বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > জয়পুরের বিয়ের অনুষ্ঠানে ইরফানের স্মৃতিতে ‘একটানা’ চোখের জল ফেললেন স্ত্রী সুতপা
ইরফান খানের সঙ্গে সুতপা শিকদার
ইরফান খানের সঙ্গে সুতপা শিকদার

জয়পুরের বিয়ের অনুষ্ঠানে ইরফানের স্মৃতিতে ‘একটানা’ চোখের জল ফেললেন স্ত্রী সুতপা

  • পরিবারের জন্য নিজেকে শক্ত রেখেছিলেন এতদিন। কিন্তু রাজস্থানের জয়পুরে গিয়ে আটকাটে পারেননি চোখের জল।

দু' বছর ক্যানসারের সঙ্গে লড়াই করে ২০২০-র ২৯ এপ্রিল মারা যান ইরফান খান। অভিনেতার এভাবে হঠাৎ চলে যাওয়া মেনে নিতে পারেনি কেউই। লড়াই কঠিন ছিল পরিবারের কাছেও। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে নিজের মনের কথা ভাগ করে নিলেন ইরফান খান পত্নী। জানালেন, ‘এতদিন নিজেকে সবার সামনে শক্ত রাখার চেষ্টা চালিয়ে গিয়েছি’। 

ইরফানের মৃত্যুর পর নিজেকে একপ্রকার লোক চক্ষুর আড়ালে নিয়ে গিয়েছিলেন সুতপা।  শুধু ফেসবুকের প্রোফাইল পিকচার বদলেছিলেন সুতপা। দেখা গিয়েছিল দু'হাত দিয়ে ইরফানকে আগলে রেখেছেন তাঁর সুদীর্ঘ ৩৫ বছর পার্টনার। ক্যাপশনে ইরফান পত্নী লিখেছিলেন, 'আমি কিচ্ছু হারাইনি, আমি সব দিক থেকে লাভ করেছি'।

সুতপা এক সাক্ষাৎকারে বলেন, তাঁর লজ্জা লাগত সবার সামনে নিজের মন খারাপ প্রকাশ করতে। তাই তিনি সেভাবে কখনও কাঁদেননি। কিন্তু গত মাসে জয়পুরে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে গিয়েছিলেন। সেখানে গিয়েই টানা সাত দিন কেঁদেছেন ইরফান পত্নী।

পেশায় লেখিকা সুতপা শিকদার জানান, ‘এতদিন নিজেকে শক্ত রেখেছিলাম। পরিবারের কথা মাথায় রেখে সমস্ত দায়িত্ব পালন করে গিয়েছি। ওর ব্যাপারে কারওর সঙ্গে কথা বলাও এরিয়ে যেতাম, কেঁদে ফেলার ভয়ে! হয়তো তাই মনের মধ্যে সমস্ত কষ্ট চাপা থেকে গিয়েছিল।’

গত মাসে জয়পুরে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গিয়েছিলেন সুতপা। সে ব্যাপারে জানান, ‘ওখানে গিয়ে কী হয়েছিল জানি না, ৭-৮ দিন টানা কেঁদেছি। এক তো ছেলেরা আমার সঙ্গে ছিল না। তাই নিজেকে শক্ত দেখানোর প্রয়োজন হয়নি। সঙ্গে, ওটা ছিল রাজস্থান, যেখানে আমি আর ইরফান এর আগেও গিয়েছিলাম। পুরোটা সময় আমার চারপাশে ওঁর উপস্থিতি অনুভব করেছি।’

বন্ধ করুন