ফয়জল সিদ্দিকি (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)
ফয়জল সিদ্দিকি (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)

TikTok থেকে বহিষ্কৃত ফয়জল সিদ্দিকি,অ্যাসিড হামলায় ইন্ধন দিয়ে জনরোষে টিকটকার

  • ডিলিট করে দেওয়া হল ফয়জল সিদ্দিকির টিকটক অ্যাকাউন্ট। সেখানে ১ কোটি ৩০ লক্ষের বেশি ফলোয়ার সংখ্যা ছিল টিম নবাবের এই সদস্যের।

অ্যাসিড হামলার সপক্ষে প্রচার চালিয়ে আগেই নেটিজেন তথা জাতীয় মহিলা কমিশনের রোষের মুখে পড়েছিলেন টিকটকার ফয়জল সিদ্দিকি,এবার এই জনপ্রিয় ভিডিয়ো শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম থেকে বহিষ্কার করা হল ফয়জলকে। কমিউনিটি গাইডলাইন লঙ্ঘন করাতেই ফয়জলের টিকটক অ্যাকাউন্ট ডিলিট করে দেওয়া হয়েছে টিকটক ইন্ডিয়ার তরফে।

টিকটকে ফয়জল সিদ্দিকির ফলোয়ার সংখ্যা ছিল ১ কোটি ৩০ লক্ষেরও বেশি। দেশের অন্যতম জনপ্রিয় টিকটকার ফয়জল। বিতর্কিক ওই ভিডিয়োয় দেখানো হয়েছিল একটি মেয়ের মুখে তরল পদার্থ ছুঁড়তে যা প্রতীকী অ্যাসিড। মেয়েটির মুখে মেক-আপের সাহায্যে পোড়ার ক্ষত তৈরির করা হয়েছিল। ভিডিয়োয় ফয়জলকে বলতে শোনা গিয়েছিল-‘তোমাকে কী সে ছেড়ে দিল যার জন্য তুমি আমাকে ছেড়েছিলে?’

আনু্ষ্ঠানিক বিবৃতিতে টিকটকের তরফে জানানো হয়েছে ‘ফয়জলের উপর প্রতিবন্ধকতা লাগানো হয়েছে একাধিক কমিউনিটি গাইডলাইন লঙ্ঘন করায়।ফয়জলের কনটেন্ট সরিয়ে নেওয়া হয়েছে,পাশাপাশি উপযুক্ত আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার প্রস্তুতি চলছে’। 

Tik Tok বনাম YouTube বিতর্কে সরগরম নেটদুনিয়া। সেই বিতর্কের মাঝেই এবার টিকটকের মাধ্যমে নারীদের উপর অ্যাসিড হামলার সপক্ষে প্রচার চালিয়ে বিতর্কের কেন্দ্রবিন্দুতে ফয়জল। টুইটার জুড়ে নিন্দার ঝড়। দিন কয়েক ধরেই এই সোশ্যাল মিডিয়ায় প্ল্যাটফর্মে ট্রেন্ড করছে #BanTikTok।  সোমবার টুইট বার্তায় জাতীয় মহিলা কমিশনের তরফে টিকটক ইন্ডিয়ার কাছে যত দ্রুত সম্ভব ফয়জলকে সেই প্ল্যাটফর্ম থেকে বহিষ্কার করার অর্থাত তাঁর অ্যাকাউন্ট ডিলিট করে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। তারপর নড়চড়ে বসে এই সোশ্যাল মিডিয়ায় প্ল্যাটফর্ম। 

এই অসংবেদনশীল ভিডিয়ো কীভাবে জায়গা করে নিল টিকটকে সেই নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন অ্যাসিড আক্রান্ত লক্ষ্মী আগারওয়ালও। লক্ষ্মী ধন্যবাদ জানান জাতীয় মহিলা কমিশনকে দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য। লক্ষ্মী অত্যন্ত কড়াভাবে বলেন, তাঁরা দিনরাত পরিশ্রম করছেন সমাজ থেকে মহিলাদের বিরুদ্ধে ঘটা এই নৃংশস অত্যাচার বন্ধ করতে কিন্তু কিছু মানুষ অবলীলায় এর প্রচার চালাচ্ছে, তাও এমন মানুষ যাঁকে ১ কোটি ৩০ লক্ষ মানুষ ফলো করে! নিজের উদাহরণ দিয়ে বলেন, অ্যাসিডের একটা ফোঁটাও কতটা কষ্ট দেয় সেটা একজন অ্যাসিড আক্রান্তর পক্ষেই বোঝা সম্ভব। 

 

মহারাষ্ট্র পুলিশের কাছে ফয়জল সিদ্দিকির বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে জাতীয় মহিলা কমিশন। এই মর্মে ডিজিপি মহারাষ্ট্র শ্রী সুবোধ কুমার জয়সওয়ালের কাছে চিঠি লেখেন জাতীয় মহিলা কমিশনের চেয়ারপার্সন রেখা শর্মা।

 

বন্ধ করুন