বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > 'বৃদ্ধকে বাঁচাতে গিয়ে দুর্ঘটনাগ্রস্থ' হওয়ার মিথ্যা গল্প ফেঁদেছেন নোবেল! দাবি প্রত্যক্ষদর্শীর
নোবেল (ছবি-ফেসবুক)
নোবেল (ছবি-ফেসবুক)

'বৃদ্ধকে বাঁচাতে গিয়ে দুর্ঘটনাগ্রস্থ' হওয়ার মিথ্যা গল্প ফেঁদেছেন নোবেল! দাবি প্রত্যক্ষদর্শীর

  • ফের বিতর্কে নোবেল। সড়ক দুর্ঘটনা নিয়ে মিথ্যাচারের অভিযোগ উঠল গায়কের বিরুদ্ধে। 

সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন সারেগামাপা খ্যাত বাংলাদেশি গায়ক নোবল। মাতায় ৩০টা সেলাই হয়েছে গায়কের, সে কথা নিজেই ফেসবুকের দেওয়ালে জানিয়েছেন নোবেল। তাঁর কথা অনুসারী, গত বৃহস্পতিবার এক বৃদ্ধ পথচারী আমচকা তাঁর বাইকের সামনে এসে পড়েন, এবং তাঁকে বাঁচাতে গিয়েই দুর্ঘটনার কবলে পড়েন তিনি। 

ফেসবুকের দেওয়ালে নোবেল লেখেন- ‘এক বয়স্ক লোক অসতর্কভাবে রাস্তা পার হচ্ছিলো। তাকে বাঁচাতে গিয়ে আমার এই অবস্থা। তবুও মনে তৃপ্তি অনুভব করছি, কারণ লোকটা নিরাপদ আছে।’  নিজের মুখের রক্তাক্ত ছবিও পোস্ট করেছেন নোবেল। এই ছবি ভাইরাল হতেই নোবেলের বয়ান নিয়ে আপত্তি জানান দুর্ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শীরা। 

বাংলাদেশের সংবাদমাধ্যম সময়ের প্রতিবেদন অনুসারে, শোয়াইব বিন আহসান নামে এক প্রত্যক্ষদর্শী নিজের ফেসবুকের দেওয়ালে লেখেন- ‘রং সাইডে বাইক চালিয়ে সাইকেল আরোহী রোজাদারের ওপর দিয়ে এভাবেই বাইকটা চালাইয়া দিলা। যেখানে লোকটা সারাদিন পানাহারের পর ইফতার করে তার ক্ষুধা নিবারণের কথা, সেখানে লোকটা মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে। আর তুমি একজন রোজাদারকে মৃত্যুর পথযাত্রী বানাইয়া আরেকজন বৃদ্ধকে জীবনদানের গল্প শুনাও! কী সুন্দর মিথ্যাচার করে আবার আল্লাহর শুকরিয়া আদায় করছে!’

অর্থাত্ সরাসরি সেই প্রত্যক্ষদর্শী অভিযোগের আঙুল তোলেন নোবেলর গাফিলতির দিকে। ভুল দিক দিয়ে বাইক চালাচ্ছিলেন নোবেল এবং তিনিই সাইকেল আরোহীকে ধাক্কা মারেন দাবি শোয়াইবের। শুধু তাই নয়, প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবি নোবেলর বাইকের সামনে পড়ে কোনও বৃদ্ধ নয়, বরং বছর ২৫-৩০-এর যুবক আহত হয়েছেন। অপর এক প্রত্যক্ষদর্শী আমিনুল ইসলাম আমিন দুর্ঘটনার ভিডিয়োও নিজের সোশ্যাল মিডিয়া পেজে তুলে ধরেছেন। যেখানে স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে সাইকেল আরোহী একজন তরুণ। 

প্রত্যক্ষদর্শী বাংলাদেশের সংবাদমাধ্যম বাংলা ট্রিবিউনকে জানিয়েছেন,  ‘রাস্তার উল্টো পাশ দিয়ে হঠাৎ তুমুল গতিতে আসা নোবেলের লাল বাইকের ধাক্কায় রক্তাক্ত হয়েছে ঐ তরুণ। ভেঙেছে সাইকেল, নষ্ট হয়েছে সঙ্গে থাকা ইফতারের জন্য কলা-মুড়ি-খেজুর-ছোলা। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) গুলশান আজাদ মসজিদের পাশের গলিতে, ইফতারের কয়েক মিনিট আগে'। তাঁদের দাবি স্থানীয় এক বাড়িতে সিসিটিভি ক্যামেরাও লাগানো রয়েছে। সেটির ফুটেজ সহজেই নোবেলের মিথ্যাচার ফাঁস করে দেবে। 

যদিও এই অভিযোগ নিয়ে এখনও কোনওরকম প্রতিক্রিয়া দেননি নোবেল। 

বন্ধ করুন