বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Samantha-Naga: কেন সামান্থার সঙ্গে বিয়ে ভাঙল? প্রথমবার ডিভোর্স নিয়ে মুখ খুললেন নাগা চৈতন্য

Samantha-Naga: কেন সামান্থার সঙ্গে বিয়ে ভাঙল? প্রথমবার ডিভোর্স নিয়ে মুখ খুললেন নাগা চৈতন্য

গত বছরই পথ আলাদা হয়েছে দুজনের

সামান্থার কেরিয়ারই তাঁর ঘর ভাঙার কারণ? ডিভোর্স নিয়ে মুখ খুললেন নাগা চৈতন্য।

দক্ষিণী ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির সবচেয়ে আদর্শ দম্পতি বলা হত তাঁদের। মাস কয়েকের মধ্যেই পালটে গিয়েছে নাগা-সামন্থার সম্পর্কের সমীকরণ। এখন তাঁরা প্রাক্তন! বিচ্ছেদের সঙ্গেই হারিয়ে গিয়েছে সামান্থা প্রভু এবং নাগা চৈতন্যের সম্পর্কের মিষ্টতা। গত বছর অক্টোবরে সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টের মাধ্যমে বিবাহ বিচ্ছেদের ঘোষণা সারেন দুজনে। যদিও তার মাস কয়েক আগে থেকেই বিচ্ছেদের গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল।

চার বছরের দাম্পত্য সম্পর্কে ইতি টেনে এখন নতুন পথের পথিক সামান্থা-নাগা। কিন্তু কেন ভাঙল তাঁদের সম্পর্ক? সেই নিয়ে জল্পনার শেষ নেই। কিন্তু প্রকাশ্যে ডিভোর্স নিয়ে এতোদিন মন্তব্য করেননি দুজনেই। অবশ্য ঘুরিয়ে ফিরিয়ে নিজের অবস্থান আগেই স্পষ্ট করেছিলেন নাগার্জুন পুত্র। সম্প্রতি ‘বঙ্গরজু’ ছবির প্রচারের ফাঁকে বিচ্ছেদ নিয়ে সরাসরি মন্তব্য করেছেন নাগা চৈতন্য।

কী বলেছেন তিনি? সামন্থার প্রাক্তন স্বামী জানান, 'বিচ্ছেদ হওয়াটা কোনও খারাপ বিষয় নয়। সেটা একটা সম্মিলিত সিদ্ধান্ত ব্যক্তিগত সুখ-শান্তির জন্য। সে খুশি, আমিও খুশি। তাই ডিভোর্স সেইসব পরিস্থিতিতে সেরা সিদ্ধান্ত'।

কেন ভাঙল সামান্থা-নাগার সুখী গৃহকোণ? ইন্ডাস্ট্রি সূত্রে খবর, পেশাই অন্তরায় হয়ে দাঁড়াল দুজনের দাম্পত্য জীবনে। বাড়ির বউ সাহসী দৃশ্যে অভিনয় করবে, আইটেম নাচবে তা চাননি নাগার্জুন ও তাঁর পরিবার। ছেলে নাগা চৈতন্য চেষ্টা করেছিল স্ত্রীকে বোঝানোর কিন্তু সমঝোতা করতে রাজি নন, ‘ফ্যামিলি ম্যান’-এর ‘রাজি’। শ্বশুরবাড়ির এই 'অনৈতিক ফতোয়া' মেনে না নেওয়ার জেরেই সংসার ছেড়ে বেরিয়ে এসেছেন তিনি।

‘দ্য ফ্যামিলি ম্যান’ সিরিজে সামান্থার যৌন দৃশ্যে অভিনয় করাটা একদম হজম করতে পারেননি নাগা, তা পরিষ্কার হয়েছিল অভিনেতার মাস কয়েক আগের এক মন্তব্যে। তিনি বলেছিলেন, 'আমি এমন কোনও কাজ করব না তা আমার পরিবারের পক্ষে সম্মানহানিকর'। প্রাক্তন স্ত্রীকেই এই বার্তা দিয়েছেন নাগা, তেমনটাই দাবি ছিল নিন্দুকদের।

গত ২রা অক্টোবর চার বছরের দাম্পত্য ইতি টানাবার ঘোষণা করেন নাগা-সামান্থা। যৌথ বিবৃতিতে তাঁরা লেখেন, ‘অনেক আলোচনা এবং চিন্তাভাবনার পর আমি এবং নাগা আলাদা হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এক দশকেরও বেশি সময় ধরে আমরা বন্ধু। আমি বিশ্বাস করি, সেই বন্ধুত্বই আমাদের মধ্যে এক বিশেষ সম্পর্ককে বাঁচিয়ে রাখবে। এই কঠিন সময়ে আশা করি আমাদের শুভানুধ্যায়ী, বন্ধু এবং সংবাদমাধ্যম আমাদের সমর্থন করবে এবং গোপনীয়তা বজায় রাখতে সাহায্য করবে। পাশে থাকার জন্য ধন্যবাদ।’

ডিভোর্স নিয়ে সামান্থার কী মতামত? ট্রোলিংয়ের মুখে পড়ে নায়িকা জানিয়েছিলেন, ‘ডিভোর্স একটা যন্ত্রণাদায়ক যাত্রা, দয়া করে আমাকে নিজের ক্ষত গুলো সারিয়ে তুলতে একটু একাকীত্ব দিন। আমার উপর ব্যক্তি আক্রমণ লাগাতার চলছে। কিন্তু জেনে রাখুন কোনও কিছুই আমাকে ভাঙতে পারবে না’।

বন্ধ করুন