বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > গণেশ আচার্যর বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ নৃত্যশিল্পীর, চার্জশিট পেশ পুলিশের
যৌন হেনস্থায় অভিযুক্ত গণেশ আচার্য

গণেশ আচার্যর বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ নৃত্যশিল্পীর, চার্জশিট পেশ পুলিশের

  • অভিযোগ, ২০২০ সালে মহিলা সহকর্মীকে যৌন হেনস্তা করেছেন গণেশ আচার্য! নৃত্য পরিচালকের বিরুদ্ধে চার্জশিট পেশ করল পুলিশ।

২০২০ সালে নৃত্য পরিচালক গণেশ আচার্যর বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগ এনেছিলেন তাঁর এক মহিলা সহকর্মী তথা নৃত্য প্রশিক্ষক। গণেশের বিরুদ্ধে প্রশাসনের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছিলেন তিনি। শুক্রবার মুম্বই পুলিশ গণেশের বিরুদ্ধে সেই চার্জশিট জমা দিয়েছে।

ওশিওয়ারা পুলিশ অফিসার সন্দীপ শিন্ডে, যিনি অভিযোগের তদন্ত করেছিলেন, জানা যায় চার্জ শিট সম্প্রতি আন্ধেরির মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতে দাখিল করেছেন। ৩৫৪ও (যৌন হয়রানি), ৩৫৪সি (ভয়্যুরিজম), ৩৫৪ডি (স্টকিং), ৩২৩ (আঘাত করা), ৫০৪ (শান্তি ভঙ্গ করার উদ্দেশ্যে ইচ্ছাকৃতভাবে অপমান করা), ৩৪ (অপরাধ করার সাধারণ অভিপ্রায়) সহ বিভিন্ন ধারায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে গণেশ আচার্যের বিরুদ্ধে।

বছর ৩৫-এর নৃত্য পরিচালকের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে বলেন, তাকে জানানো হয়েছিল যে চার্জশিট দাখিল করা হয়েছে। তবে এই নৃত্যশিল্পী যখন গণেশের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ এনেছিলেন, তখন তিনি তা পুরোপুরি অস্বীকার করেছিলেন। আর গণেশ বলেছিলেন, এই অভিযোগ ভিত্তিহীন আর মিথ্যা। তা সত্ত্বেও তাঁর বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছিল। গণেশ তাঁর সহনৃত্যশিল্পীর বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করেছিলেন।

ঠিক কী ঘটেছিল? কর্মক্ষেত্রে জোর করে অ্যাডাল্ট ভিডিয়ো দেখতে বাধ্য করতেন গণেশ আচার্য, পুলিশের কাছে এমনটাই অভিযোগ জানিয়েছেন ওই নৃত্যশিল্পী। ৩৩ বছর বয়সী নৃত্যশিল্পীর বয়ান অনুযায়ী, ‘ভারতীয় ফিল্ম এবং টেলিভিশন কোরিওগ্রাফার অ্যাসোসিয়েশন’-এর সাধারণ সম্পাদক হওয়ার পর থেকেই নানাভাবে গণেশের হাতে হেনস্থার শিকার হয়েছেন তিনি। অভিযোগকারীর মতে, ‘প্রায়শই অফিসে ডেকে জোর করে অশালীন ভিডিয়ো দেখতে বাধ্য করতেন গণেশ আচার্য। এমনকি এক লক্ষ টাকার মেম্বারশিপ চার্জ দেওয়ার পরেও ওই অ্যাসোসিয়েশন থেকে আমার ছ'মাসের সদস্য পদ বাতিল করে দেন গণেশ আচার্য। গণেশের সঙ্গে সম্পর্ক খারাপ হওয়ার ভয়ে অন্যান্য কোরিওগ্রাফারও আমাকে কাজ দিতে অস্বীকার করেছেন।’

গণেশের নারী সহকারীর সঙ্গে মেয়েটির হাতাহাতি পর্যন্ত হয়েছিল। এরপর অভিযোগকারিণী আইনের সাহায্য নেওয়ার কথা ভাবেন। কিন্তু পুলিশ প্রথমে এই মামলা নিতে অস্বীকার করেছিল। এরপর মেয়েটি আইনজীবীর সহায়তা নিয়ে গণেশের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

 

বন্ধ করুন