বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > প্রাক্তন প্রেমিকের বেডরুমে ঢুকে বসে থাকতেন পারভিন ববি, নাজেহালে হতে হয় ড্যানিকে!
চার বছর টিকে ছিল এই প্রেমের কাহিনি (ছবি সৌজন্যে- রেট্রো হিন্দি)
চার বছর টিকে ছিল এই প্রেমের কাহিনি (ছবি সৌজন্যে- রেট্রো হিন্দি)

প্রাক্তন প্রেমিকের বেডরুমে ঢুকে বসে থাকতেন পারভিন ববি, নাজেহালে হতে হয় ড্যানিকে!

  • মানসিক অবসাদের জেরেই করুণ পরিণতি হয়েছিল বলিউডের ‘সেক্স সিম্বল’ পারভিন ববির। বলিউডের তিন তারকার সঙ্গে প্রণয় ডোরে বাঁধা পড়েছিলেন পারভিন। 

যৌন আবদেনর বিচারে সত্তর ও আশির দশকে বলিউডের অন্যতম সেরা অভিনেত্রী ছিলেন পারভিন ববি। বি-টাউনের আল্টিমেট ‘সেক্স সিম্বর’ পারভিনের জীবনের শেষ পর্বটা ছিল নিঃসঙ্গ আর একাকীত্বের ভরপুর। ১৬ বছর আগে প্রয়াত হন পারভিন, আজ অভিনেত্রীর জন্মবার্ষিকী। বেঁচে থাকতে আজ তাঁর বয়স হতো ৬৭। একটা সময় মানসিক অবসাদগ্রস্ত হয়ে পড়েছিলেন এই অভিনেত্রী, বলা হয় স্কিজোফ্রেনিয়ায় আক্রান্ত ছিলেন পারভিন। তবে বলিউডের তিন তারকার সঙ্গে একটা সময় গভীর প্রণয়ের সম্পর্ক ছিল তাঁর। ড্যানি ডেনজংপা,কবীর বেদী এবং মহেশ ভাট।

শোনা যায়, চার বছর প্রেম ডোরে বাঁধা ছিলেন পারভিন-ড্যানি। সেই সময় চর্চায় উঠে আসেনি পারভিনের অসুস্থতা। পারভিন ও ড্যানি অংশ ছিলেন ‘জুহু গ্যাং’-এর যার অংশ ছিলেন শেখর কাপুর, কবীর বেদী, প্রতিমা বেদীরা। শুরুর দিকে সবকিছুই ঠিকঠাক ছিল এই প্রেম কাহিনিতে, তবে এই সম্পর্ক নিয়ে  দুজনের মনে ছিল ভিন্ন প্রত্যাশা, যার জেরেই রাস্তা আলাদা হয় ড্যানি ও পারভিনের। 

বলিউড হাঙ্গামাকে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারকে ড্যানি জানিয়েছেন, ‘আমার প্রথম গার্লফ্রেন্ড ছিল পারভিন, একই বিল্ডিংয়ে থাকতাম আমরা। ও থাকত চারতলায় আর আমি একতলায়'। সত্তরের দশকের মাঝামাঝি সময়ে ড্যানির থেকে দূরে সরে যান পারভিন, এরপর বিবাহিত কবীর বেদীর সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা বাড়ে নায়িকার। ড্যানিও পারভিনকে ভুলে ‘ডিস্কো ডান্সার’ নায়িকা কিম ইয়াশপালের সঙ্গে প্রেম সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। ড্যানি বলেছেন, ‘আমরা দুজনেই খুব কমবয়সী ছিলাম, একসঙ্গে চারটে বছর কাটিয়েছি। সেই সময় ওটা খবর ছিল। আমরা খুব ভালো সময় কাটিয়েছি, পরে আমাদের রাস্তা আলাদা হয়, সেটা ভালোভাবেই শেষ হয়েছিল। আমাদের বন্ধুত্ব টিকে ছিল’। 

পারভিনের অসুস্থতার ব্যাপারে কিছুই বুঝতে বা আঁচ করতে পারেননি ড্যানি। তবে সম্পর্ক ভাঙার পরেও পারভিনের কিছু আচরণ চিন্তায় ফেলেছিল ড্যানিকে। এই সম্পর্কে বলতে গিয়ে অভিনেতা বলেন, একবার তিনি, এবং তাঁর সেইসময়ের প্রেমিকা কিম বাড়ি ফিরে দেখেন ড্যানির বেডরুমে পারভিন। আরাম করে বসে ভিসিআরে সিনেমা দেখছে প্রাক্তন প্রেমিকা, এই দৃশ্য অবাক করেছিল ড্যানিকে। ‘পারভিন আমাকে ডিনারের জন্য আমন্ত্রণ জানাতো, এবং স্বাভাবিকভাবেই আমার তত্কালীন প্রেমিকার কাছে পারভিন চিন্তার কারণ ছিল। তোমার প্রাক্তন কোনও কিছু না বলে তোমার বেডরুমে ঢুকে থাকতে, সেটাও কোনও মেয়ের পক্ষেই মেনে নেওয়া সম্ভবপর নয়। আমি শ্যুটিং সেরে কিমকে নিয়ে বাড়ি ফিরে প্রায়ই পারভিনকে দেখতাম, এই নিয়ে ওকে অনেক বুঝিয়েছিলাম। বলত, আমরা তো বন্ধু, আমাদের মধ্যে কোনও প্রেম সম্পর্ক তো আর নেই'।  

 

মহেশ ভাটের সঙ্গে সম্পর্কে থাকাকালীনই পারভিনের মানসিক পরিস্থিতি বিগড়ে যায়, একথা জানান ড্যানি। স্বভাবসিদ্ধভাবেই মহেশ ভাটের সঙ্গে সম্পর্কে থাকাকালীনও ড্যানিকে একদিন নৈশভোজে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন প্রতিবেশী পারভিন। প্রাক্তন প্রেমিকার বাড়িতে ডিনার গিয়ে, টেবিলে রাখা রুপোলি শাঁখ বাজানো শুরু করেন ড্যানি। এতে চূ়ড়ান্ত ভয়ে সিঁটিয়ে যান পারভিন। পরে ড্যানিকে. পারভিনের সেইসময়কার প্রেমিক মহেশ ভাট জানিয়েছেন, ‘আজকাল কথায় কথায়, পারভিন ভয় পায়। এবং নিঃসঙ্গতায় ভোগে’। 

পারভিনের সঙ্গে মহেশের সম্পর্ক ভাঙার পরেও টিকে ছিল পারভিন-ড্যানির বন্ধুত্ব। তবে অমিতাভ বচ্চনের জন্য এই সম্পর্কে ইতি পড়ে। ভাবছেন কীভাবে?  একটা সময় পারভিন ববি সংবাদমাধ্যমের সামনে প্রকাশ্যে বলেছিলেন অমিতাভ বচ্চন তাঁর ক্ষতি করবার চেষ্টা করছে. ষড়যন্ত্র করচে তাঁর বিরুদ্ধে। এক সংবাদ প্রতিবেদনে পারভিন পড়েছিলেন অমিতাভের সঙ্গে ড্যানির বন্ধুত্বের কথা, তারপরই ড্যানির সঙ্গে বন্ধুত্বের সম্পর্ক ভেঙে ফেলেন পারভিন। একদিন অসুস্থ বন্ধুর খোঁজ নিতে গেলে, ড্যানিকে বাড়ির ভিতর ঢুকতে দেননি পারভিন, এইভাবেই শেষ হয়েছিল এই অসমাপ্ত প্রেমের গল্প।

বন্ধ করুন