বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ‘টাকা নেওয়ার পর যশ বুঝল ক্রিয়েটিভ ডিফারেন্স?’, চিনেবাদাম নিয়ে সরব এনা
যশ আর এনা। 

‘টাকা নেওয়ার পর যশ বুঝল ক্রিয়েটিভ ডিফারেন্স?’, চিনেবাদাম নিয়ে সরব এনা

  • জারেক এন্টারটেনমেন্টের ছবি ‘চিনে বাদাম’ থেকে যশের সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্তে ক্ষোভ উগড়ে দিলেন ছবির নায়িকা-প্রযোজক এনা সাহা। 

রবিবার সকাল সকাল সোশ্যাল মিডিয়ায় যেন বোমা ফাটালেন যশ দাশগুপ্ত। নিজের অভিনীত ছবি মুক্তির পাঁচ দিন আগেই জানিয়ে দিলেন, তিনি এই সিনেমা থেকে সরে দাঁড়াচ্ছেন। যশের এই সিদ্ধান্তে কার্যত অবাক হয়ে যায় সকলে। কোনও অভিনেতা কীভাবে এমন করতে পারেন, যশের পেশাদারিত্ব নিয়েও প্রশ্ন উঠতে থাকে এরপর। 

যদিও দর্শকদের কাছে এই খবর যতটা অবাক করার মতো, ঠিক ততটাই অবাক করেছে ‘চিনে বাদাম’ ছবির বাদবাকি টিমকে। পরিচালক, প্রযোজক, সহ-অভিনেত্রী এনা সাহা ঘুণাক্ষরেও টের পাননি এমন কিছু হতে চলেছে। 

সংবাদমাধ্যমকে এনা জানিয়েছেন, তিনিও জানেন না কেন এমন হল। শুধু জানান, চিনে বাদাম ছবির টাইটেল ট্র্যাক মুক্তি পাওয়ার পর তাঁকে ম্যাসেজ করে যশ বলেছিল, 'টাইটেল সঙ টা প্যাথেটিক হয়েছে। বেস্ট অফ লাক টু ইউ অ্যান্ড ইওর টিম।' তখন কারণ জানতে চান যশের কাছে এনা। কিন্তু আর উত্তর দেননি নুসরতের-সঙ্গী। তারপর বোমা ফাটে রবিবার সকাল সকাল।

এনা এই ছবির নায়িকা। সঙ্গে প্রযোজকও। জানিয়েছেন, ‘চিনে বাদাম’ ছবির প্রচার শুরু করার পর থেকেই সেভাবে সময় দিচ্ছিলেন না যশ। বুঝিয়েও লাভ হয়নি। কিন্তু যশ যে সিনেমা থেকে সরে দাঁড়াবে তা অকল্পননীয় সকলের কাছে। সঙ্গে অভিনেত্রী এটাও বলে দেন, একজন প্রযোজক হিসেবেও তিনি কোনওদিন পরিচালক শিলাদিত্যর সিদ্ধান্তের উপরে কথা বলেননি। কারণ তিনি মনে করেন এতে পরিচালকের কাজের স্বাধীনতা চলে যায়। 

রবিবার টুইটারে একটি বিবৃতি পেশ করা হয় অভিনেতার তরফে। যেখানে লেখা ছিল, ‘জারেক এন্টারটেনমেন্ট আর পরিচালক শিলাদিত্য মৌলিকের সঙ্গে ক্রিয়েটিভ মতবিরোধের কারণে আমি চিনেবাদাম প্রোজেক্ট থেকে নিজেকে সরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমি কোনওভাবেই এই ছবির সঙ্গে যুক্ত নই। যদিও আমি নিজের সেরাটা দিয়েছি ছবির শ্যুট ও পোস্ট প্রোডাকশনের কাজে। চাই না সেটা বৃথা যাক। আমি নির্মাতাদের অনেক শুভেচ্ছা জানাই। যদি পরিস্থিতি তেমন হয়, আমি কারণও প্রকাশ্যে আনব।’ আরও পড়ুন: মুক্তির পাঁচদিন আগে ‘চিনে বাদাম’ থেকে সরে দাঁড়ালেন যশ দাশগুপ্ত, কিন্তু কেন?

প্রসঙ্গত, জারেক এন্টারটেনমেন্টের সঙ্গে পরপর তিনটে ছবিতে কাজ করলেন যশ। ‘এসওএস কলকাতা’, তারপর ‘চিনে বাদাম’। পরের ছবি ‘মাস্টারমশাই আপনি কিছু দেখেননি’-র কাজও করে ফেলেছেন তিনি। সঙ্গে আবার এই ছবিতে রয়েছেন নুসরতও। এনার হতাশা ভরা জবাব, ‘‘টাকাপয়সা, সমস্ত চুক্তির পর, আমার প্রযোজনা সংস্থার সঙ্গে ৩ টে ছবিতে কাজ করার পর 'ক্রিয়েটিভ ডিফারেন্স' হচ্ছে এটা বুঝতে পারল যশ!’’ আরও পড়ুন: যশকে একহাত নিলেন প্রযোজক রানা, লিখলেন, ‘টাকা পেয়ে গিয়েছি, এ বার প্রোডিউসার মরুক’

প্রসঙ্গত, এভাবে শেষ সময়ে যশের ছবি থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্তে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন টলিউডের আরেক প্রযোজক রানা সাহাও। তিনি টুইটারে লিখেছেন, ‘টাকা পেয়ে গিয়েছি আর কী চাই, এবার প্রোডিউসার মরুক।’ এখানেই থামেননি তিনি। এর পরে লিখেছেন, এনা এবং তাঁর প্রযোজনা সংস্থার পাশে আছেন তিনি।

 

বন্ধ করুন