২০২২ সালের ২৫ অগস্ট মুক্তি পায় লাইগার। আশা ছিল ছবি বক্স অফিসে দারুণ ব্যবসা করবে। কিন্তু ২০ লাখেই থেমে যায় গাড়ি। সম্প্রতি তা  নিয়ে মুখ খুললেন ছবির নায়িকা অনন্যার বাবা চাঙ্কি পাণ্ডে। 

বক্স অফিসে মুখ থুবরে পড়েছিল অনন্যা পাণ্ডে আর বিজয় দেবেরাকোন্ডার লাইগার। সিনেমা নিয়ে প্রত্যাশা ছিল বিশাল। যেখানে ছবির বাজেট ১২০ কোটির কাছাকাছি। এদিকে ভারতীয় বক্স অফিস থেকে আয় হয়েছিল মাত্র ২০ কোটির। অবশেষে লাইগারের ব্যর্থতা নিয়ে মুখ খুললেন অনন্যা পাণ্ডের বাবা চাঙ্কি। 

দক্ষিণের হিট তারকা বিজয়। শুধু তাই নয় এই নায়কের সুপরুষ চেহারার পিছনেও পাগল লাখ-লাখ। হিন্দি আর তেলেগু ভাষায় মুক্তি পেয়েছিল লাইগার। এটাই ছিল অনন্যার প্রথম বাই-লিঙ্গুয়াল সিনেমা। ছবিতে এখজন মার্শাল আর্ট ফাইটারের ভূমিকায় দেখা গিয়েছে বিজয়কে। তবে অনেকেরই মত, বিজয় একার কাঁধেই টেনেছেন এই সিনেমা। অনন্যার অভিনয় নাকি পাতে দেওয়ার যোগ্য না। 

সম্প্রতি ইন্ডিয়া টুডে-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে অনন্যার বাবা চাঙ্কি পাণ্ডে মুখ খুললেন এই নিয়ে। বললেল, ‘এটা যে কোনও সিনেমার ক্ষেত্রেই হতে পারে। একজন অভিনেতা নিজের ১০০ শতাংশ দেয়, তারপর প্রচার করে, তারপর যখন সবকিছু ঠিকঠাক চলে না তখন ভেঙে পড়ে। তবে তোমাকে এটা নিয়েই থাকতে হবে, এবং এগিয়ে যেতে হবে। এটা খুব ট্রিকি বিজনেস, আর অনন্যাও এটা খুব ভালো করে বোঝে।’

প্রসঙ্গত, লাইগারের ভরাডুবির পর সে ছবির প্রযোজক সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে লিখেছিলেন, ‘চিল গাইজ!!! একটা ছোট ব্রেক (সোশ্যাল মিডিয়া থেকে) @PuriConnects ফিরবে আরও বড় হয়ে, ভালো আর উন্নত হয়ে। ততক্ষণ নিজে বাঁচো আর অন্যকেও বাঁচতে দাও।’

গত মাসে বিজয় নিজেও লাইগারের ব্যর্থতা নিয়ে কথা বলেন। ‘আমাদের সবার ভালো দিন থাকে। খুব ভালো দিন থাকে। আর থাকে কিছু জঘন্য। তুমি যখন উঠে দাঁড়াতে ইচ্ছে করবে না, তখনও তা করতে হবে। আমি আপনাদের সকলের মাঝে এসে এই অ্যাওয়ার্ড নিতেও চাইছিলাম না। কিন্তু ওই যে আপনাদেরকে কথা দিয়েছি আপনাদের বিনোদন দেব। বানানো হবে গ্রেট সিনেমা। সবাইকে ধন্যবাদ।’

 

বন্ধ করুন