বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Jayeshbhai Jordaar: মুক্তিতে বাধা নেই,জয়েশভাই জোরদার নির্মাতাদের মানতে হবে এই শর্ত, জানাল হাই কোর্ট
অবশেষে স্বস্তি!
অবশেষে স্বস্তি!

Jayeshbhai Jordaar: মুক্তিতে বাধা নেই,জয়েশভাই জোরদার নির্মাতাদের মানতে হবে এই শর্ত, জানাল হাই কোর্ট

  • ভ্রূণের লিঙ্গ নির্ধারণের দৃশ্য ট্রেলারে দেখিয়ে বিপাকে জড়িয়েছিল রণবীর সিং-এর আসন্ন ছবি ‘জয়েশভাই জোরদার’। এদিন দিল্লি হাইকোর্টের রায়ে স্বস্তিতে রণবীর!

ভ্রূণের লিঙ্গ নির্ধারণের দৃশ্য ট্রেলারে দেখিয়ে বিপাকে জড়িয়েছিল রণবীর সিং-এর আসন্ন ছবি ‘জয়েশভাই জোরদার’। নির্ধারিত দিনে ছবির মুক্তি নিয়েও জটিলতা তৈরি হয়েছিল, অবশেষে দিল্লি হাইকোর্টের রায়ে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলছে টিম ‘জয়েশভাই জোরদার’। এই ছবির মুক্তিতে কোনও বাধা নেই মঙ্গলবার জানিয়ে দিল হাইকোর্ট। ছবি থেকে ভ্রূণের লিঙ্গ নির্ধারণের দৃশ্য বাদ দেওয়ার আর্জি নিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিল এক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। 

সোমবার মামলার জরুরিভিত্তিক শুনানিতে ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি বিপিন সাংঘির নেতৃত্বাধীন ডিভিশন বেঞ্চ নির্মাতাদের নির্দেশ দিয়েছিল বিতর্কিত দৃশ্যগুলি সম্পূর্ণরূপে বিচারপতিদের সামনে পেশ করবার। সবটা দেখেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে, জানান তাঁরা। 

এদিন আদালত নির্দেশিকায় জানিয়েছে,ইউএসজি ক্লিনিকের দৃশ্য যেখানে ভ্রূণের লিঙ্গ পরীক্ষা করছেন চিকিত্সক এবং সম্পর্কিত আরও একটি দৃশ্যে বিশেষ বিজ্ঞপ্তি জুড়তে হবে ফিল্মেমেকারকে। প্রযোজনা সংস্থা যশরাজ ফিল্মসের কৌঁসুলি কোনওরকম আপত্তি ছাড়া এই নির্দেশ মেনে নিয়েছেন। 

আগামী ১৩ই মে মুক্তি পেতে চলেছে জয়েশভাই জোরদার। বিজ্ঞপ্তি সমতে বিতর্কিত দৃশ্যের স্ক্রিনশট আদালতে পেশ করতে হবে। ইউটিউব-সহ অনান্য প্ল্যাটফর্মে ছবির যে ট্রেলার রয়েছে, সেখানেও ওই বিজ্ঞপ্তি যোগ করতে হবে। পাশাপাশি ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে যখন এই ছবি মুক্তি পাবে সেই সময়ও এই বিজ্ঞপ্তি যুক্ত থাকতে হবে। আদালতের রায় মেনে নিয়ে বিবাদী পক্ষ জানায়, কিছু সময়ের প্রয়োজন পড়বে তাঁদের। আগামী ৬ দিনের মধ্যে প্রযোজনা সংস্থাকে এই বিজ্ঞপ্তি যোগ করতে হবে সাফ জানিয়েছে আদালত। 

এই মামলার পর্যবেক্ষণে আদালত জানায়, সমাজিক কুপ্রথা ছবিতে তুলে ধরবার সময় নির্মাতাদের মাথায় রাখতে হবে সেটা যেন কোনওভাবেই মহিমান্বিত করা না হয়। পরিচালক দিব্যাং ঠক্করের ছবিতে রণবীরের বিপরীতে রয়েছেন দক্ষিণী অভিনেত্রী শালিনী পাণ্ডে। এছাড়াও রয়েছেন বোমন ইরানি আর রত্না পাঠক শাহ।

 

বন্ধ করুন