বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ইদে জোড়া সিনেমা সলমনের, 'ভাইজানের' হাত ধরেই ঘুরে দাঁড়ানোর আশায় হলমালিকরা
সলমন খান
সলমন খান

ইদে জোড়া সিনেমা সলমনের, 'ভাইজানের' হাত ধরেই ঘুরে দাঁড়ানোর আশায় হলমালিকরা

  • সম্প্রতি সলমন বলেছিলেন, ‘প্রেক্ষাগৃহগুলো যেন কবরখানার মতো দাঁড়িয়ে রয়েছে।

করোনাভাইরাস পরিস্থিতির জেরে শ্যুটিং এবং মুক্তি পিছিয়ে গিয়েছে সলমন খানের তিনটি ছবির। এরইমধ্যে কেন্দ্রের নয়া নির্দেশিকা অনুসারে, গত ১ ফেব্রুয়ারি থেকে দেশের সমস্ত সিনেমা হলে ১০০ শতাংশ দর্শক হাজির থাকতে পারছেন। 

কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রকের পক্ষ থেকে নতুন নির্দেশিকা জারি করা হয়। কোনও সিনেমা হল, থিয়েটার ও মাল্টিপ্লেক্সে ১০০ শতাংশ দর্শকাসন পূর্ণ করা যাবে। যার জেরে চেনা ছন্দে ফিরতে চলেছে মাল্টিপ্লেক্স এবং সিনেমা হলগুলি। 

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে এই নিয়ে নিজের উদ্বেগ প্রকাশ করেছিলেন স্বয়ং সলমন। অভিনেতার কথায়, সিনেমা হল না বাঁচলে তাঁদের পক্ষেও টিকে থাকা কঠিন হয়ে পড়বে। তিনি আরও বলেন, ‘প্রেক্ষাগৃহগুলো যেন কবরখানার মতো দাঁড়িয়ে রয়েছে। আর্থিক কারণে অনেকেই হল বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয়েছেন সিনেমা হল। এটা ভালো লক্ষণ নয়। এটা আমাদের রুজিরুটি। আমরা পরস্পরের উপর নির্ভরশীল। হল বন্ধ হয়ে গেলে আমাদের ছবিগুলো কোথায় দেখাব?’ অভিনেতা ঘোষণা করেছিলেন, এই বছর ইদে মুক্তি পাচ্ছে তাঁর ছবি ‘রাধে’। 

তবে কেন্দ্রের নয়া নির্দেশ অনুসারে আপাতত স্বস্তিতে হল মালিকরা। বিনোদন জগতে অনেকটা ক্ষতি সামলে ওঠার কথা মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। এদিকে সলমনের ছবি ‘কভি ইদ কভি দিওয়ালি’ এবং ‘অন্তিম’-এর শ্যুটিংয়ের কাজও প্রায় শেষ করে ফেলেছে গোটা টিম। যার জেরে অনেকটা আশার আলো দেখছেন সিনে ব্যবসায়ীরা।  

বন্ধ করুন