বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > সুশান্তের মৃত্যুতে ছিল অবসাদগ্রস্ত, অবশেষে চরম সিদ্ধান্ত সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীর
ফের আত্মঘাতী সুশান্ত ভক্ত 
ফের আত্মঘাতী সুশান্ত ভক্ত 

সুশান্তের মৃত্যুতে ছিল অবসাদগ্রস্ত, অবশেষে চরম সিদ্ধান্ত সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীর

  • বুধবার ভিলাই নগর থানা এলাকায় নিজের বাড়ি থেকেই উদ্ধার হয়েছে কিশোর ঝুলন্ত দেহ।

সুশান্তকে ঘিরেই ছিল তাঁর স্বপ্ন। ভীষণ ভালোবাসত পর্দার ধোনিকে। স্বপ্ন দেখতে শিখিয়েছিল এই মানুষটা। অথচ সেই এভাবে ফাঁকি নিয়ে চলে যাবে তা বুঝতে পারেনি ছত্রিশগড়ের সপ্তম শ্রেণির স্কুল ছাত্রী। সুশান্ত সিং রাজপুতের এই ভক্ত সহ্য করতে পারেনি সুশান্তের আত্মহত্যার খবর, ১৪ জুন এই খবর শোনার পর থেকেই অবসাদগ্রস্ত ছিল। অবশেষে বুধবার রাতে আত্মহত্যা করে সে!

ভিলাই নগর পুলিশ স্টেশনের অফিসার ইনচার্জ ত্রিনাথ ত্রিপাঠি জানিয়েছেন, 'বুধবার সন্ধ্যায় ঘরের মধ্যে ঝুলন্ত অবস্থায় কিশোরীর দেহ মিলেছে'। দূর্গ জেলার এসপি প্রশান্ত ঠাকুর হিন্দুস্তান টাইমসকে জানান, আমরা ঘর থেকে সুইসাইড নোট পেয়েছি। যা মনে করা হচ্ছে সেই মেয়েটিরই লেখা।সেখানে স্পষ্টই লেখা রয়েছে সুশান্ত সিং রাজপুতের এই দুনিয়া ছেড়ে চলে যাওয়া তাঁর পক্ষে মেনে নেওয়া সম্ভবকর নয়। তবে আমরা পূর্ণ তদন্ত করছি। সুইসাইড নোটের সঙ্গে মেয়েটির হাতের লেখা মিলিয়ে দেখা হবে'। 

মেয়েটির বাবা স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছে, ছোট থেকেই সুশান্তের অন্ধ ভক্ত মেয়ে। সুশান্তের মৃত্যুর পর থেকে অভিনেতার ছবি দেখা এবং গান শোনা ছাড়া প্রায় কিছুই করেনি সে। খাওয়া দাওয়াও সঠিকভাবে করছিল না। পুলিশ জানিয়েছে বুধবার যখন এই ঘটনা ঘটে তখন মেয়েটির বাবা-মা বাড়িতে ছিলেন না। বাড়ি ফাঁকা ছিল। বাড়ি ফিরে বাবা-মা দেখে দরজা ভিতর থেকে বন্ধ। ডাকাডাকি করে সাড়াশব্দ মেলেনি মেয়ের। পিছনের দরজা দিয়ে বাড়িতে ঢোকেন বাবা,এরপরেই দেখেন মেয়ে ঘরের মধ্যে গলায় ফাঁস লাগিয়েছে। 

ইতিমধ্যেই ময়নাতদন্তের জন্য দেহ পাঠানো হয়েছে।প্রাথমিকভাবে এটি আত্মহত্যা বলে অনুমান করা হলেও, সবরকম অ্যাঙ্গেল থেকে সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীর অস্বাভাবিক মৃত্যুর তদন্ত করা হবে জানিয়েছেন দূর্গ জেলার এসপি। 

বন্ধ করুন