বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Debangshu Bhattacharya: ‘১০ মিনিট দেরি হলেই মা বেলন-চাকি নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকে’, রান্নাঘরে ফাঁস করল দেবাংশু

Debangshu Bhattacharya: ‘১০ মিনিট দেরি হলেই মা বেলন-চাকি নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকে’, রান্নাঘরে ফাঁস করল দেবাংশু

মা-র হাতে মার খাওয়ার গল্প শোনালেন দেবাংশু রান্নাঘর-এ

জি বাংলার রান্নাঘরে মা-কে নিয়ে এসেছিলেন দেবাংশু। আর সেখানেই কথা প্রসঙ্গে ছোটবেলা মায়ের হাতে মার খাওয়ার গল্প শোনালেন শো-র হোস্ট সুদীপা চট্টোপাধ্যায়কে। 

তৃণমূলের নেতা হিসেবে বহুল পরিচিত নাম দেবাংশু ভট্টাচার্য। শুধু তাই নয়, একইভাবে সোশ্যাল মিডিয়াতেও সমান জনপ্রিয়। কড়া টক্কর দিতে ভোলেন না বড় বড় তারকাদেরও। এবার তিনি মাকে নিয়ে হাজির হলেন জি বাংলার কুকিং শো ‘রান্নাঘর’-এ। সেখানেই হোস্ট সুদীপা চট্টোপাধ্যায়কে বললেন মায়ের হাতে ছোটবেলায় কীভাবে মার খেতেন।

তৃণমূল কংগ্রেসের ইউথ আইকন দেবাংশু। সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁর ফলোয়ার্সের সংখ্যা তাক লাগিয়ে দেওয়ার মতোই। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের একনিষ্ঠ ভক্ত বললেও ভুল বলা হবে না। একুশের সুপার ডুপার হিট স্লোগান 'খেলা হবে' জনপ্রিয় হয়েছিল তাঁর হাত ধরেই।

দেবাংশু রান্নাঘরে এসে মায়ের প্রসঙ্গে জানান, ‘মারার ক্ষেত্রে আমার মায়ের এতরকম গুণ রয়েছে, এতরকমভাবে মা পেটাটতে পারে তা নিয়ে আলাদা একটা বই হতে পারে।’ তিনি মজা করেই জানান, ‘এই যে মা দুর্গা আসছে, হাতে এতরকম অস্ত্র… আমার মায়ের কিন্তু আলাদা করে কোনও দিকে তাকানোর দরকার হয় না। সবকিছুকেই অস্ত্র করে নিতে পারে। এই যে বেলন চাকি থেকে হাতাখুন্তি, এমনকী মুরগির ঠ্যাং, চামচ সবকিছু দিয়ে মা পেটাতে পারে।’

ছেলের কথা শুনে রান্না করতে করতে মিটিমিটি হাসছিলেন দেবাশুর মা। তৃণমূলের এই নেতা আরও জানান, ‘আমার মনে হয় মা-বাবার শাসন বা মারের দরকার আছে। এই যে রাতে দশ মিনিট গেরি হলেই মা বেলন চাকি নিয়ে দাঁড়িয়ে আছে, এই ভয়টাই আমাদের নিয়মানুবর্তিত করে তোলে।’ দেবাংশুর এই কথার সঙ্গে সহমনত পোষণ করেন সুদীপাও। তিনি বলেন, ‘আমার মনে হয় মায়ের মারে সেভাবে ব্যথাও লাগে না’।

বন্ধ করুন