বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Mithai Update: 'জি কাকুর বাজেট নেই', ময়রা থেকে সোজা পুলিশ সিডি বয়! ‘সস্তার কাঞ্চনজঙ্ঘা’ দেখানোয় ট্রোলড মিঠাই টিম

Mithai Update: 'জি কাকুর বাজেট নেই', ময়রা থেকে সোজা পুলিশ সিডি বয়! ‘সস্তার কাঞ্চনজঙ্ঘা’ দেখানোয় ট্রোলড মিঠাই টিম

শুরু ট্রোলিং

Mithai Trolled: কর্পোরেট কর্মী,ময়রা, রিকি -দ্য রকস্টারের পর এবার সোজা পুলিশ! মিঠাইয়ের নতুন পর্ব শুরু হতেই ট্রোলড সিডি বয়। বাদ গেল না ‘মিঠি’ সৌমিতৃষাও। 

চলতি সপ্তাহ থেকেই মিঠাই-তে এসেছে বড় বদল। সময় বদলের সঙ্গে সঙ্গে বেশ কয়েক বছর এগিয়ে গিয়েছে ধারাবাহিকের গল্প। মিঠাই ছাড়া মনোহরায় অনেক কিছু পালটে গিয়েছে। শাক্যর দুষ্টুমিই একমাত্র মাতিয়ে রাখে মোদক পরিবারকে। মিঠাইয়ের মৃত্যুর সঙ্গে এক ঝটকায় বদলে গিয়েছে সবকিছু। একদিকে উচ্ছেবাবু রাতারাতি ময়রা থেকে পুলিশ অফিসার হয়ে গিয়েছে, শ্রী,নন্দা, নিপাদের লুকে এসেছে বিরাট পরিবর্তন। 

মিঠাই মারা যাওয়ার পর মিঠি হিসাবে সিরিয়ালে এন্ট্রি নিয়েছেন সৌমিতৃষা। মিঠি আর মিঠাই কি একজন নাকি মিঠি মিঠাইরানির যমজ বোন? তা একদমই ভিন্ন কোনও ব্যক্তি? এই সব নিয়ে বিস্তর কাটাছেঁড়া চলছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। পাশাপাশি মিঠাইয়ের নতুন অধ্যায়ের শুরুতেই ব্যাপক ট্রোলিং শুরু হয়েছে এই ধারাবাহিককে ঘিরে। 

প্রথমত কর্পোরেট চাকুরিজীবী, পরে ময়রা সিদ্ধার্থ মোদকের সব ছেড়ে আচমকা পুলিশ অফিসার হয়ে যাওয়ার লজিক অনেকেই খুঁজে পাচ্ছে না। মিঠাইয়ের খুনিদের শাস্তি দিতেই নাকি পুলিশ হয়েছে সিদ্ধার্থ! রাতারাতি উচ্ছেবাবুর এই ভোলবদলে অবাক অনেকেই। একজন লিখেছেন- ‘কর্পোরেট চাকুরী থেকে মিষ্টিওয়ালা থেকে রিকি রকস্টার থেকে আবার মিষ্টিওয়ালা থেকে পুলিশ অফিসার। মানব সভ্যতার ক্রম বিবর্তন যেন..’। একটা সময় মিঠাই ভক্তরা প্রশ্ন তুলেছিল ফুলঝুরি কবে গান শিখলো? এখন পালটা প্রশ্নের মুখে উচ্ছেবাবু। 

অন্যদিকে মিঠির এন্ট্রি সিন দেখে অনেকেরই হাসি থামছে না। পাহাড়ের মেয়ে মিঠি। ধবধবে সাদা পাহাড়ের সামনেই প্রথমবার দেখা মিলেছে মিঠির। যদিও সেই দৃশ্য থেকে কারুর বুঝতে হবে না ওই দৃশ্য ক্রোমা স্ক্রিনে শ্যুট করা, তারপর গ্রাফিক্সের মাধ্যমে পাহাড় বসানো হয়েছে। কিন্তু সেই গ্রাফিক্সের কাজ এতটাই নিম্নমানের যা চোখে লেগেছে ভীষণরকমভাবে। যা দেখে হতাশ ভক্তরা। অনেকেই লিখছেন, ‘সস্তার কাঞ্চনজঙ্ঘা দেখালো, টাকা নেই জি কাকুর’। মিঠির এই লুক দেখে অনেকে লিখেছেন, ‘পুরো কিরণমালার পিশাচিনির মতো লাগছে’। কেউ আবার লিখেছেন, ‘এ তো পুরো কার্টুন লাগছে’।  

অন্যদিকে শ্রীনিপা, শ্রীনন্দাদের মাত্রাতিরিক্ত ‘বুড়ি’ দেখানো হচ্ছে, বলেও অভিযোগ করছেন দর্শকদের একাংশ। একদিকে মিঠাইয়ের বয়স কমিয়ে দেওয়া হয়েছে এক ঝটকায়, আর বাকিদের ‘বুড়িয়ে’ দেওয়া হয়েছে। মিঠির চরিত্রটা অনেকটা ‘জব উই মেট’-এর গীতের আদলে তৈরি করেছেন লেখিকা, অন্তত সিরিয়ালের ঝলক তাই বলছে। মনোহরাতে ইতিমধ্যেই শাক্যর টিচার হওয়ার উদ্দেশ্যে এন্ট্রি নিয়েছে সে। অবিকল মিঠাইয়ের মতো দেখতে মিঠিকে দেখে অবাক মোদক পরিবার। এবার কী মোড় নেবে এই কাহিনি? সেটাই এখন দেখবার। 

 

বন্ধ করুন