বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > রাজা-মাম্পির ফুলসজ্জা: ‘রাম্পি’র প্রেমের জোয়ারে ভাসল দর্শক, রাহুলের প্রশ্ন 'কী! এ বার খুশি তো?'

রাজা-মাম্পির ফুলসজ্জা: ‘রাম্পি’র প্রেমের জোয়ারে ভাসল দর্শক, রাহুলের প্রশ্ন 'কী! এ বার খুশি তো?'

বাঁধন খোলা প্রেম! (ছবি সৌজন্যে- ডিজনি প্লাস হটস্টার)

'আমি আর সব কিছু পারব কিন্তু তোমাকে প্রাণে ধরে কাউকে দিতে পারব না’, নীলপাখি প্রসঙ্গে রাজাকে সচেতনতা বার্তা মাম্পির।

মিলন হবে কত দিনে? এদিন ধরে এই একটা প্রশ্ন তাড়া করে বেড়িয়েছে রাজা-মাম্পির ভক্তদের। অনেক অপেক্ষা, অনেক ঝড়-ঝাপটা শেষে হাজির সেই কাঙ্খিত মুহূর্ত। বিয়ের পর্ব আগেই মিটেছে, বিবাহ পরবর্তী অনুষ্ঠান শেষে হাজির ফুলসজ্জার রাত! রাহুল-রুকমার অনস্ক্রিন রসায়ন শনিবার আগুন লাগাল ছোটপর্দায়। ভালোবাসার মানুষের কাছে অবশেষে সমর্পণ, যুগলের ঘনিষ্ঠ ছবি ইতিমধ্যেই ভাইরাল নেটদুনিয়ায়। কখনও রাজা ভালোবাসার আগলে জড়িয়ে রয়েছে তাঁর ‘নীলাঞ্জনা’ মাম্পিকে। কখনও তাঁর গালে এঁকে দিচ্ছে ভিজে চুমু। হু হু গতিতে ভাইরাল এইসব ছবি। ব্যাকগ্রাউন্ডে বাজছে রবি ঠাকুরের, ‘প্রেমের জোয়ারে ভাসাবে দোঁহারে বাঁধন খুলে দাও’। এ যেন সত্যি এক বাঁধন ভাঙা প্রেমের পূর্ণতা পাওয়ার মুহূর্ত। 

এর মাঝেই নেটমাধ্যমে বৌভাতের একটি মিষ্টি ছবি পোস্ট করে রাহুল প্রশ্ন ছুঁড়েছেন, ‘কী! এ বার খুশি তো?’ এই প্রশ্নটা রাহুল কার উদ্দেশে এই প্রশ্ন রাখলেন, মাম্পি না অনুরাগীদের? সেটা স্পষ্ট করেননি তবে রাম্পি ভক্তরা তাঁর ইনস্টা পোস্টের কমেন্ট বক্স ভরিয়ে দিয়েছেন। তাঁদের কথায়, ‘আজ আমাদের রাম্পি ভক্তদের দুর্গাপুজো,দিওয়ালি, ইদ- সব একসঙ্গে’। কেউ লিখেছে, ‘দাদা খুশিতে পাগল হয়ে যাচ্ছি আজ সকাল থেকে’।

এক জনৈক আবার কবিতার ছন্দে রাম্পির রসায়নকে ব্যাখা করে লিখেছেন, পাগলি তোমার সঙ্গে ভয়াবহ জীবন কাটাব…পাগলি তোমার সঙ্গে ধুলোবালি কাটাব জীবন; আজকের পর্বটি এই কবিতাটির মতো.... যদিও রাজা-মাম্পীর পুরো সফরটাই এই কবিতা দিয়ে বোঝানোর মতো'।

প্রেমের আশ্লেষে (ছবি সৌজন্যে- ডিজনি প্লাস হটস্টার)
প্রেমের আশ্লেষে (ছবি সৌজন্যে- ডিজনি প্লাস হটস্টার)

দীর্ঘ টানাপোড়েনের পর অবশেষে একটু স্বস্তির শ্বাস ফেলছে রাজা-মাম্পি। রাজা ইতিমধ্যেই স্পষ্ট করে জানিয়েছে, হানিমুনে জুটিতে কোথাউ ঘুরতে যাবে না তাঁরা, বরং সকলে মিলে কাছেপিঠে কোথায় ঘুরতে যাবে। এখন সব সিদ্ধান্তই রাজার উপর ছেড়ে দিয়েছে মাম্পি। কিন্তু সে স্পষ্টভাবে জানিয়েছেন, ‘নীলপাখি কিন্তু তোমায় ভালোবেসে ফেলেছে জানো’। সঙ্গে সচেতন করে বলে, ‘তোমায় যদি কেউ ভালোবাসে না সে পিছিয়ে আসতে পারবে না।…. আমি আর সব কিছু পারব কিন্তু তোমাকে প্রাণে ধরে কাউকে দিতে পারব না’। 'বোকা মেয়ে' মাম্পিকে রাজা জানায়, ‘আমি কি প্রপার্টি নাকি যে আমাকে হাতে ধরে দিলে আমি চলে যাব.. আমার নিজের ইচ্ছের, অনিচ্ছের কোনও দাম নেই’। সব অশান্তি পেরিয়ে সেজে উঠেছে রাজা-মাম্পির সংসার। কিন্তু সত্যি সব সমস্যা মিটল? নীলপাখি সত্যি ভুলতে পারবে তাঁর ভালোবাসা? আপতত যদিও এই সব চিন্তা থেকে দূরে রাম্পি-র মাখোমাখো রাসয়নেই মজে দর্শক। 

বন্ধ করুন