বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > দিনে দুপুরে মুম্বইয়ের রাস্তায় টেলি অভিনেতার গাড়ি থামিয়ে ডাকাতি!
সঞ্জয় চৌধুরী ( ছবি-ইনস্টাগ্রাম)
সঞ্জয় চৌধুরী ( ছবি-ইনস্টাগ্রাম)

দিনে দুপুরে মুম্বইয়ের রাস্তায় টেলি অভিনেতার গাড়ি থামিয়ে ডাকাতি!

  • প্রকাশ্যে দিবালোকে অভিনেতা সঞ্জয় চৌধুুরির গাড়ি থামিয়ে সব সম্পত্তি লুট করল একদল দুষ্কৃতী। 

এবার দিনে দুপুরে ডাকাতিতে সর্বস্বান্ত হলেন ‘হাপ্পু কি উলটন পলটন' ধারাবাহিক খ্যাত অভিনেতা সঞ্জয় চৌধুরি। নিজের ইনস্টাতে আপলোড করা ভিডিওতে তিনি জানিয়েছেন , মীরা গাওঁ থেকে নাইগাওঁ এর শুটিং সেটের উদ্দেশ্যে নিজের গাড়ি নিয়ে যাচ্ছিলেন । কিন্তু পথিমধ্যেই বাধ্য হয়ে গাড়ি থামিয়ে দুপুর আড়াইটে নাগাদ কয়েকজন দুষ্কৃতীর হাতে রীতিমতো নিগৃহীত হন অভিনেতা । নিজের ভিডিওর ক্যাপশনে বারবার সকলকে সাবধান করে দিয়েছেন অভিনেতা , জানিয়েছেন অপরাধীরা কিন্তু মানুষ দেখে বাছবিচার করে অপরাধে লিপ্ত হন না ।

তাঁর ভিডিও অনুসারে জানা গিয়েছে ওই দিন দুপুর নাগাদ গাড়ি নিয়ে খানিকটা ধীমে তালে নিজেই ড্রাইভ করে যাচ্ছিলেন সঞ্জয় । আচমকাই স্কুটারে চেপে এক ব্যক্তি তাঁর গাড়ির পাশে আসেন এবং বারংবার জানালার কাঁচে চাপড়ে , গাড়ি থামানোর জন্য ইঙ্গিত করতে থাকেন , সাথে চলতে থাকে মারাঠি ভাষায় অশ্রাব্য গালি গালাজ । বাধ্য হয়ে তিনি গাড়ি সাইড করে কাঁচ নামাতেই হাত ঢুকিয়ে দরজার লক খুলে ভিতরে চলে আসেন ও তাঁর মোবাইল কেড়ে নেন ওই ব্যক্তি । দাবি করেন তাঁর গাড়ির ধাক্কায় স্কুটারের ক্ষতি হয়েছে , তাঁর হাতে চোট লেগেছে। কাজেই ক্ষতিপূরণ বাবদ তক্ষুনি কুড়ি হাজার টাকা দিতে হবে অভিনেতাকে । ইতিমধ্যেই আরো কয়েকটি স্কুটারে বেশ কয়েকজন এসে হাজির হন ঘটনাস্থলে ।

কিন্তু সেই মুহূর্তে সঞ্জয়ের কাছে অত টাকা না থাকায় তাঁরা এটিএম থেকে টাকা তুলে দেওয়ার জন্য চাপ দিতে থাকেন । কিন্তু অভিনেতা অস্বীকার করে ফোন কেড়ে নেওয়ার এমনকি ১০০ ডায়াল করে পুলিশে জানবার হুমকি পর্যন্ত দেন দুষ্কৃতীরা । শেষমেষ বাধ্য হয়ে মানিব্যাগ থেকে কিছু টাকা দেন অভিনেতা , গাড়ির ড্রয়ারেও টাকা দেখে তাও হাতিয়ে নেন দুষ্কৃতীরা । মোট ৭০০ টাকা গাড়ি থেকে নেওয়ার পরে অবশেষে অভিনেতাকে গালিগালাজ করে সেখান থেকে তখুনি চলে যেতে বলেন দুষ্কৃতীরা । কিন্তু সেই মুহূর্তেই ঘটনার আকস্মিকতায় হতবাক অভিনেতা না গাড়ি স্টার্ট না দেওয়ায় ফিরে এসে হুমকি দেন দুষ্কৃতীরা | 

সম্পূর্ণ ঘটনার পিছনে একটি বড় অপরাধ চক্র রয়েছে বলেই মনে করেন সঞ্জয় । তাছাড়া লকডাউনের আবহে চাকরি খুইয়ে পেটের দায়ে বহু মানুষ বাধ্য হয়ে অসামাজিক কাজে জড়িয়ে পড়ছেন বলেও জানান তিনি । নিজের ভুল স্বীকার করে জানিয়েছেন , তাঁর প্রথমেই গাড়ি চালিয়ে বেরিয়ে যাওয়া উচিৎ ছিল , না দাঁড়ালে বা কাঁচ না নামালে এই ঘটনা ঘটত না বলেই মনে করেন তিনি । আপাতত সকলকে সাবধান করে একা মুম্বইয়ের রাস্তায় গাড়ি নিয়ে না বেরোনোর পরামর্শ দিয়েছেন তিনি । একান্ত প্রয়োজনে বেরোতেই হলে কোনও অপরিচিতের ডাকে সাড়া দিয়ে গাড়ি দাঁড় করতে বারংবার নিষেধ করে দিয়েছেন অভিনেতা ।

বন্ধ করুন