বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > করোনা হওয়ার পর নিজেকেই চিনতে পারছিলেন না দীপিকা, জানালেন ‘মাথা কাজ করত না আমার’!
দীপিকা পাড়ুকোন। (ছবি সৌজন্যে - ফেসবুক)

করোনা হওয়ার পর নিজেকেই চিনতে পারছিলেন না দীপিকা, জানালেন ‘মাথা কাজ করত না আমার’!

  • করোনার ভয়বহতা নিয়ে এতদিন পর কথা বলতে শোনা গেল দীপিকা পাড়ুকোনকে। 

২০২১ সালে করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন বলিউড অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোন। এতদিন পর করোনার ভয়াবহতা নিয়ে মুখ খুললেন তিনি। সাক্ষাৎকারে জানালেন করোনা পজিটিভ হওয়ার পর কীভাবে তাঁর জীবনটাই বদলে গিয়েছিল। 

গতবছরের এপ্রিল মাসে করোনা আক্রান্ত হন দীপিকা ও তাঁর পরিবার। সাক্ষাৎকারে ‘৮৩’ অভিনেত্রীর দাবি নিজেকেই শারীরিকভাবে চিনতে পারছিলেন না তিনি!

দীপিকা জানিয়েছেন, ‘করোনা থেকে সেরে ওঠার জন্য যেই ধরনের স্টেরয়েড দেওয়া হয়েছিল সেগুলো আমার শরীরকে দুর্বল করে দিয়েছিল। কিছুই যেন মনে রাখতে পারছিলাম না। শরীরের সাথে মনের কোনও মিল খুজে পাচ্ছিলাম না। এ এক অদ্ভুত অনুভূতি।’

দীপিকা আরও জানান, করোনা নেগেটিভ হওয়ার পরেও পুরোপুরি সেরে উঠতে তাঁর ২ মাস সময় লেগে গিয়েছিল। ওই সময় কাজের থেকেও বিরতি নিয়েছিলেন তিনি। খুব কঠিন সময় ছিল তাঁর কাছে সেটা। প্রসঙ্গত, এপ্রিলে পীপিকা পাড়ুকোন, বাবা প্রকাশ পাড়ুকোন, মা উজ্জলা পাড়ুকোন এবং বোন অনিশা সকলকেই করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন।

এর আগেও মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে কথা বলতে শোনা গিয়েছে তাঁকে। এমনকী, বছরখানেক আগে নিজের অবসাদের কথাও প্রাকশ্যে এনেছিলেন তিনি। এখনও তাঁকে কথা বলতে শোনা যায় তা নিয়ে। নিজে Live Love Laugh নামে একটি ফাউন্ডেশনও চালান। যাতে যে সমস্ত মানুষ অবসাদে ভুগছেন তাঁদের পাশে দাঁড়াতে পারেন।

বন্ধ করুন