বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > 'শেষ করতে দাও আমাকে',সুনিধির সঙ্গে তুমুল কথা কাটাকাটিতে জড়িয়ে পড়েন ‘ইন্ডিয়ান আইডল’ বিচারক অনু মালিক
রেগে গিয়েছিলেন অনু মালিক! 
রেগে গিয়েছিলেন অনু মালিক! 

'শেষ করতে দাও আমাকে',সুনিধির সঙ্গে তুমুল কথা কাটাকাটিতে জড়িয়ে পড়েন ‘ইন্ডিয়ান আইডল’ বিচারক অনু মালিক

  • শো চলাকালীন আচমকাই তুলুম তর্কাতর্কিতে জড়িয়ে পড়েন অনু মালিক ও সুনিধি চৌহান। 

ইন্ডিয়ান আইডলের সঙ্গে দীর্ঘদিনের সম্পর্ক অনু মালিকের। মি টু-র অভিযোগ বিদ্ধ হওয়ার পর বিচারকের আসন থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল তাঁকে, তবে ফের এই সংগীত রিয়ালিটি শো-এর মঞ্চে ফিরে এসেছেন তিনি। নেহা কক্কর ও হিমেশ রেশমিয়ার সঙ্গে আপতত ইন্ডিয়ান আইডল ১২-র বিচারক হিসাবে দেখা যাচ্ছে অনু মালিককে। 

ইন্ডিয়ান আইডলের পঞ্চম সিজনে সুনিধি চৌহান ও সেলিম মার্চেন্টের সঙ্গে এই গানের রিয়ালিটি শোয়ের বিচারকের আসন অলঙ্কৃত করেছিলেন অনু মালিক। অডিশন রাউন্ড চলাকলালীন আমচকাই দুই বিচারকের মধ্যে ঠোকাঠুকি লেগে যায়! সেট ইন্ডিয়ার ইউটিউব চ্যানেলের সেই ভিডিয়ো নতুন করে ছড়িয়ে পড়েছে নেটমাধ্যমে। 

ভিডিয়োতে দেখা গিয়েছে এক প্রতিযোগির পারফরম্যান্স নিয়ে মতপার্থক্য হচ্ছে দুজনের। মার্ডার ছবির ‘দিল কো হাজার রোকা’ গানটি পারফর্ম করছিল সেই প্রতিযোগী। সেই গান শুনে অনু মালিক শুরুতে নাক সিঁটকোন। বলে বসেন, ‘তুমি কী গাইলে আমি বুঝতে পারলাম না। খুব দুঃখিত… কিন্তু আমাকে বলতেই হচ্ছে…’। অনু মালিককে মাঝপথে থামিয়ে দুম করে বলে বসেন, ‘ তোমার কন্ঠস্বর খুব সুন্দর। আমার তরফ থেকে হ্যাঁ আছে’। এতেই বেমক্কা রেগে যান অনু মালিক।  তাঁকে মাঝপথে থামিয়েই দেওয়ায় সুনিধিকে দু-চার কথা শুনিয়ে দেন তিনি। বলেন, ‘আমাকে শেষ করতে দাও আগে।আমাকে তো কথাই বলতে দিচ্ছো না। আমি তো শুরু করছিলাম বলা’। সুনীধির বিরুদ্ধে কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগও তোলেন অনু মালিক।পালটা সুনিধি বলেন, 'কারুর কাজে বাধা দিচ্ছিলেন না তিনি, শুধু নিজের মতামত প্রকাশ করছিলেন'। 

তবে শেষে সকলকে চমকে দিয়ে ওই প্রতিযোগিকে পরবর্তী রাউন্ডের টিকিট দিয়ে দেন অনু মালিক। তিন বিচারকের মন জিতে পরের রাউন্ডে যায় সেই প্রতিযোগী। কিন্তু এটা কি সত্যি ঘটেছিল নাকি পুরোটাই স্ক্রিপ্টটেড? সেই প্রশ্নটা থেকেই যাচ্ছে।

বন্ধ করুন