বাড়ি > বায়োস্কোপ > উমার আগমন লগ্নে লিঙ্গ বৈষম্যের বিরুদ্ধে গর্জে উঠতে আসছে এনার ‘মহামায়া’
মহালয়ায় আসছে এনার ‘মহামায়া’ 
মহালয়ায় আসছে এনার ‘মহামায়া’ 

উমার আগমন লগ্নে লিঙ্গ বৈষম্যের বিরুদ্ধে গর্জে উঠতে আসছে এনার ‘মহামায়া’

  •  মহামায়ার দুর্গার ভূমিকায় অভিনয় করছেন একজন পুরুষ- গৌরব।নারীশক্তির জয়গানই মূল উপজীব্য ‘মহামায়া’র।  

পুজো আসছে । বাঙালির ঘরের মেয়ে উমার বাপের বাড়িতে আগমনের সময় সমাগত । সামনেই মহালয়া । পিতৃপক্ষের অবসান এবং মাতৃপক্ষের আহ্বানকালকে প্রণতি জানিয়ে কুমোরটুলিতেও নতুন উদ্যমে শুরু হয়েছে কাজ । যদিও অতিমারী পর্বে এই বছরের জৌলুসে কিছুটা হলেও ঘাটতি পড়েছে , তবুও লকডাউনের দীর্ঘ বন্দীত্ব কাটিয়ে সদ্য মুক্তি পাওয়া বাঙালি পুজোয় মেতে উঠতে বদ্ধ পরিকর । জগৎ জননী দেবী দুর্গা , কখনও তিনি আদ্যা শক্তি মহামায়া , আবার কখনও মহিষাসুরমর্দিনীর রূপে জগৎের কলুষ কলঙ্কের বিনাশে তাঁর আবির্ভাব । একাধারে তিনি গিরি কন্যা পার্বতী আবার তিনিই অঘটন ঘটন পটিয়সী দেবী ভৈরবী , ব্রহ্মাত্মিকা শক্তি । কিন্তু মায়ের আরাধনা কি শুধুই চিন্ময়ী মূর্তিতেই সীমাবদ্ধ ? জগৎ সংসারের পরিসরে আমাদের আসে পাশেই থাকা হাজার হাজার দুর্গার জীবনের ক্ষেত্রে কি তার প্রভাব আদেও বর্তায় ? এই চিরায়ত প্রশ্নের উত্তর খুঁজতেই আগামী ১৭ই সেপ্টেম্বর মহালয়ার পুন্য তিথিতে মুক্তি পাবে অভিনেত্রী এনা সাহা অভিনীত 'মহামায়া ' ।

আজ ২০২০ তে দাঁড়িয়েও পনের দাবিতে শ্বশুরের ভিটেয় লাঞ্চিত হতে হয় গৃহবধূকে , মুখ বুজে মেনে চলতে হয় একাধিক গঞ্জনা অত্যাচার । সহ্য করতে পারলে ভালো , না পারলে সমাজের কাছে চক্ষুলজ্জার দায় এড়াতে ভরসা হয় কড়িকাঠ বা সিলিং ফ্যান । আজও অবলীলায় কন্যা ভ্রুণ হত্যা হয় আমাদের দেশে । অফিসে পদোন্নতি হলে তার পিছনে পুরুষের হাত অথবা অন্য কোনো অসদুপায় অবলম্বন হয়েছে কিনা তার খোঁজ পরে সহকর্মী মহলে । রাতে অফিস থেকে একা ফিরতে গিয়ে লাঞ্চিত হলে অপরাধীর আগে মেয়েটির পোশাক এবং চরিত্রের দিকেই আঙ্গুল উঠতে থাকে । কিন্তু কেন ?এই ছোট্ট প্রশ্নের উত্তর খুঁজতেই আসছে মহামায়া , পরিচালনায় অমিত বিট্টু দে । নিজের প্রযোজিত এই নিবেদনে লিঙ্গবৈষম্যের বিরুদ্ধেই গর্জে উঠেছেন অভিনেত্রী এনা ।

জ্যারেক এন্টারটেইনমেন্ট প্রযোজিত এই নিবেদনে দুর্গার ভূমিকায় অভিনয় করছেন গৌরব! হ্যাঁ ঠিকই পড়ছেন । একজন পুরুষকেই দেবীর চরিত্রে বেছে নিয়েছেন পরিচালক । এছাড়া মহিষাসুরের চরিত্রে থাকবেন দীপায়ন ঘোষ। বিশেষ চরিত্রে দেখা যাবে শিল্পী সনাতন রুদ্র পালকে। রাহুল রায়ের চিত্রনাট্যে সংগীতের দায়িত্ব সামলেছেন ডিজে আলভি। ক্যামেরায় ছিলেন সূরজ দাস। সম্পাদনা করেছেন প্রণয় দাশগুপ্ত ।

প্রযোজক হিসেবে ইতিমধ্যেই এনার ডেব্যিউ ছবি ‘SOS কলকাতা’ মুক্তি পাবে দূুর্গাপুজোয়। আর তার আগে মহালয়ার পুন্য তিথিতে মহামায়া নিয়ে হাজির হচ্ছেন এনা। আগামী ১৭ সেপ্টেম্বর ইউটিউবে মুক্তি পাবে এনার ‘মহামায়া’।

বন্ধ করুন