বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > 'ইশক ভিশক' এর সময় বন্ধু হয়েছিলেন শাহিদ; অমৃতার সঙ্গে কথা বলতেন না শেহনাজ
'ইশক ভিশক' এর শুটিংয়ে শাহিদ ও শেহনাজ। পাশে অমৃতা (ডান দিকে) ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস
'ইশক ভিশক' এর শুটিংয়ে শাহিদ ও শেহনাজ। পাশে অমৃতা (ডান দিকে) ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস

'ইশক ভিশক' এর সময় বন্ধু হয়েছিলেন শাহিদ; অমৃতার সঙ্গে কথা বলতেন না শেহনাজ

  • ২০০৩ সালে বড়পর্দায় মুক্তি পেয়েছিল 'ইশক ভিশক'। শুটিংয়ে শাহিদ কাপুরের সঙ্গে জমিয়ে বন্ধুত্ব হলেও অমৃতা রাওয়ের সঙ্গে একেবারেই বনিবনা হয়নি ছবির আরও এক নায়িকা শেহনাজ ট্রেজারির।

২০০৩ সালে বড়পর্দায় মুক্তি পেয়েছিল 'ইশক ভিশক'। এই ছবির মাধ্যমেই বলিপাড়ায় ডেবিউ করেছিলেন শাহিদ কাপুর। ছবিতে শাহিদের সঙ্গে দেখা গেছিল অমৃতা রাও এবং শেহনাজ ট্রেজারি-কে। তবে ছবির শুটিং চলাকালীন শাহিদের সঙ্গে জমিয়ে বন্ধুত্ব হলেও অমৃতার সঙ্গে একেবারেই বনিবনা হয়নি শেহনাজের। সম্প্রতি, ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে নিজেই সেকথা জানিয়েছেন শেহনাজ।

শেহনাজের কথায়, 'শাহিদ আর আমার আলাপ ছবির সেটেই। কিচুদিনের মধ্যেই দুর্দান্ত বন্ধুত্ব হয়ে গেছিল আমাদের। যদিও শাহিদের সঙ্গে এখন একেবারেই কোনও যোগাযোগ নেই আমার। সেইসময় যেহেতু ভিডিও জকির কাজটা নাগাড়ে কাজ করে যেতাম, আমাকে বারবার ও বলতো এই কাজের বাইরেও ব্যাপ্তি বাড়াতে হবে আমাকে। নানান ভাবে উৎসাহ দিত। যদিও সেসব কোথায় যে খুব গুরুত্ব দিতাম এমনটা নয়। সেইসময় ভিডিও জকি হিসেবে বেশ পরিচিতি হয়ে গেছে আমার। সেটল -ও করেছিল। সেইসময় এত ভালো চাকরি ছেড়ে বলিপাড়ার অনিশ্চিত দুনিয়ায় ঢুকতে চাইনি। তবে জোর আড্ডা চলত আমাদের। অন্যদিকে, অমৃতার সঙ্গে কখনওই জমেনি আমার। প্রায় তেমন কোনও কথাই হতো না আমাদের। দু'পক্ষের তরফেই একথাটা প্রযোজ্য। এবং বিশ্বাস করুন এতটুকুও বাড়িয়ে বলছি না'।

সেই সময়ে জনপ্রিয় মিউজিক চ্যানেল এমটিভির একটি জনপ্রিয় শো 'এমটিভি'যে মোস্ট ওয়ান্টেড' এর অন্যতম সঞ্চালিকা ছিলেন শেহনাজ। এরপর ২০০১ সালে তেলেগু ছবি এদেরুলেনি মানিশি' ছবির মাধ্যমে বড়পর্দায় ডেবিউ করেন তিনি।

 

বন্ধ করুন