বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > বাংলায় ‘বাহুবলী’ হলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় থাকতেন কোন চরিত্রে? জবাব মিলল ফেসবুকে
শাসক দলের প্রায় সকলেই নাকি থাকতেন বাংলা ‘বাহুবলী’তে!
শাসক দলের প্রায় সকলেই নাকি থাকতেন বাংলা ‘বাহুবলী’তে!

বাংলায় ‘বাহুবলী’ হলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় থাকতেন কোন চরিত্রে? জবাব মিলল ফেসবুকে

  • দেখুন তো, আপনি অনুমান করতে পারেন কি না, কোন চরিত্রে মুখ্যমন্ত্রীকে ভাবা হচ্ছে!

এস এস রাজামৌলীর ‘বাহুবলী’-র দ্বিতীয় পার্ট মুক্তি পাওয়ার পরে ৪ বছর কেটে গিয়েছে। কিন্তু ছবি নিয়ে উন্মাদনা যেন একটুও কমেনি। ফেসবুক ভিডিয়ো-য় এখনও চোখে পড়ে ছবির কোনও গান। জনপ্রিয় জুটি দেবসেনা ও বাহুহলীর রোম্যান্টিক ছবি বা মিম। এবার বেশ কয়েকদিন ধরে ফেসবুকে ট্রেন্ড করছে একটি ছবির কোলাজ। যাতে বলা হয়েছে বাংলা ভাষায় যদি ‘বাহুবলী’ তৈরি হত, তাহলে কে কোন ভূমিকা নিতেন। আর যেখানে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও দেওয়া হয়েছে একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রের ভার! দেখি তো, অনুমান লাগাতে পারেন কি না!

নেট-নাগরিকদের মতে সে ছবিতে টলিউডের নুসরত জাহান, মিমি চক্রবর্তী, অঞ্জন দত্ত, জিৎ, যিশু সেনগুপ্ত থাকতেন। এরপরেই বড় চামক। শাসক দলের তিন নেতা ও স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রীর জন্য উপযুক্ত রোল খুঁজে পেয়েছেন তাঁরা। নিজেরাই দেখে নিন সেই তালিকা--

সোশ্যাল মিডিয়ার এই মিম জমিয়ে ভাইরাল হয়েছে। অনেকেই তা শেয়ার করেছেন নিজেদের ওয়ালে। ‘মদন দা’ সেরা, ‘এসব ফুলের দলের চক্রান্ত’, ‘আরে ভোটের আগে দরকার ছিল তো এটা’র মতো কমেন্ট পড়ছে সেখানে। তবে প্রায় সবাই একটাই কথা বলেছেন, ‘ভাগ্যিস ছবিটা বাংলায় হয়নি’! 

প্রসঙ্গত, খুব শীঘ্রই আসেছে ‘Baahubali Before The Beginning’। যদিও এটি রাজামৌলি পরিচালিত বিখ্যাত ম্যাগনাম অপাস ‘বাহুবলী’ সিনেমার তৃতীয় পার্ট নয়। বরং, এটি আসছে একটি পৃথক ওয়েব সিরিজের আকারে। বাঙালি পরিচালক কুণাল দেশমুখ এবং রিভু দাশগুপ্তর পরিচালনায়। কাহিনিকার আনন্দ নীলকান্তন 'রাইজ অফ শিবগামী' নামে একটি উপন্যাস লিখে ফেলেছেন। যেখানে থাকছে শিবগামীর রানি হয়ে ওঠার গল্প। আর তা নিয়েই 'বাহুবলী: দ্য বিগিনিং'। ছবি যেহেতু ৩০ বছর আরও পিছিয়ে যাবে তাই থাকছে না বাহুবলী বা ভাল্লালদেবের চরিত্র। এই কাহিনিতে অস্তিত্ব আছে শুধুমাত্র শিবগামী এবং কাটাপ্পার।

বন্ধ করুন