বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > 'সেই শর্ত না মানলে বিয়ে ভেঙে দিত জায়েদ', স্বামীর ব্যাপারে বিস্ফোরক গওহর খান!
স্বামী জায়েদের সঙ্গে গওহর। ( ছবি সৌজন্যে -হিন্দুস্তান টাইমস)
স্বামী জায়েদের সঙ্গে গওহর। ( ছবি সৌজন্যে -হিন্দুস্তান টাইমস)

'সেই শর্ত না মানলে বিয়ে ভেঙে দিত জায়েদ', স্বামীর ব্যাপারে বিস্ফোরক গওহর খান!

  • বিয়ে হওয়ার পর পেরিয়েছে মাত্র ৭ মাস। কিছুদিন আগে রাশিয়ার মস্কো থেকে হানিমুন সেরে ফিরলেন গওহর খান এবং জায়েদ দরবার। এরপরেই স্বামীর বিরুদ্ধে 'বিস্ফোরক' হলেন এই বলি-অভিনেত্রী।

গত বছরের ২৫ ডিসেম্বর বিখ্যাত বলি-সুরকার ইসমাইল দরবারের পুত্র জায়েদ দরবারের সঙ্গে চারহাত এক করেছিলেন গওহর খান। পরিবার ও কিছু ঘনিষ্ঠ বন্ধুবান্ধবদের পরিবৃত্তেই সারা হয়েছিল তাঁদের বিয়ের অনুষ্ঠান। বিয়ের ৭ মাস কাটতে না কাটতেই স্বামীর বিরুদ্ধে বিস্ফোরক হলেন এই বলি-অভিনেত্রী। ফাঁস করলেন বিয়ের আগে তাঁকে দেওয়া এক শর্তের কথা। যা না মানলে তৎক্ষণাৎ বিয়ে ভেঙে দিতেন জায়েদ! বলাই বাহুল্য সেই 'শর্ত' মেনেছিলেন গওহর।

'কফি টাইম উইথ গৃহ'-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে কথার ফাঁকে নিজের বিয়ের প্রসঙ্গ উঠলে এই বোমা ফাটিয়েছেন গওহর। অভিনেত্রীর কথায়,' বিয়ের আগে জায়েদ আমাকে পরিষ্কার করে বলে দিয়েছিল বিয়ের দিন আমি যা খুশি তাই করতে পারি, যেমন ইচ্ছে তেমন সাজতেও পারি। তবে হ্যাঁ, হাতে যদি মেহেন্দি আঁকা না থাকে তাহলে সেইমুহূর্তে বিয়ে ভেঙে দেবে ও!' হাসতে হাসতে অভিনেত্রী আরও জানালেন যে অগত্যা অন্য উপায় না দেখে তাই শুনতে হয়েছিল তাঁকে। আর তা নাকি এতটাই সুন্দর হয়েছিল যে নিজের হাতে আঁকা সেই মেহেন্দি দেখে গওহর নিজেই অবাক হয়ে গেছিলেন। সেই সাক্ষাৎকারে গওহর আরও জানিয়েছেন কীভাবে এক সুপারমার্কেটে তাঁর সঙ্গে প্রথমবার দেখা হয়েছিল জায়েদের। জায়েদ অনেক চেষ্টা করলেও তাঁকে নাকি তখন পাত্তা দেননি তিনি।

সম্প্রতি, রাশিয়ার মস্কো থেকে হানিমুন কাটিয়ে দেশে ফিরেছেন এই জুটি। মস্কো ভ্রমণের নানান মুহূর্তের ছবিও নিজের ইনস্টাগ্রামে তাঁর ফলোয়ার্সদের সঙ্গে শেয়ার করেছিলেন বলি-অভিনেত্রী। ' করোনা আবহে বিয়ের পরপর হানিমুনে কোথাও যেতে পারিনি আমরা। দেশের যে কয়েকটি জায়গায় যাওয়ার সুযোগ হয়েছিল আমাদের তা সবই মূলত কাজের স্বার্থে। তাই যখন জানতে পেরেছিলাম পর্যটকদের উদ্দেশে রাশিয়ার দরজা ফের একবার খুলেছে, আর দেরি করিনি আমরা। সেখানে সমস্ত কোভিড নিয়ম মেনেই চুটিয়ে মজা করেছি!'

বন্ধ করুন