বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ‘বেদের মেয়ে জোৎস্না’র অঞ্জু ঘোষকে মনে আছে? অভিনয় জগতে কামব্যাক করছেন তিনি
অঞ্জু ঘোষ
অঞ্জু ঘোষ

‘বেদের মেয়ে জোৎস্না’র অঞ্জু ঘোষকে মনে আছে? অভিনয় জগতে কামব্যাক করছেন তিনি

  • ২২ বছর পর ঢাকায় অঞ্জু ঘোষ।

‘বেদের মেয়ে জোৎস্না’ সিনেমার নায়িকা অঞ্জু ঘোষ। ১৯৮৯ সালে বাংলাদেশের মুক্তি পেয়েছিল এই ছবি। দুই বাংলার মানুষের কাছে দারুণ জনপ্রিয়তা পেয়েছিল এই ছবি। এই ছবির মাধ্যমে জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন অঞ্জু ঘোষ। পরে টলিউডেও একই নামের ছবি তৈরি হয়েছিল। অঞ্জু ঘোষের বিপরীতে অভিনয় করেছিলেন অভিনেতা চিরঞ্জিত। 

বাংলাদেশের একাধিক ছবিতে অভিনয় করার পর টলিউডেরও একাধিক ছবিতে অভিনয় করেছিলেন অভিনেত্রী। এরপর বাংলাদেশ থেকে কলকাতায় এসে সল্টলেকে থাকতে শুরু করেন তিনি। বহু বছর ধরে ইন্ডাস্ট্রির থেকে দূরত্ব বজায় রেখেছেন। প্রায় ২২ বছর পরে, বৃহস্পতিবার, ওপার বাংলা চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির আমন্ত্রণে ঢাকা গিয়েছিলেন অঞ্জু ঘোষ। সেখানে এফডিসিতে তাঁকে সংবর্ধনা দেওয়া হয়। সিনেমা জগতে বিশেষ অবদানর জন্য ওই সমিতির আজীবন সদস্য করা হয়েছে অভিনেত্রীকে। 

বাংলাদেশের ছবি ‘বেদের মেয়ে জোৎস্না’য় অভিনেতা ছিলেন ইলিয়াস কাঞ্চন। তিনিও ঢাকার ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। সেখানেই অঞ্জু ঘোষ ও ইলিয়াস কাঞ্চনের নতুন ছবি 'জোৎস্না কেন বনবাসে’র ঘোষণা হয়েছে। এই ছবির প্রযোজনায় নাদের খান। অঞ্জু ঘোষকে নিয়ে আরও একটি ছবির ঘোষণা করেন শহীদুল হক খান।

‘বেদের মেয়ে জোৎস্না’
‘বেদের মেয়ে জোৎস্না’

‘বেদের মেয়ে জোৎস্না’ সিনেমা মুক্তি পাওয়ার ছয় বছর পর বাংলাদেশ থেকে কলকাতায় চলে আসেন অঞ্জু। ২২ বছর পরে নিজের দেশে ফিরে তিনি জানান, দেশ ছাড়ার বিষয়ে তার মধ্যে কোনও অভিমান বা ক্ষোভ নেই। অভিনেত্রীর কথায়, ‘আমি বাংলাদেশে ফিরব। আমাকে ফিরতেই হবে। যেসব আনন্দের খবর শুনছি আর ইন্ডাস্ট্রির এমন অবস্থা, তাতে আমি ফিরে আসব।’

অঞ্জু আরও বলেন, ‘আমার কোনদিনও কারোর প্রতি ক্ষোভ ছিল না। ফলে বিশেষ কোনও কারণ বা ব্যক্তির কারণে আমি দেশ ছেড়ে যাইনি। মজার বিষয় হল, আমি কলকাতায় দু'দিনের জন্য গিয়েছিলাম। সেখানে আমার মা থাকতেন। দু'দিনের জন্য গিয়ে সেখান থেকে আর বের হতে পারছি না। এরপর সেখানে সিনেমার পর সিনেমা করতে লাগলাম। তবে এর পেছনে আর কোন কিন্তু নেই।’

দুই বাংলা মিলিয়ে মোড ৩৫০টির বেশি ছবিতে অভিনয় করেছেন অভিনেত্রী। এদিন বাংলাদেশের প্রতি নিজের ভালোবাসার কথা জানান নায়িকা। অভিনয় না করলেও এখনকার ইন্ডাস্ট্রি সম্পর্কে নিয়মিত খোঁজ রাখেন তিনি।

 

 

বন্ধ করুন