বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Mukesh Khanna: ‘যদি কোনও মেয়ে সেক্স করতে চায়, বুঝবেন সে যৌনকর্মী’, বেফাঁস মন্তব্য ‘শক্তিমান’-এর
মুকেশ খান্না

Mukesh Khanna: ‘যদি কোনও মেয়ে সেক্স করতে চায়, বুঝবেন সে যৌনকর্মী’, বেফাঁস মন্তব্য ‘শক্তিমান’-এর

  • Mukesh Khanna's controversial statement: আবারাও মেয়েদের নিয়ে কুরুচিকর মন্তব্য ‘শক্তিমান’ খ্যাত তারকা মুকেশ খান্নার। ‘মেয়েরা সেক্স করতে চাইলে, তারা দেহব্যবসা করে’ এমন কথাই বললেন বর্ষীয়ান অভিনেতা। 

‘শক্তিমান’-এর সুবাদে নব্বইয়ের দশকে বেড়ে ওঠা জেনারেশনের ‘হিরো’ মুকেশ খান্না। তবে আলটপকা মন্তব্যের মামলায় হামেশা দু-পা বাড়িয়ে থাকেন তিনি। মেয়েদের নিয়ে মুকেশের বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে আপতত তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়া। ইউটিউব চ্যানেলের মাধ্যমে ফ্যানেদের সামনে নানান বিষয় নিয়ে মতামত রাখেন বর্ষীয়ান অভিনেতা।

নিজের ইউটিউব চ্যানেল (ভীষ্ম ইন্টারন্যাশন্যাল)-এ ‘ক্য়ায়া আপকোভি এয়সি লড়কিয়া লুভাতি হ্যায়?’ (আপনাদেরও কি এইরকম মেয়েরা প্রলুব্ধ করে?) শীর্ষক একটি ভিডিয়ো পোস্ট করেছেন অভিনেতা ।

ভিডিয়োতে অভিনেতাকে বলতে শোনা গেল, ‘যদি কোনও মেয়ে কোনও ছেলেকে বলে যে আমি তোমার সঙ্গে সেক্স করতে চাই, তাহলে মেয়েটি দেহ ব্যবসা করছে। কারণ সভ্য সমাজের কোনও মেয়ে কখনও এমন নির্লজ্জ কথা মুখে আনতে পারে না। তাহলে যে যৌনকর্মী। আপনি এই ঘৃণ্য কাজের অংশীদার হবেন না। এদের এড়িয়ে চলুন।’

মুকেশ খান্নার এই মন্তব্য নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় বিতর্কের ঝড়। নারীবাদীরা খচে বোম মহাভারতের ‘ভীষ্ম’র উপর। নারীদের সম্পর্কে তিনি যা বলেছেন, তা গোটা নারীজাতির কাছে তা অত্যন্ত কুরুচিপূর্ণ। একজন লেখেন, ‘সরি, শক্তিমান আপনি এটা ভুল বলছেন’। অপর একজন লেখেন, ‘শক্তি আর মান দুটোই যখন আপনার শরীর থেকে চলে যায়, তখন মানুষ এইধরণের ভুলভাল মন্তব্য করে’। অনেক মেয়েই লিখেছেন, ‘আর ছেলেরা সেক্স করতে চাইলে? তাঁদের কী বলা হবে? সেটাও একটা ভিডিয়ো করে বলুন’। কেউ কেউ তো সরাসরি লিখেছেন, ‘বয়স বাড়বার সঙ্গে সঙ্গে শক্তিমান উন্মাদ হয়ে গেছে’।

মুকেশ খান্না আরও বলেন,আজকাল হোয়াটসঅ্যাপে তিনি প্রচুর মেসেজ পান, যেখানে যৌনতার হাতছানি থাকে। এইগুলো সমাজকে বিপথে নিয়ে যাচ্ছে বলে মত তাঁর। তিনি আরও বলেন, আগেকার দিনে মেয়েদের কাছে সুযোগ থাকত ‘না’ বলবার আর আজকাল ছেলেরা ‘না’ বলেছে। আরও পড়ুন- অ্যাভেঞ্জার্স-দের থেকে কোনও অংশে কম নয় শক্তিমান,দাবি মুকেশ খান্নার!

মুকেশ খান্নার ইউটিউব চ্যানেলের প্রায় ১১ লক্ষ সাবস্ক্রাইবার রয়েছে। এই চ্যানেলে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা বলতে শোনা যায় তাঁরে। এর আগে ‘মি টু’ আন্দোলন নিয়েও বেফাঁস মন্তব্য করে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন মুকেশ খান্না। তাঁকে বলতে শোনা গিয়েছিল, ‘যৌন নির্যাতন অথবা যে কোনও ধরণের নির্যাতনের শিকার মেয়েরা তখন হয়, যখন কাজের জন্য বাইরে যায়’। সেইসময় নারাবাদীরা একহাত নিয়েছিল প্রবীণ অভিনেতাকে।

 

 

 

 

বন্ধ করুন