বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ‘নগ্ন হওয়া গেলে বোরখা নয় কেন’, রণবীরের ছবি নিয়ে প্রশ্ন সমাজবাদী পার্টির নেতার
রণবীরের নগ্ন ছবি উসকে দিল হিজাব বিতর্ক।

‘নগ্ন হওয়া গেলে বোরখা নয় কেন’, রণবীরের ছবি নিয়ে প্রশ্ন সমাজবাদী পার্টির নেতার

  • রণবীরের ছবিকে টেনে এনে দেশের নানা প্রান্তে চলতে থাকা বোরখা বিতর্ককে উসকে দিলেন সামজবাদী পার্টির নেতা ও মহারাষ্ট্র বিধানসভার সদস্য আবু আজমি। টুইট ভাইরাল সোশ্যালে। 

বৃহস্পতিবার রাত থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় আগুনের মতো ছড়িয়ে পড়েছে রণবীর সিং-এর নগ্ন ছবি। ‘পেপার’ ম্যাগাজিনের কভারশ্যুটের জন্য ওই ফোটোশ্যুট করিয়েছিলেন রণবীর। তবে অনেকেই যেমন বড় পরদার ‘খিলজি’র প্রশংসা করেছেন, তেমনই কারও কাছে এই ছবি ‘অসহ্যকর’!

রণবীরের ছবিকে টেনে এনে দেশের নানা প্রান্তে চলতে থাকা বোরখা বিতর্ককে উসকে দিলেন সামজবাদী পার্টির নেতা ও মহারাষ্ট্র বিধানসভার সদস্য আবু আজমি। টুইটারে তিনি লিখলেন, ‘খালি গা প্রদর্শন করাকে যদি বলা হয় শিল্প ও স্বাধীনতা, তাহলে সংস্কৃতি অনুযায়ী কোনও মেয়ে যদি হিজাব দিয়ে শরীর ঢেকে রাখতে চায়, তাহলে তাকে কেন বলা হয় নিপীড়ন ও ধর্মীয় বৈষম্য। আমরা কেমন সমাজ চাই? নগ্ন ছবি পাবলিক করা যদি স্বাধীনতা হয়, তাহলে হিজাব পরবে না কেন কেউ?’

নিজের পোস্টে রণবীর সিং-এর ফোটোশ্যুট, আমির খানের ‘পিকে’ ছবির পোস্টার ও মিলিন্দ সোমনের অন্তর্বাসে সমুদ্রের ধারে দৌড়নোর ছবি ব্যবহার করা হয়েছে। সঙ্গে বোরখা পরে থাকা কিছু মেয়ের ছবি। পাশে লেখা, ‘স্কুল-কলেজ-সহ সব জায়গায় কি মেয়েদের হিজাব, স্কার্ফ বা বোরখা পরার স্বাধীনতা নেই?’

গতকালই রণবীর সিং-এর নগ্ন ছবি দেখে যাঁরা আগুন বা অসাধারণ বলেছিলেন তাঁদের উপর প্রশ্ন তুলেছিলেন টলিউডের অভিনেত্রী-সাংসদ মিমি। সোশ্যাল পোস্টে প্রশ্ন তুলেছিলন, ‘ইন্টারনেট এই ছবির তলায় আগুন লিখতে ভেঙে পড়েছে। মনে প্রশ্ন জাগছে যদি এখানে একজন মহিলা থাকত, তাহলে কি পরিস্থিতি আলাদা হত? আপনারা কি একইভাবে প্রশংসা করতেন নাকি নোংরা মেয়ে বলতেন? আমরা সমান অধিকারের কথা বলি, মহিলাদের ক্ষমতায়নের কথা বলি, কিন্তু সেটা করি কি?’

 

বন্ধ করুন