ছপাকের প্রচারে মালতি সেজে রাস্তায় ঘুরলেন দীপিকা পাড়ুকোন
ছপাকের প্রচারে মালতি সেজে রাস্তায় ঘুরলেন দীপিকা পাড়ুকোন

ভিড়ে ঠাসা রাস্তা থেকে শপিং মল: দীপিকাকে দেখে মুখ ঘুরিয়ে নিল জনতা

একজন অ্যাসিড আক্রান্তকে দেখে আমাদের তথাকথিত সভ্য সমাজের বাসিন্দারা কেমন প্রতিক্রিয়া দিয়ে থাকে, সেটাই ঘুরে দেখার চেষ্টা করলেন দীপিকা পাড়ুকোন মানে পর্দার মালতি।গোপন ক্যামেরা সঙ্গে নিয়ে দীপিকা ও তাঁর অ্যাসিড আক্রান্ত বন্ধুরা ঘুরে বেড়ালেন মুম্বইয়ের ব্যস্ত রাস্তা থেকে দোকানপাটে।

জেএনইউ ক্যাম্পাসে বিক্ষোভরত পড়ুয়াদের প্রতিবাদ মিছিলে সামিল হয়ে এখন সংবাদ শিরোনামে অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোন। দুদিন পরেই মুক্তি পাচ্ছে দীপিকার নতুন ছবি ছপাক। পরিচালক মেঘনা গুলজারের এই ছবিতে দীপিকা শুধু নায়িকা নন ছবির যৌথ প্রযোজকও বটে। মঙ্গলবার টিম ছপাক প্রকাশ্যে আনল নতুন প্রমোশ্যানল ভিডিও।

Fact Check- ছপাকে অ্যাসিড হামলাকারীর নাম কি নাদিম থেকে পাল্টে রাজেশ করা হয়েছে?

যেখানে একজন অ্যাসিড আক্রান্তকে দেখে আমাদের তথাকথিত সভ্য সমাজের বাসিন্দারা কেমন প্রতিক্রিয়া দিয়ে থাকে, সেটাই ঘুরে দেখার চেষ্টা করলেন দীপিকা মানে পর্দার মালতী।

যা ঘটছে সেটা দেখে ভয়ও লাগছে, দুঃখও লাগছে- JNU কাণ্ড নিয়ে মুখ খুললেন দীপিকা


এই সোশ্যাল এক্সপেরিমেন্টে দীপিকা এবং কিছু রিয়েল লাইফ অ্যাসিড আক্রান্তদের সঙ্গে ছিল বেশ কিছু গোপন ক্যামেরা। গোটা ঘটনাই রেকর্ড হয়েছে সেই সব ক্যামেরাগুলোতে।লতি।

.


ভিডিওর শুরুতেই দীপিকাকে বলতে শোনা গেল, 'যখনই দীপিকা প্রকাশ্যে আসেন মানুষ তাঁকে চিনতে পারে। আমিও কিছুসময় লুকিয়ে পড়তে চাই'।

এরপরই দেখা যায় মেক আপ ভ্যানে ঢুকে প্রস্থেটিক মেক আপের সাহায্যে একজন অ্যাসিড আক্রান্ত মহিলার রূপ নিয়ে নেন দীপিকা। বলা যেতে পারে দীপিকা থেকে মালতি হয়ে ওঠেন তিনি।


'মেরুদণ্ডের দৃঢ়তা দেখালেন', JNU-তে যাওয়ায় দীপিকার সাহসকে কুর্নিশ নেটিজেন


তারপরই মুম্বইয়ের ব্যস্ত রাস্তা থেকে দোকানপাট ঘুরে বেড়ান দীপিকা ও তাঁর বন্ধুরা। প্রথমেই তারা মোবাইল ফোনের দোকানে যান, সেখানে থেকে মুদির দোকান, কখনও আবার জুয়েলারির দোকান। কেউ কেউ অ্যাসিডে ঝলসে যাওয়া মুখগুলো দেখে বাঁকা চোখের চাউনি দেন, কেউ আবার মুখ ফিরয়ে নেন। যদিও সবাই সমান তেমনটা বলা যাবে না। কেউ কেউ হেসে কথা বলেছেন, সাহায্য করেছেন।

মুখে যতটা মিষ্টিভাব দেখানো হয় জীবনযুদ্ধে জয়ী এইসব সাহসিনীদের প্রতি কি সত্যি ততটাই সহানুভূতিশীল সমাজ? প্রশ্নটা বোধহয় সত্যি ভেবে দেখার প্রয়োজন আছে।

ভিডিওর শেষে দীপিকাকে বলতে শোনা গেল, ‘আজ গোটা দিন এদের সঙ্গে কাটিয়ে বুঝলাম, অনেক সময় অনেক জিনিস চোখের সামনেই ঘটে কিন্তু আমরা দেখতে পাই না। দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তনের প্রয়োজন আছে’।

শুক্রবার মুক্তি পাচ্ছে ছপাক। অ্যাসিড আক্রান্ত লক্ষ্মী আগারওয়ালের বায়োপিক এই ছবি। ফিল্মের দীপিকার বিপরীতে দেখা মিলবে বিক্রান্ত মাসিকে।

বন্ধ করুন