দাদা সাহেব ফালকে চলচ্চিত্র উত্সবে সেরা অভিনেতার পুরস্কার জিতলেন হৃত্বিক
দাদা সাহেব ফালকে চলচ্চিত্র উত্সবে সেরা অভিনেতার পুরস্কার জিতলেন হৃত্বিক

সুপার ৩০-র জন্য দাদাসাহেব ফালকে ফাউন্ডেশন পুরস্কার জিতলেন হৃত্বিক রোশন

  • অবশেষে সুপার ৩০-র জন্য স্বীকৃতি এল হৃত্বিকের ঝুলিতে। দাদাসাহেব ফালকে ফাউন্ডেশন সেরা অভিনেতা হিসাবে সম্মানিত করল হৃত্বিককে।

ফিল্মফেয়ারের মঞ্চে সুপার ৩০-তে হৃত্বিক রোশনের সুপার পারফরম্যান্সকে এড়িয়ে গিয়েছে অ্যাওয়ার্ড কর্তৃপক্ষ। সেই নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় কম সমালোনার মুখে পড়েনি ফিল্মফেয়ার। তবে অবশেষে সুপার ৩০-র জন্য স্বীকৃতি এল হৃত্বিকের ঝুলিতে। দাদাসাহেব ফালকে ফাউন্ডেশন সেরা অভিনেতা হিসাবে সম্মানিত করল হৃত্বিককে। শুধু তাই নয় বৃহস্পতিবার মুম্বইয়ে আয়োজিত দাদাসাহেব ফালকে চলচ্চিত্র উত্সবে সেরা ছবির পুরস্কারও জিতে নিয়েছে বিকাশ বহেল পরিচালিত এই ছবি।


হৃত্বিক রোশন, বলিউডের গ্রীক গড অথচ নিজের এই ইমেজ ঝেড়ে ফেলে সুপার ৩০-তে এক ছাপোষা বিহারী অঙ্কের শিক্ষকের ভূমিকায় দেখা মিলেছে হৃত্বিকের। ছবিতে আনন্দ কুমারের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন হৃত্বিক। ৩০ জন আর্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া পড়ুয়াকে নিজের প্রচেষ্টায় আইআইটির প্রবেশিকা পরীক্ষার জন্য তৈরি করেছিলেন আনন্দ কুমার।

সহজ ছিল না আনন্দ কুমারের এই পথচলা, বিতর্ক পিছু ছাড়েনি এই শিক্ষকের-সেই কঠিন জার্নিটাই নিজের অভিনয় দক্ষতায় পর্দায় জীবন্ত করেছেন হৃত্বিক।

সুপার ৩০-র এই স্বীকৃতি নিয়ে টুইটারে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন আনন্দ কুমার।




শুধু সুপার ৩০-নয় ২০১৯-এ হৃত্বিক দর্শকদের উপহার দিয়েছেন ওয়ারের মতো সুপারহিট ছবিও। গত বছর বক্স অফিসের অন্যতম ব্যবসাসফল ছবি ওয়ার। সিদ্ধার্থ আনন্দের এই ছবিতে হৃত্বিক ছাড়াও দেখা মিলেছে টাইগার শ্রফ ও বাণী কাপুরের।

আমি যখন ২০১৯-এর দিকে ফিরে তাকাই, আমার হৃদয় আনন্দে ভরে উঠে, অনেকটা হালকা অনুভব করি। আমি সত্যিই কৃতজ্ঞ। গত বছরটা ঘিরে কৃতজ্ঞ হওয়ার অনেকগুলো কারণ রয়েছে, আমি যে সুযোগগুলো পেয়েছি তাঁর জন্য আমি নিজেকে ভাগ্যবান বলে মনে করি। আমার ভক্তরাও আমাকে সমর্থন জানিয়েছেন। তাঁদের ভালোবাসা প্রতি মুহূর্তে আমাকে অনুপ্রাণিত করে। তবে আমি মনে করি ২০১৮-টা আমার কাছে বেশি গুরুত্বপূর্ণ বছর কারণ এই ছবি দুটোর শ্যুটিং আমি ওই বছর সেরেছি’।



বন্ধ করুন