জয়পুর লিটারেচার ফেস্টিভ্যালে অংশ নিয়েছিলেন দিয়া
জয়পুর লিটারেচার ফেস্টিভ্যালে অংশ নিয়েছিলেন দিয়া

কোবে ব্রায়ান্টের কথা স্মরণ করে কেঁদে ভাসালেন দিয়া মির্জা

  • 'রাত তিনটে নাগাদ খবরটা পেলাম..আমার ফোনে নিউজ এলার্ট এল, একজন বড়মাপের খেলোয়াড়, এনবিএ প্লেয়ার যাকে আমি বেশকিছু সময় ধরে অনুসরণ করছি... ভাবতেও পারছি না', চোখের জল মুছতে মুছতে বললেন দিয়া।

বিশ্ববিখ্যাত ক্রীড়াবিদ কোবে ব্রায়ান্টের আকস্মিক মৃত্যুতে শোকস্তব্ধ গোটা বিশ্বের ক্রীড়াপ্রেমীরা। ব্যতিক্রম নয় বলিউডও। রবিবার রাতে হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় মাত্র ৪১ বছর বয়সেই প্রাণ হারিয়েছেন এই বাস্কেটবল খেলোয়াড়। দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে তাঁর তেরো বছরের কন্যা জিয়ানারও। এই ঘটনা ভিতর থেকে নাড়িয়ে দিয়েছে অভিনেত্রী দিয়া মির্জাকে। সোমবার জয়পুর লিটারেচার ফেস্টিভ্যালে একটি আলোচনা সভায় যোগ দিয়েছিলেন দিয়া। সেখানেই হঠাত্ কান্নায় ভেঙে পড়েন অভিনেত্রী। দিয়ার চোখের জল কিছুতেই বাধ মানছিল না, অবশেষে নিজেকে সামলে নিয়ে প্রাক্তন এশিয় সুন্দরী জানান,'আমার দিনটা কাল ভালোভাবেই শুরু হয়েছিল। হঠাত্ রাত তিনটে নাগাদ খবরটা পেলাম..আমার ফোনে নিউজ এলার্ট এল, একজন বড়মাপের খেলোয়াড়, এনবিএ প্লেয়ার যাকে আমি বেশকিছু সময় ধরে অনুসরণ করছি..'

দুর্ঘটনায় কোবে ব্রায়ান্ট, তাঁর কন্যা সহ মৃত্যু হয়েছে মোট ন’জনের। দিয়া জানান, ক্যালিফোর্নিয়ায় এই চপার ভেঙেপড়ার ঘটনায় আমি খুব চিন্তায় আছি। গোটা বিষয়টায় আমি মর্মাহত। বিভিন্ন দিন এমন ভিন্ন ভিন্ন জিনিস আমাদের মন ভেঙে দেয়। আমরা নিজেরাই খেয়াল রাখি।



এদিন পরিবেশ সচেতনতামূলক একটি আলোচনা সভায় যোগ দিয়েছিলেন দিয়া। তাঁকে বলতে শোনা গেল, ‘সহানুভূতি কুড়োতে ভয় পেয়ো না। চোখের জল মুছতেও ঘাবড়ে যেও না। অনুভব কর। সমস্তটা প্রাণভরে অনুভব কর।সেটা ভালো। সেটা আমাদের শক্তি দেয়। আর এটা কোনও পারফর্ম্যান্স নয়’।

মুহুর্তের মধ্যেই ভাইরাল হয়ে যায় এই ভিডিও। তাঁকে ট্রোল করতে ছাড়েনি নেটিজেনদের একাংশ। কেউ কেউ তাকে সস্তা গ্রেটা থুনবার্গ, কেউ আবার দিয়াকে দেশি গ্রেটা বলে কটাক্ষ করতেও পিছপা হয়নি।




বন্ধ করুন