বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ‘আমি কি সত্যি এসবের প্রাপ্য?’, সামনে এল মাদক মামলায় শাহরুখ-পুত্র আরিয়ানের বয়ান
আরিয়ান খান। 

‘আমি কি সত্যি এসবের প্রাপ্য?’, সামনে এল মাদক মামলায় শাহরুখ-পুত্র আরিয়ানের বয়ান

মাদক মামলায় আরিয়ান খানের নাম জড়িয়েছিল ২০২১ সালের অক্টোবরে। গ্রেফতারও হয়েছিলেন তিনি। প্রায় ৭ মাস পরে তথ্য প্রমাণের অভাবে তাঁকে ক্লিনচিট দেয় এনসিবি। 

২০২১ সালের অক্টোবর মাসে মাদক মামলায় গ্রেফতার হয়েছিলেন শাহরুখ খান-পুত্র আরিয়ান খান। এই খবর বেশ চমকপ্রদই ছিল দেশবাসীর কাছে। প্রায় একমাস জেলে থাকার পর অক্টোবরের ৩০ তারিখ ঘরে ফেরেন আরিয়ান। সেই সময় এই তারকা সন্তানের উপর মাদক পাচার, আন্তর্জাতিক মাদক ব্যবসার সঙ্গে যোগাযোগ রেখে চলার মতো নানা অভিযোগ তোলা হয়েছিল এনডিপিএস অ্যাক্ট (Narcotic Drugs and Psychotropic Substances) ১৯৮৫ অনুসারে, যার শাস্তি ৬ মাস থেকে ২০ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড। তবে নভেম্বরেই এনসিবি-র মুম্বই জোনাল ডিরেক্টর সমীর ওয়াংখেড়ের উপর ঘুষ নেওয়ার অভিষোগ উঠলে তদন্তভার চলে যায় স্পেশাল ইনভেস্টিগেশন টিম (SIT)-এর হাতে। ২০২২ সালের ২৮ মে কোনও উপযুক্ত তথ্য প্রমাণের অভাবে আরিয়ান খানকে ক্লিনচিট দেয় নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো। এবার মাদক মামলা নিয়ে নীরাবতা ভাঙলেন তিনি। 

ইন্ডিয়া টুডে ম্যাগাজিনের কভার স্টোরি ‘লেসন ফ্রম দ্য আরিয়ান খান কেস’-এ এনসিবির ডেপুটি ডিরেক্টর জেনারেল সঞ্জয় সিং তাঁর সঙ্গে আরিয়ানের হওয়া কথোপকথন তুলে ধরেছেন। প্রসঙ্গত, সঞ্জয়ই সিটের দায়িত্বে ছিলেন, নতুন করে দেখছিলেন মাদক মামলা। এনসিবির এই কর্তা জানিয়েছেন তিনি আরিয়ানের থেকে এরকম ‘আত্মা ছুঁয়ে যাওয়ার মতো প্রশ্ন’ আশা করেননি। শাহরুখ খানের ছেলেকে ‘আমি খোলা মনে তোমার সব কথা শুনব’ বলে আশ্বস্ত করে কথোপকথন শুরু করেন। এরপর আরিয়ান তাঁর মুখোমুখি হয়ে হয়ে প্রশ্ন তোলেন, ‘স্যার আপনি আমায় একজন আন্তর্জাতিক মাদক পাচারকারী হিসেবে রাঙিয়ে দিয়েছেন, আমি নাকি মাদক ব্যবসায় টাকা জোগাই-- এই অভিযোগগুলি অদ্ভুত না? ওরা আমার কাছে কোনও মাদক পায়নি, তাও আমাকে গ্রেফতার করে। স্যার আপনারা আমার সঙ্গে অত্যন্ত খারাপ করেছেন, আমার ভাবমূর্তিটাই নষ্ট করে দিয়েছেন। আমাকে কেন অতগুলো সপ্তাহ জেলে থাকতে হল… আমি কি সত্যি এসবের যোগ্য?’ আরও পড়ুন: ঠোঁটে হাসি, গিটার বাজিয়ে গান গাইছেন আরিয়ান খান! নেটিজেনের মন্তব্য, ‘বিরল ভিডিয়ো’

তদন্ত চলাকালীন সঞ্জয় সিং জানতে পারেন অভিনেতা শাহরুখ খান তাঁর সঙ্গে দেখা করতে চান। যেহেতু তিনি অন্য অভিযুক্তদের মা-বাবার সঙ্গে দেখা করেছেন, চাই না করেননি। এরপর যখন শাহরুখ আর সঞ্জয়ের দেখা হয়, বলিউডের বাদশা ছেলের মানসিক পরিস্থিতি নিয়ে আশঙ্কা প্রকাশ করেন। জানান, আরিয়ান রাতে ভালো করে ঘুমোতে পারছে না। তাঁকে আরিয়ানের বেডরুমে যেতে হচ্ছে ছেলেকে সঙ্গ দিতে। 

শাহরুখ আরও জানিয়েছিলেন তাঁর ছেলের উপরে কোনও প্রমাণ না থাকা সত্ত্বেও ‘অপমানিত’ হতে হয়েছে। প্রায় চোখে জল এনেই শাহরুখ খান বলেছিলেন সঞ্জয় সিংকে, ‘আমদের সেই দানব বা বড় অপরাধী বানিয়ে দিয়েছে সবাই যারা পুরো সমাজকে নষ্ট করে দেয়।’ 

 

বন্ধ করুন