বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > বিড়ির বিজ্ঞাপনী প্রচারে ‘বীরু-বসন্তী’! টুইট করে জবাবদিহি ধর্মেন্দ্রর
বলিপাড়ার অন্যতম জনপ্রিয় জুটির নাম ধর্মেন্দ্র-হেমা মালিনী।
বলিপাড়ার অন্যতম জনপ্রিয় জুটির নাম ধর্মেন্দ্র-হেমা মালিনী।

বিড়ির বিজ্ঞাপনী প্রচারে ‘বীরু-বসন্তী’! টুইট করে জবাবদিহি ধর্মেন্দ্রর

  • বিড়ি প্রস্তুতকারক সংস্থার পণ্যের প্যাকেটের উপর দেখা গেল ধর্মেন্দ্র ও হেমার ছবি।

বিড়ির বিজ্ঞাপনী প্রচারে দেখা ধর্মেন্দ্র এবং হেমা মালিনীকে! তবে এই সময়ের নয়। বহু বছর আগে এক বিড়ি প্রস্তুতকারক সংস্থার পণ্যের প্যাকেটের উপর দেখা গেল ধর্মেন্দ্র ও হেমার ছবি। সেই ছবি রীতিমতো টুইটারে পোস্ট করে এক নেটিজেন লেখেন, 'এটা সেই সময়ের যখন বিড়িরও প্রচার করতেন সুপারস্টাররা।' সেই ক্যাপশনে বাকি নেটিজেনদের উদ্দেশে ওই নেট নাগরিকের সংযোজন, 'কেউ চাইলে এই ছবির মজাদার কোনও ক্যাপশন দিতেই পারেন।' প্রশান্ত সাহু নামের ওই ব্যক্তির এই টুইটটি চোখে পড়ামাত্রই জবাব দিয়েছেন ধর্মেন্দ্র স্বয়ং!

প্রশান্ত সাহু-কে ধর্মেন্দ্রর রিপ্লাই, 'সেই সময় কোনও অনুমতি না নিয়ে যে কেউ যা খুশি ছেপে দিত। যাই হোক, সেই সুযোগ সদ্ব্যবহারকারীদের মঙ্গল হোক। আর প্রশান্তবাবু আপনিও ভালো থাকবেন।' 

ধর্মেন্দ্রর সেই টুইট। (ছবি সৌজন্যে - টুইটার)
ধর্মেন্দ্রর সেই টুইট। (ছবি সৌজন্যে - টুইটার)

স্বভাবতই খোদ বলি-তারকার থেকে এহেন জবাব পেয়ে মুগ্ধ ওই টুইটকারী। আপ্লুত হয়ে বর্ষীয়ান বলি-অভিনেতাকে তাঁর পাল্টা জবাব, ' বিষয়টা পরিষ্কার করে বুঝিয়ে দেওয়ার জন্য ধন্যবাদ ধরমজী। আর আমাখে ক্ষমা করবেন কারণ সত্যিই আসল ব্যাপারটা আমি জানতাম না। এই ছবি দেখে সেটাকেই সত্যি বলে ভেবে নিয়েছিলাম। যাই হোক, আপনার থেকে জবাব পেয়ে আমি ধন্য।' এখানেই শেষ নয়। এরপর ধর্মেন্দ্রর উদ্দেশে ওই ব্যক্তি একটি অনুরোধও রেখেছেন, 'দয়া করে, যদি ফের একবার শের-শায়রী লিখে দেন, খুব ভালো হতো।'

প্রসঙ্গত, রিয়েল লাইফের মতো বড়পর্দাতেও দারুণ জনপ্রিয় ধর্মেন্দ্র-হেমা জুটি। 'শোলে', 'সীতা অউর গীতা', 'দ্য বার্নিং ট্রেন', 'জুগনু'র মতো আরও নানান সুপারহিট ছবি বক্স অফিসে উপহার দিয়েছেন এই জুটি।

বন্ধ করুন