বাড়ি > বায়োস্কোপ > মাঝরাতে পর পর গুলির শব্দ, সুশান্ত নিয়ে মুখ বন্ধ করতে হুমকির অভিযোগ কঙ্গনার
কঙ্গনা রানাউত মনে করছেন, সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু নিয়ে তাঁর মন্তব্যের জেরে ভয় দেখাতেই এমন কাণ্ড ঘটানো হয়েছে।
কঙ্গনা রানাউত মনে করছেন, সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু নিয়ে তাঁর মন্তব্যের জেরে ভয় দেখাতেই এমন কাণ্ড ঘটানো হয়েছে।

মাঝরাতে পর পর গুলির শব্দ, সুশান্ত নিয়ে মুখ বন্ধ করতে হুমকির অভিযোগ কঙ্গনার

  • কঙ্গনার দাবি, এ ভাবেই নিশ্চয় সুশান্তকেও ভয় দেখানো হয়েছিল।

গভীর রাতে অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াতের বাড়ির কাছে পর পর গুলির আওয়াজ শোনা গেল। অভিযোগ পাওয়ার পরে আতঙ্কিত অভিনেত্রীর বাড়ির সামনে পুলিশ পাহারার ব্যবস্থা হয়েছে।

করোনা অতিমারীর জেরে দেশব্যাপী লকডাউন আরোপ হওয়ার পর থেকে হিমাচলের মানালি শহরে নিজের পুরনো বাড়িতে বসবাস করছেন কঙ্গনা। শুক্রবার রাত ১১.৩০ নাগাদ বাড়ির বাইরে আচমকা একাধিক গুলির শব্দ শুনে তিনি আতঙ্কিত হয়ে পুলিশে খবর দেন। 

পরে কঙ্গনার জনসংযোগ টিমের তরফে বিবৃতিতে বলা হয়, ‘অনুসন্ধান করে পুলিশ কোনও তথ্য-প্রমাণ বা ষড়যন্ত্রের হদিশ পায়নি। তবে কঙ্গনা রানাউত মনে করছেন, সম্প্রতি সুশান্ত সিং রাজপুত সংক্রান্ত মন্তব্যের জেরে তাঁকে ভয় দেখাতেই এমন কাণ্ড ঘটানো হয়েছে।

ওই বিবৃতিতে কঙ্গনা সেই রাতের অভিজ্ঞতার বর্ণনায় জানিয়েছেন, ‘রাত সাড়ে এগারোটা নাগাদ শোওয়ার ঘরে ছিলাম। এই সময় পটকা ফাটার মতো শব্দ শুনলাম এর পর আবার ওই রকম শব্দ শুনে নিরাপত্তা রক্ষীকে ডেকে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এলাকার বাচ্চারা বাজি ফাটাচ্ছে হয়ত। কিন্তু তিনি বোধহয় কখনও গুলির শব্দ শোনেননি, তবে আমি শুনেছি। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও ওঁরা কিছু দেখতে পেলেন না। আমরা ৫ জন ছিলাম। পরে সবাই বুঝতে পারলাম, ওটা গুলির শব্দ। তাই আমরা পুলিশকে ফোন করে ডাকলাম। তারা দেখেশুনে বলল, হয়ত ফলের বাগানে বাদুড় তাড়াতে কেউ গুলি করেছে। হতে পারে আপেল খেতে আসা বাদুড়দের তাড়াতেই গুলি করা হয়েছিল। তাই বিষয়টিকে বেনিফিট অফ ডাউট হিসেবে সাব্যস্ত করা হল।’

কঙ্গনার দাবি, দুটি গুলির শব্দের মাঝে ৮ সেকেন্ডের ব্যবধান ছিল। ওই শব্দ শুনিয়ে তাঁকে হুমকি দেওয়াও হতে পারে। কয়েকজন ক্ষমতাবান রাজনীতিক সম্পর্কে তাঁর সাম্প্রতিক মন্তব্যের কারণেই এমন ভয় দেখানোর চেষ্টা করা হয়েছে।

তিনি বলেছেন, ‘মনে হচ্ছে, আমাকে ভয় দেখাতে স্থানীয় কয়েক জনকে ভাড়া করা হয়েছে। অনেকেই বলেছিলেন, এবার মুম্বইতে তোমার জীবন দুর্বিসহ করে তোলা হবে। তবে দেখা যাচ্ছে, তার জন্য আমার মুম্বইয়ে থাকার দরকার নেই। এখানেও কই কাণ্ড শুরু হয়েছে। দেশে গি প্রকাশ্যে গুন্ডাগিরি চলছে? এ ভাবেই নিশ্চয় সুশান্তকেও ভয় দেখানো হয়েছিল। কিন্তু আমি প্রশ্ন করা থামাব না।’

 

বন্ধ করুন