লক্ষ্মীর আইনজীবী অপর্ণা ভাটের নাম ক্রেডিটে উল্লেখ না করলে প্রদর্শন বন্ধ হবে ছপাকের... (AFP)
লক্ষ্মীর আইনজীবী অপর্ণা ভাটের নাম ক্রেডিটে উল্লেখ না করলে প্রদর্শন বন্ধ হবে ছপাকের... (AFP)

এই শর্ত না মানলে ছপাক প্রদর্শন বন্ধের নির্দেশ আদালতের

  • নিম্ন আদালতের রায় বহাল দিল্লি হাইকোর্টে। লক্ষ্মীর আইনজীবী অপর্ণা ভাটের নাম উল্লেখ করতে হবে ছপাকের ক্রেডিটে। না হলে ১৫ জানুয়ারি থেকে বন্ধ হবে ছবির প্রদর্শন, রায় দিল্লি হাইকোর্টের।

মুক্তির পরের দিন বড় ধাক্কা টিম ছপাকের। দীপিকা পাড়ুকোনের ছপাক ঘিরে বিতর্ক থামছে না। শনিবার ছপাক নিয়ে বড় রায় দিল দিল্লি হাইকোর্ট। দিল্লির পাতিয়ালা হাউস কোর্টে টিম ছপাকের বিরুদ্ধে লক্ষ্মী আগারওয়ালের আইনজীবী অপর্ণা ভাটের দায়ের করা মামলার রায় বহাল রাখল দিল্লির উচ্চ আদালত। ছবির ক্রেডিটে অপর্ণার নাম উল্লেখ করতে হবে ছবির প্রযোজক সংস্থা ফক্স স্টার স্টুডিওকে। নির্দেশ না মানলে ১৫ জানুয়ারি থেকে ছপাকের প্রদর্শন বন্ধের নির্দেশ দিল কোর্ট। বিচারপতি প্রতিভা এ সিং জানিয়েছেন মাল্টিপ্লেক্সের জন্য এবং অনান্য লাইভ স্ট্রিমিং অ্যাপের জন্য এই সময়সীমা ১৫ জানুয়ারি, অন্যদিকে অনান্য প্ল্যাটফর্মের জন্য এই রায় কার্যকর হবে ১৭ জানুয়ারি থেকে।

ছবির প্রযোজক সংস্থা নিম্ন আদালতের রায়ের বিরোধিতা করে উচ্চ আদালতের দারস্থ হয়েছিল। ছবি মুক্তির আগের দিন(বৃহস্পতিবার) পাতিয়ালা হাউস কোর্ট ছবির প্রযোজক সংস্থাকে অপার্ণা ভাটের দাবি মেনে ছবির ক্রেডিটে তাঁর নাম উল্লেখের নির্দেশ দিয়েছিল।

আদালতকে নিজের পিটিশনে অপর্ণা ভাট জানিয়েছিলেন, অ্যাসিড আক্রান্ত লক্ষ্মী আগারওয়ালের হয়ে কোর্টে দীর্ঘদিন লড়াই করেছেন তিনি। ছপাকের চিত্রনাট্য তৈরির ক্ষেত্রেও পরিচালক মেঘনা গুলজাররে সহায়তা করেছেন তিনি। তবুও ছবির ক্রেডিটে তাঁর নাম উল্লেখ করা হয় নি। তিনি আরও জানান, ১৬ থেকে ১৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত পরিচালক মেঘনা গুলজারের সঙ্গে তাঁর যোগাযোগ হয়েছিল এবং মেঘনা জানিয়েছিলেন ছবির ক্রেডিটে তাঁর নাম উল্লেখ করা হবে। কিন্তু বুধবার তিনি আচমকাই জানতে পারেন ছবির ক্রেডিটে তাঁর নামের কোনও উল্লেখ নেই।


এরপরই আদালতের দারস্থ হওয়ার সিদ্ধান্ত নেন লক্ষ্মীর আইনজীবী এবং ছপাকের মুক্তিতে সাময়িক নিষেধাজ্ঞা জারি করার আবেদন জানান। ছবির মুক্তিতে সাময়িক নিষেধাজ্ঞা জারির আবেদন বৃহস্পতিবার আদালত খারিজ করে দিলেও ছবির ক্রেডিটে অপর্ণার নাম উল্লেখ করার নির্দেশ দিয়েছিল। সেই রায়ের বিরুদ্ধেই দিল্লি হাইকোর্টে মামলা দায়ের করেছিল ফক্স স্টার স্টুডিও।

আদালতে প্রযোজক সংস্থার দাবি ছিল, ছপাকের চিত্রনাট্য তৈরিতে কোনওরকম পরামর্শ বা নথিপত্র দিয়ে তাদের থেকে স্বীকৃতি চাওয়ার কোনও আইনি অধিকার নেই অপর্ণা ভাটের। যদিও তাঁদের এই দাবি আদালতে খারিজ হয়ে গেল। এখন দেখার দিল্লি হাইকোর্টের রায় টিম ছপাক মেনে নেয় নাকি সুপ্রিম কোর্টের দারস্থ হয়!

বন্ধ করুন