বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Iccheymoto Parbon: অভিনয়-গানে-শব্দ খেলায় বর্ষবরণ 'ইচ্ছেমতো'র, থিয়েটারপ্রেমীদের জন্য কী চমক ছিল

Iccheymoto Parbon: অভিনয়-গানে-শব্দ খেলায় বর্ষবরণ 'ইচ্ছেমতো'র, থিয়েটারপ্রেমীদের জন্য কী চমক ছিল

অভিনয়-গানে-শব্দ খেলায় বর্ষবরণ 'ইচ্ছেমতো'র

Iccheymoto Parbon: থিয়েটারপ্রেমীদের জন্য মনে রাখার মতো এক বর্ষবরণের রাত। কোন কোন নাটক মঞ্চস্থ হয়েছিল এদিন? কারা বা নাটকের মঞ্চ আলো করে ছিলেন?

২০২২ এর শেষরাত নাটক প্রেমীদের জন্য চিরস্মরণীয় হয়ে থাকল। ৩১ ডিসেম্বরের শেষরাতটা যাঁরা থিয়েটার ভালোবাসেন, সুযোগ পেলেই যাঁরা থিয়েটার দেখতে যান তাঁদের জন্য চোখ ধাঁধানো উপহার দিয়ে সাজিয়ে উপহার দিল ইচ্ছেমতো পার্বণ।

কলকাতার আকাদেমি অব ফাইন আর্টসে এদিন এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। গোটা রাত ধরে এই অনুষ্ঠানটি হয়েছিল। বর্ষশেষের রাত এভাবেই জমে উঠেছিল থিয়েটারে। দর্শকরা সাক্ষী থেকেছেন একটার পর একটা নাটকের। এই অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেছিলেন বিষ্ণুপ্রিয়া দত্ত, বিমল চক্রবর্তী এবং কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায়।

এদিন সুদীপ্তা চক্রবর্তীর মেয়ে শাহিদা প্রথমবার মঞ্চে অভিনয় করল। বহুদিন পর ফের নাটকের মঞ্চে এদিন ফিরে এলেন রাহুল অরুণোদয় বন্দ্যোপাধ্যায়। বিশিষ্ট অতিথিরা অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করার পর মঞ্চস্থ হয় নান্দীকারের ‘অন্তরণ’। এই নাটকে মুখ্য ভূমিকায় দেখা গিয়েছিল সপ্তর্ষি মৌলিক, অনিন্দিতা চক্রবর্তী, অর্ঘ্য দে, প্রমুখ। সোহিনী সেনগুপ্ত ছিলেন এই নাটকের মুখ্য উপদেষ্টা আর নির্দেশনার দায়িত্বে ছিলেন সপ্তর্ষি।

দ্বিতীয় নাটক হিসেবে এদিন ‘ভালোবাসার পদাবলী’ মঞ্চস্থ হয়েছিল। এই নাটকে ছিলেন তূর্ণা দাস, জয়দীপ ভট্টাচার্য। ইচ্ছেমতো এই নাটকের প্রযোজনা করেছে এবং নির্দেশনা দিয়েছিলেন সৌমিত দেব। সৌরভ পালোধী এই নাটকের পরিচালনা করেছিলেন আর সঙ্গীতের দায়িত্বে ছিলেন দেবদীপ মুখোপাধ্যায়।

এরপর দেখানো হয় ‘গোণিকা এবং গোয়ের্ণিকা’। প্রাচ্যের প্রযোজনায় শতদল চক্রবর্তীর এই নাটক প্রদর্শিত হয়েছিল। বিপ্লব চট্টোপাধ্যায় এটার পরিচালনার দায়িত্ব সামলে ছিলেন। 'ম্যাডি' নাটকটি এরপর দর্শকদের জন্য মঞ্চস্থ করা হয়। এটি ইচ্ছেমতোর নাটক। রাহুল অরুণোদয় বন্দ্যোপাধ্যায়, বুদ্ধদেব দাস, প্রমুখকে এই নাটকে অভিনয় করতে দেখা যায়। সৌরভ পালোধী এই নাটকের পরিচালনা করেছিলেন।

একদা আরজে এবং বর্তমানে বিশিষ্ট সঞ্চালক রয় চৌধুরীর পরিবেশনায় বাংলা শব্দ নিয়ে খেলাও হয়। তারপর দেখানো হয় ‘লাইফ’। থিয়েটার প্ল্যাটফর্ম এই নাটকের প্রযোজনা করেছিল। সুদীপ্তা চক্রবর্তী ছিলেন এই নাটকে। এরপর গৌতম হালদারের নির্দেশনা এবং অভিনয়ে মঞ্চস্থ হয় কাব্যে গানে। তিনিই এখানে কবিতা পাঠ করেন এবং গান গান। নটে নাটুয়া এটির প্রযোজনা করেছিল।

বন্ধ করুন