বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Scam 2003: ফল বিক্রেতা থেকে ২০,০০০ কোটির স্ট্যাম্প কেলেঙ্কারি! আসছে হনসলের ‘স্ক্যাম ২০০৩’

Scam 2003: ফল বিক্রেতা থেকে ২০,০০০ কোটির স্ট্যাম্প কেলেঙ্কারি! আসছে হনসলের ‘স্ক্যাম ২০০৩’

আসছে স্ক্যাম ২০০৩

অবশেষে হনসল মেহতা খুঁজে পেলেন অনস্ক্রিনের তেলগিকে, ‘স্ক্যাম ২০০৩’তে কুখ্যাত তেলগির জীবন।

অবশেষে হনসল মেহতা খুঁজে পেলেন তাঁর আসন্ন প্রোজেক্টের মুখ্য চরিত্রকে। ‘স্ক্যাম ১৯৯২: দ্য হর্ষদ মেহতা স্টোরি'র পর এবার ‘স্ক্যাম ২০০৩: দ্য তেলগি স্টোরি’ নিয়ে হাজির হচ্ছেন হনসল মেহতা। তবে এবার পরিচালকের ভূমিকায় থাকবে তুষার হিরানন্দানি, অন্যদিকে শো-রানার দায়িত্বে থাকছেন হনসল মেহতা। যৌথভাবে এই প্রোজেক্ট প্রযোজনা করছে আপ্পলাউস এন্টারটেইনমেন্ট ও স্টুডিও নেক্সট।

স্ট্যাম্প পেপার কেলেঙ্কারির সর্বেসর্বা আবদুল করিম তেলগির কুখ্যাত জীবনকাহিনি উঠে আসবে এই সিরিজে। মঙ্গলবার এই সিরিজের ২৮ সেকেন্ডের টিজার প্রকাশ্যে এনেছে প্রযোজনা সংস্থা। যার মাধ্যমে অনস্ক্রিন তেলগির সঙ্গে দর্শকদের পরিচয় করালেন হনসল মেহতা। গগণ দেব রিয়ারকে এই সিরিজে দেখা যাবে তেলগির ভূমিকায়। গগণের সঙ্গে তেলগির চেহারার অসম্ভব মিল দেখে হয়রান নেটপাড়া। টিজারের ক্যাপশনে ‘আলিগড়’ পরিচালক লিখেছেন, ‘তেলগির খোঁজ পাওয়া গেল’। কাস্টিং ডিরেক্টর মুকেশ ছাবরা এই অসাধ্য সাধন করেছেন। 

অভিষেক চৌবের সোনচিড়িয়া, মীরা নায়ারের ‘এ স্যুটেবল বয়’-এর মতো ছবি ও সিরিজে কাজ করেছেন গগণ। গগণকে তেলগি রূপে দেখে মুগ্ধ ফ্য়ানেরা। নেটিজেনদের দাবি, ‘এর চেয়ে পারফেক্ট কাস্টিং হতে পারে না’। 

সাংবাদিক সঞ্জয় সিংয়ের লেখা ‘রিপোর্টার্স ডায়েরি’ অবলম্বনে  এই সিরিজটি তৈরি হয়েছে। এই কেলেঙ্কারি ফাঁস করেছিলেন ক্রাইম রিপোর্টার সঞ্জয় সিং। কর্ণাটকের খানাপুরের এক ফল বিক্রেতা তেলগি হয়ে কীভাবে উঠেছিলেন ভারতের এক অন্যতম কুখ্যত ‘স্ট্যাম্প পেপার কেলেঙ্কারি’র মাস্টারমাইন্ড তাই উঠে আসবে এই সিরিজে। 

স্ট্যাম্প পেপার কেলেঙ্কারি কী?

ভারতের সবচেয়ে বৃহত্ ও চর্চিত কেলেঙ্কারির মধ্যে অন্যতম ‘তেলগি স্ট্যাম্প কেলেঙ্কারি’। ২০০২ সালে ২০,০০০ কোটি টাকার এক অভিনব আর্থিক কেলেঙ্কারি সামনে আসে। আব্দুল করিম তেলগি জাল স্ট্যাম্প পেপার ছাপানোর যাবতীয় কলাকৌশল শিখে সেগুলো ছাপিয়ে ব্যাঙ্ক ও অন্যান্য প্রতিষ্ঠানকে বিক্রি করত। কয়েকজন সরকারি অফিসারকে ঘুষ দিয়ে জাল স্ট্যাম্পের কারবার শুরু করে সে, বলে শোনা যায়। জালিয়াতির অপরাধে ২০০৭ সাল থেকেই কর্ণাটকের পারাপান্না জেলে বন্দি ছিলেন তেলগি। আদালতে দোষী সাব্যস্ত হওয়ার পর ৩০ বছরের কারাদণ্ড দণ্ডিত করেছিল তেলগিকে, হয়েছিল ২০২ কোটি টাকার জরিমানা। ২০১৭ সালে ম্যানিনজাইটিসে ভুগে মৃত্যু হয় ‘স্ট্যাম্প কেলেঙ্কারির নায়ক’ আবদুল করিম তেলগির।

আবদুল করিম তেলগির জীবন উঠে আসবে ওটিটি প্ল্যাটফর্ম সোনি লিভের পর্দায়। 

 

বন্ধ করুন