বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Gaatchora Latest Episode: অভিমানের বরফ গলেছে! কী ভাবে বসন্ত ফিরল ঋদ্ধি-খড়ির জীবনে?
ফের কাছাকাছি খড়ি-ঋদ্ধি।

Gaatchora Latest Episode: অভিমানের বরফ গলেছে! কী ভাবে বসন্ত ফিরল ঋদ্ধি-খড়ির জীবনে?

  • ঋদ্ধির অনুমতি ছাড়াই নিজের মতো করে অতিথি আপ্যায়ন করে খড়ি। তার জন্য নানা কথাও শুনতে হয় তাকে। প্রশ্ন ওঠে তার যোগ্যতা নিয়েও। কিন্তু এ সব কিছুকে অগ্রাহ্য করেই নিজের সিদ্ধান্তে অনড় থাকে সে।

অভিমানের বরফ গলছে। কমছে দূরত্ব। ঋদ্ধি-খড়ির জীবনে প্রেমের অকাল বসন্ত আসন্ন। আবার বহাল মান-অভিমানের পালাও।

সিংহ রায়দের প্রায় ডুবতে বসা ব্যবসা বাঁচিয়ে তুলেছে খড়ি। বিদেশি পিটার তার হাতের বাঙালি রান্নার স্বাদে এক্কেবারে ক্লিন বোল্ড। বাহারি সব পদের পাশাপাশি খড়ির তৈরি মাটির গয়না দেখেও মুগ্ধ সে। স্ত্রীয়ের কেরামতিতে হতবাক ঋদ্ধি স্বয়ং।

ঋদ্ধির অনুমতি ছাড়াই নিজের মতো করে অতিথি আপ্যায়ন করে খড়ি। তার জন্য নানা কথাও শুনতে হয় তাকে। প্রশ্ন ওঠে তার যোগ্যতা নিয়েও। কিন্তু এ সব কিছুকে অগ্রাহ্য করেই নিজের সিদ্ধান্তে অনড় থাকে সে। সফলও হয়। সেই সাফল্যই চোখ খুলে দেয় ঋদ্ধির। নিজের ভুল বুঝতে পারে সিংহ রায় বাড়ির জ্যেষ্ঠপুত্র। স্ত্রীর কাছে ক্ষমাও চায়।

(আরও পড়ুন: ‘মৃত্যু’ই জিয়নকাঠি! লক্ষ্মী কাকিমাকে হারিয়ে ফের বেঙ্গল টপার ‘মিঠাই’, রইল তালিকা)

কী ভাবলেন? অভিমানের মেঘ কেটে গেল? একেবারেই না। কথায়-কথায় ঠান্ডা লড়াই চলল। ঋদ্ধির আচরণ তাকে কতটা আঘাত দিয়েছে, সুযোগ পেতেই স্বামীকে সে কথা বুঝিয়ে দিল খড়ি। অগত্যা আড়ি থেকে ভাব আর হল না।

অন্য দিকে, দ্যুতিকে ফের ফাঁদে ফেলার পরিকল্পনা রাহুলের। হিরের হার দিয়ে স্ত্রীর মন জয়ের চেষ্টা। দ্যুতিও কি ছেড়ে দেওয়ার পাত্রী! স্বামীকে সে বিশ্বাস করে না ঠিকই। তবে তার দেওয়া বহুমূল্য উপহারটি ফেরায়নি মোটেই। মনে যা-ই থাকে, দিব্যি রাহুলের তালে তাল মিলিয়ে চলছে।

(আরও পড়ুন: আমেরিকায় হল গাঁটছড়ার শ্যুটিং, দেখেছেন তো খড়ি আর ঋদ্ধিকে নিয়ে সেই বিশেষ পর্বটা)

অতিথির প্রস্থানের পরেও খড়ির রান্নার প্রশংসা অব্যাহত। কিন্তু ঋদ্ধির পাতে সে সব কোথায়! বাইরে থেকে কিনে আনা স্যুপই তার একমাত্র ভরসা। খড়ির হাতের রান্না খেলে পাচ্ছে সম্মান যায়! স্ত্রীর কাছে পরাজিত হওয়া তো চলবে না!

খড়িও কি দমে যাওয়ার পাত্রী? আকারে ইঙ্গিতে স্বামীর 'সাহেবিয়ানা' দু'চার কথাও বলে। আর তখনই রাগের চোটে টেবিল ছেড়ে উঠে পড়ে ঋদ্ধি। গটগটিয়ে চলে যায় ঘরে। কিন্তু পেট কি আর অভিমান বোঝে! খিদের জ্বালায় চুপিচুপি ঘর থেকে বেরিয়ে আসে সে! খড়ির হাতের রান্না খেতে গিয়ে ধরা পড়ে তার কাছেই। ব্যাস, অভিমান গলে জল। রাগ-ক্ষোভ অতীত। সব ভুলে একে অপরের মুখে খাবার তুলে দেয় তারা।

এ ভাবেই সকলের অগোচরে বসন্ত আসে তাদের জীবনে। শুরু হয় ভালোবাসার মরশুম।

বন্ধ করুন