বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > কোন ছবি দেখে কুণাল কাপুরের অভিনয়ের প্রশংসায় পঞ্চমুখ হলেন হৃত্বিক রোশন?
সহজ নয় হৃত্বিকের প্রশংসা পাওয়া। ছবি সৌজন্যে - টুইটার
সহজ নয় হৃত্বিকের প্রশংসা পাওয়া। ছবি সৌজন্যে - টুইটার

কোন ছবি দেখে কুণাল কাপুরের অভিনয়ের প্রশংসায় পঞ্চমুখ হলেন হৃত্বিক রোশন?

  • ওটিটি প্ল্যাটফর্মে মুক্তি পেয়েছে 'কোই জানে না'।এই থ্রিলারে মুখ্যভূমিকায়  রয়েছেন কুণাল কাপুর।ছবিতে কুণালের অভিনয় দেখে মুগ্ধ হয়েছেন হৃত্বিক রোশন। নেটমাধ্যমে ফলাও করে কুণালের প্রশংসাও করেছেন তিনি।

সচরাচর প্রশংসা তিনি করেন না। কিন্তু যখন করেন তার আগে সবদিক খুঁটিয়ে দেখেশুনে নেন। তারপর করেন এবং উচ্ছ্বসিতভাবে করেন। তিনি হৃত্বিক রোশন। আমিরের পর যদি বলিউডে 'পারফেকশনিস্ট' তকমার উপযুক্ত দাবিদার তাহলে সে নিশ্চিতভাবে হৃত্বিকই!

সদ্য ওটিটি প্ল্যাটফর্মে মুক্তি পেয়েছে 'কোই জানে না'। থ্রিলারধর্মী এই ছবিতে মুখ্যভূমিকায় অভিনয় করেছেন কুণাল কাপুর। গুরুত্বপূর্ণ একটি চরিত্রে রয়েছেন আমায়া দস্তুরও। জানিয়ে রাখা ভালো, ছবিতে একটি গানের দৃশ্যে অতিথি শিল্পী হিসেবে অভিনয় করেছেন আমির খানও!

ফিরে আসা যাক হৃত্বিক প্রসঙ্গে। যেহেতু বহু বছর ধরে কুণাল ও হৃত্বিক পরস্পরের দারুণ বন্ধু তাই এই ছবি দেখতে বসেছিলেন 'মিঃ রোশন।' ভেবেছিলেন আধ ঘন্টা দেখেই উঠে যাবেন কিন্তু ছবির গল্প ও চিত্রনাট্য নাকি এতটাই টানটান যে আর উঠতে পারেননি বলিউডের এই প্রথম সারির তারকা। তার ওপর ছবিতে কুণালের অভিনয় দেখেও চোখ কপালে উঠেছে তাঁর। রীতিমতো মুগ্ধ তিনি। ছবি শেষ করে দেখে ওঠার পর আর তাই দেরি করেননি তিনি। নেটমাধ্যমে ছবির পোস্টার আপলোড করে ফলাও করে কুণালের প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়েছেন হৃত্বিক।

হৃত্বিকের ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে সেই পোস্ট। ছবি সৌজন্যে -ইনস্টাগ্রাম
হৃত্বিকের ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে সেই পোস্ট। ছবি সৌজন্যে -ইনস্টাগ্রাম

নিজের ইনস্টাগ্রামে হৃত্বিক লেখেন,' ভেবেছিলাম আধ ঘন্টার মতো এই ছবিটি দেখে উঠে যাবো। তাও আধ ঘন্টা দেব ভেবেছিলাম কারণ বন্ধু কুণাল অভিনয় করেছে এই ছবিতে। কিন্তু সেই যে দেখা শুরু করলাম আর উঠতেই পারলাম না। এতটাই দুর্ধর্ষ ছবির গল্প, এতটাই টানটান চিত্রনাট্য। এবং কুণালের অভিনয়!' অভিনেতার কথায় এই ছবিতে কুণাল শুধু বুদ্ধিমত্তার সঙ্গে পরিমিত অভিনয় করেননি, একইসঙ্গে যা ছিল যথেষ্ট 'স্ট্র্যাটেজিক'! বর্তমান সময়ে এ ধরনের অভিনয় তাঁর চোখে যে বিশেষ পড়েনি তাও খোলাখুলি জানালেন এই তারকা। বক্তব্যের শেষে হৃত্বিকের সংযোজন, কুণালের 'গুড লুকস' এক্ষেত্রে 'বোনাস পয়েন্ট!'

 

বন্ধ করুন