বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Sourav-Sana: 'মেয়ে আমাকে পাত্তাই দেয় না', দেবের কাছে সানার নামে নালিশ সৌরভের!
সানা কেন পাত্তা দেয় না সৌরভকে?
সানা কেন পাত্তা দেয় না সৌরভকে?

Sourav-Sana: 'মেয়ে আমাকে পাত্তাই দেয় না', দেবের কাছে সানার নামে নালিশ সৌরভের!

  • মা,বউয়ের চেয়েও মেয়েকে এগিয়ে রাখলেন সৌরভ, কিন্তু আফসোস সানা নাকি পাত্তাই দেয় না বাবাকে!

একটা সময় ব্যাট হাতে তিনি দাপিয়ে বেরিয়েছেন ২২ গজ, এখন ভারতীয় ক্রিকেটের কড়া প্রশাসক। তবে ‘দাদাগিরি’র মঞ্চে বরাবরই দেখা মেলে এক অন্য সৌরভের। যিনি ভারতীয় ক্রিকেটের সুপারস্টার হওয়ার পাশাপাশি একজন ফ্যামিলি ম্যানও বটে। পরিবারের নানান গল্প আড্ডার ফাঁকে ভাগ করে নেন মহারাজ। আর সেইজন্যই ‘দাদাগিরি’ সব্বার এতো ফেবারিট। শনিবার ‘দাদাগিরি’র মঞ্চে হাজির হয়েছিলেন ‘টনিক’ দেব। টিম ‘টনিক’-এর তরফে যোগ দিয়েছিলেন পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায়, শকুন্তলা বড়ুয়া, তুলিকা বসু, নীল মুখোপাধ্যায়রা। 

গল্পে, আড্ডায় জমে উঠেছিল খেলা। এদিন দেব আচমকাই সৌরভের সামনে প্রশ্ন রাখেন, তাঁর জীবনের টনিক কী? স্ট্রেট ব্যাটে খেলে দাদার জবাব, ‘একটা সময় আমার জীবনের টনিক ছিল ক্রিকেট। তবে এখন সেটা পালটে গেছে। এখন আমার জীবনের তিনটে টনিক। আমার মা, স্ত্রী, মেয়ে। এরপর মধ্যে তৃতীয়জন সবার আগে… আমার মেয়ে। যদিও মেয়ে পাত্তা দেয় না। এখন ২০ হয়ে গেছে তো’। 

অন্যদিকে দেবের জীবনের টনিক কী? এই প্রশ্নের জবাবে অভিনেতা বলেন- ‘সিনেমা হলের বাইরে নিজের ছবির নামের পাশে হাউজফুল বোর্ড দেখা’। যদিও খোঁচা দিয়ে পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘আসল টনিকটার নাম বলছে না’। এই কথা শুনে মুচকি হাসেন দেব। পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের ইশারা যে আদতে রুক্মিনীর দিকে ছিল তা বুঝতে অসুবিধা হবে না কারুর। 

উচ্চশিক্ষার জন্য আপাতত লন্ডনে আছেন সানা। গ্লোবাল বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ছেন সৌরভ-ডোনার একমাত্র কন্যা। সানাকে ভর্তি করতে সৌরভ ও ডোনা দু'জনেই গিয়েছিলেন লন্ডনে। মেয়ে আর বউয়ের সাথে সেই সময় একাধিক ছবিও সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করে নিয়েছিলেন সৌরভ। আপাতত মেয়ের সাথে ডোনা লন্ডনেরই বাসিন্দা।  বিদেশ বিভুঁইয়ে মেয়েকে একা ছাড়তে মন চায়নি বাবার, তাই ডোনাও এখন সে দেশে, দাদাগিরির মঞ্চেই একথা জানিয়েছিলেন সৌরভ। 

বন্ধ করুন