বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > দাদা সাহেব ফালকে আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব পুরস্কার: মরণোত্তর সম্মান সুশান্তকে, স্বীকৃতি দীপিকা-সুস্মিতার
সমালোচকদের বিচারে সেরা অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত
সমালোচকদের বিচারে সেরা অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত

দাদা সাহেব ফালকে আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব পুরস্কার: মরণোত্তর সম্মান সুশান্তকে, স্বীকৃতি দীপিকা-সুস্মিতার

  • জানুন কোন বিভাগে সেরা কারা..

ঘোষণা হল দাদা সাহেব ফালকে ২০২১ আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব পুরস্কারের তালিকা।  রূপোলি পর্দায় মনোরঞ্জনের জন্য বেছে নেওয়া হয়েছে সেরার সেরাদের। সেখানে দীপিকা পাড়ুকোন থেকে অক্ষয় কুমার, সুস্মিতা সেন থেকে সুরভি চন্দনা এবং নোরা ফাতেহি, কলাকুশলীরা তাঁদের গত বছরের কাজের জন্য পুরস্কৃত হয়েছেন।

এবছর দাদাসাহেব ফালকে ইন্টারন্যাশ্যাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল পুরস্কারের আসরে সবচেয়ে চর্চায় থাকলেন প্রয়াত অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত। সেরা অভিনেতা হিসেবে (ক্রিটিকস) পুরস্কার পেলেন সুশান্ত। বক্স অফিসে সুশান্তের শেষ ছবি ২০১৯ সালে নিতীশ তিওয়ারি পরিচালিত ‘ছিছোড়ে’, অন্যদিকে মৃত্যু পর ওটিটি প্ল্যাটফর্মে মুক্তি পায় সুশান্তের শেষ ছবি ‘দিল বেচারা’।

মেঘনা গুলজার পরিচালিত ‘ছপাক’ সিনেমায় নজড়কাড়া অভিনয়ের জন্য সেরা অভিনেত্রী হিসাবে ‘দাদাসাহেব ফালকে ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল অ্যাওয়ার্ডস’ পেয়েছেন অভিনেত্রী দীপিকা পাডুকোন। ছবিতে অ্যাসিড আক্রান্ত লক্ষ্মী আগরওয়ালের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন দীপিকা। ছপকে তাঁর সহ-অভিনেতা বিক্রান্ত মাসে পেয়েছেন সেরা সহ-অভিনেতার পুরস্কার।

তামিল ছবি কাঞ্চনার বলিউড রিমেক হরর-কমেডি ছবি ‘লক্ষ্মী’তে অভিনয় করে সেরা অভিনেতার পুরস্কার পান অক্ষয় কুমার। ছবিতে অক্ষয়ের সহ অভিনেত্রী কিয়ারা আডবানি ক্রিটিকস চয়েসে নেটফ্লিক্সের ‘গিলটি’ ছবির জন্য সেরা অভিনেত্রী হিসাবে মনোনীত হয়েছেন। অভিনেত্রী হিসেবে প্রথম পুরস্কার ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করে গিলটি-র প্রযোজক করণ জোহার, পরিচালক রুচি নারায়ণকে ধন্যবাদ জানান কিয়ারা।

কমিক চরিত্রে ‘লুটকেস’ ছবির জন্য সেরা অভিনেতা হিসেবে পুরস্কৃত কুণাল খেমু।গত কয়েক দশক ধরে হিন্দি সিনেমায় তাঁর অবিস্মরণীয় অবদানের জন্য বিশেষ সম্মানিত হয়েছে প্রবীন অভিনেতা ধর্মেন্দ্র।  ‘পারফর্মার অফ দ্য ইয়ার’ অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন নোরা ফাতেহি।

মনে রাখতে হবে প্রতিবছর, ভারতীয় সিনেমার জনককে সম্মান জানিয়ে দাদাসাহেব ফালকে ইন্টারন্যাশন্যাল ফিল্ম কমেটির তরফে এই পুরস্কার প্রদান করা হয়। ২০১২ সাল থেকে অনিল মিশ্রার পৃষ্ঠপোষকতায় এই চলচ্চিত্র পুরস্কারের পথচলা শুরু। ভারত সরকার কর্তৃক চলচ্চিত্রে অবদানের জন্য সর্বোচ্চ স্বীকৃতি হিসাবে যে দাদাসাহেব পুরস্কার প্রদান করা হয়, সেটি সম্পূর্ন ভিন্ন সম্মান।

বন্ধ করুন