বাড়ি > বায়োস্কোপ > Unlock 3: জল্পনায় জল,বন্ধই থাকবে সিনেমা হল
 সিনেমা হলে সানিটাইজ করবার প্রক্রিয়া চলছে  (REUTERS)
 সিনেমা হলে সানিটাইজ করবার প্রক্রিয়া চলছে  (REUTERS)

Unlock 3: জল্পনায় জল,বন্ধই থাকবে সিনেমা হল

  • স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফে জারি নির্দেশিকায় জানিয়ে দেওয়া হল আনলক ৩ পর্যায়েও বন্ধ থাকবে সিনেমা হল। 

আনলক ৩'তেও তালাবন্ধই থাকবে সিনেমা হল। দিন কয়েক আগেই খবর সামনে এসেছিল খুব সম্ভবত আনলক ৩'তে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক  ছাড়পত্র দিতে চলেছে সিনেমা হলের দরজা ফের একবার খুলে দেওয়ায়। কিন্তু সেই জল্পনা মিথ্য প্রমাণ করে দিল বুধবার সন্ধ্যায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফে জারি নির্দেশিকা। জানানো হয়েছে এই পর্যায়েও বন্ধ থাকবে সিনেমা হল, থিয়েটা,সুইমিং পুল, এন্টারটেনমেন্ট পার্ক, বার, অডিটোরিয়াম। 

জানা গিয়েছিল তথ্য ও সম্প্রচারক মন্ত্রকের তরফে চিঠি গিয়েছিল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের কাছে। সেখানে সিনেমা হল খোলার সিদ্ধান্তের কথা বিবেচনার আর্জি জানানো হয়েছিল। মার্চ মাসের মাঝামাঝি সময় থেকে দেশজুড়ে তালাবন্ধ সিনেমা হল। লকডাউন শুরুর সপ্তাহখানেক আগে থেকেই বন্ধ করে দেওয়া হয় থিয়েটারগুলি। প্রায় সাড়ে চার মাস ধরে বন্ধ রয়েছে সিনেমা হল। কার্যত দেওয়ালে পিঠ ঠেকে গিয়েছে এই ইন্ডাস্ট্রির। এদিনের সিদ্ধান্তে ফের অস্বস্তি বাড়তে চলেছে সিনেমা হল মালিক, মাল্টিপ্লেক্স চেনগুলোর। 

কলকাতার নবীনা সিনেমাহলে চলছে জীবানুমুক্ত করবার কাজ
কলকাতার নবীনা সিনেমাহলে চলছে জীবানুমুক্ত করবার কাজ (REUTERS)

দেশে প্রায় ৯,৫০০ সিনেমাহল রয়েছে যা প্রতিদিন শুধুমাত্র সিনেমার টিকিট বিক্রি করে ৩০ কোটি টাকার আয় করে। তবে করোনা সংকটের জেরে পুরোপুরি থমকে গিয়েছে এই ইন্ডাস্ট্রি।সিনেমা হল বন্ধ, ইতিমধ্যেই প্রায় ১০০০ কোটি টাকা লোকসানের মুখে বলিউড। থিয়েটার খুললে সেখানে যাতে সুরক্ষা এবং হাইজিন প্রোটোকলের সবরকম ব্যবস্থা করা হয় সেব্যাপারে খেয়াল রাখছে মাল্টিপ্লেক্স চেনগুলি। কোনওরকমের স্পর্শ ছাড়াই যাতে টিকিট কাটতে পারেন দর্শক তাঁর ব্যবস্থা থাকছে। শুধুমাত্র কিউআর কোড স্ক্যান করেই টিকিট টাকা কিংবা খাবার কেনা যাবে। একমাত্র ব্যতিক্রমী ক্ষেত্রেই নগদে লেনদেন করা হবে। না হলে ক্যাশলেস পেমেন্টেই উত্সাহ দিচ্ছে মাল্টিপ্লেক্সগুলো। হাতে কোনওরকম টিকিট দেওয়া হবে না।

 সাড়ে চারমাস ধরে থিয়েটার বন্ধ থাকায় এখন সরাসরি ওটিটি প্ল্যাটফর্মকেও অনেকে প্রযোজকই ছবি মুক্তির পথ হিসাবে বেছে নিয়েছেন। কম ও মাঝারি বাজেটের ছবিগুলি ওটিটি প্ল্যাটফর্মে মুক্তি পেলেও, বিগ বাজেট কমার্শিয়াল ছবির জন্য থিয়েটার খোলবার অপেক্ষা করা ছাড়া অপর কোনও রাস্তা খোলা নেই। সেই কারণেই গুলাবো সিতাবো, শকুন্তলা দেবী,কিংবা সড়ক টু, গুঞ্জন সাক্সেনার মতো ছবি বিভিন্ন ওটিটি প্ল্যাটফর্মে মুক্তি পেলেও সিনেমা হল খোলবার অপেক্ষায় দিনগুনছে টিম সূর্যবংশী, ৮৩, রাধে: ইয়োর মোস্ট ওয়ান্টেড ভাই।

বন্ধ করুন