বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > জিমেই হাউহাউ করে কান্না, প্রকাশ্যে কান্নাভেজা মুখের ছবি, মুখ খুললেন ইলিয়ানা
ইলিয়ানা ডি'ক্রুজ।
ইলিয়ানা ডি'ক্রুজ।

জিমেই হাউহাউ করে কান্না, প্রকাশ্যে কান্নাভেজা মুখের ছবি, মুখ খুললেন ইলিয়ানা

  • জিমেই আবেগপ্রবণ হয়ে কেঁদে ফেললেন ইলিয়ানা ডি'ক্রুজ। ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে সেই কান্নাভেজা মুখের ছবি দিয়ে নিজেই একথা জানালেন বলি-সুন্দরী।

জিমেই আবেগপ্রবণ হয়ে কেঁদে ফেললেন ইলিয়ানা ডি'ক্রুজ। ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে সেই কান্নাভেজা মুখের ছবি দিয়ে নিজেই একথা জানালেন বলি-সুন্দরী। তাঁর সেই ইনস্টাগ্রামের একাধিক স্টোরি থেকেই জানা গেল বেশ কিছুদিনের বিরতির পর ফের শরীরচর্চা শুরু করেছেন তিনি। আবার আরও একটিতে লিখেছেন জিমে তাঁর ভেঙে পড়ার ঘটনা এই প্রথম। তা কেন আবেগপ্রবণ হয়ে পড়লেন তিনি? সেকথাও নিজেই জানিয়েছেন 'বরফি' ছবি খ্যাত এই অভিনেত্রী।

বেশ কিছুদিনের বিরতির পর শরীরচর্চা ফের শুরু করতে হয়ত দ্রুত ক্লান্ত হয়ে পড়েছিলেন ইলিয়ানা। জিমেই সেসবের শেষে সান্ত্বনা দেওয়ার সুরে অভিনেত্রীর ফিজিক্যাল ট্রেনার তাঁকে বলেন যে নিজেকে আরও একটু ভালোবাসতে। নিজেকে নিয়ে যেন সন্তুষ্ট থাকেন ইলিয়ানা। 'শরীরকে অন্তর থেকে ধন্যবাদ জানায় যে তা এখনও সচল। যতটুকু করতে পারছ তা নিয়ে আনন্দে থেকো'। ট্রেনারের এই দর্শন আত্মোপলব্ধি করামাত্রই কৃতজ্ঞতায় আবেগপ্রবণ হয়ে যান বলি-সুন্দরী।

ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে নিজের মনের কথা লিখেছেন ইলিয়ানা। (ছবি সৌজন্যে -ইনস্টাগ্রাম)
ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে নিজের মনের কথা লিখেছেন ইলিয়ানা। (ছবি সৌজন্যে -ইনস্টাগ্রাম)

প্রসঙ্গত, এর আগে বডি শেমিং নিয়েও মুখ খুলেছিলেন ইলিয়ানা ডি'ক্রুজ। জানিয়েলেন,কিশোরী বয়স থেকেই এই পরিস্থিতির শিকার হয়েছেন তিনি। তাঁর মতে,বডি শেমিংয়ের ' ক্ষত' শুকিয়ে গেলেও মনের গভীর গোপনে এর দাগ দীর্ঘদিন পর্যন্ত থেকে যায়। সঙ্গে অভিনেত্রী আরও বলেন,' যে যা বলছে বলুক,পাত্তা দিই না' ধরণের মনোভাব মুখে বলা যতটা সহজ,হাতে কলমে করে দেখানোটা ততটাই কঠিন। 'বরফি'-র অভিনেত্রীর কথায়,'নিজের বিষয়ে কী ধারণা পোষণ করছি আমরা,সবথেকে বেশি গুরুত্বপূর্ণ সেটাই।'

ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে নিজের মনের কথা লিখেছেন ইলিয়ানা। (ছবি সৌজন্যে -ইনস্টাগ্রাম)
ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে নিজের মনের কথা লিখেছেন ইলিয়ানা। (ছবি সৌজন্যে -ইনস্টাগ্রাম)

এ প্রসঙ্গে ইলিয়ানা বলেন যে বছর ১২ বয়স থেকেই তাঁকে সম্মুখীন হতে হয়েছে এরকম পরিস্থিতির। একাধিকবার। এমনকি তাঁর নিতম্ব আকার নিয়েও নানান কটু প্রশ্নের সরাসরি সম্মুখীন হতে হয়েছে তাঁকে। ইলিয়ানার মতে,তখন সেসব এড়িয়ে গেলেও বারবার অন্যদের মুখে শরীরী বিষয়ে নানা কটাক্ষ ও হেনস্থা শুনতে শুনতে তাঁরও মনে হয়েছিল সেসব বুঝি সত্যিই। এই প্রতিকূল পরিস্থিতি থেকে বেরিয়ে আসার জন্য যে অসম্ভব মনের জোর ও মানসিক কাঠিন্যের প্রয়োজন সেকথাও জোরের সঙ্গে জানান তিনি।ইলিয়ানার কথায়,' এ ব্যাপারে নিজের বিষয়ে,শরীরের ব্যাপারে আমি কী ভাবছি,কেমন ভাবছি সেটাই সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ আমার কাছে। আর কিচ্ছু নয়। প্রতিদিন নিজেকে আমি এই কথাটাই মনে করাই।'

প্রসঙ্গত, ২০১২ সালে অনুরাগ বসুর 'বরফি' ছবির মাধ্যমে বলিপাড়ায় পা রেখেছিলেন ইলিয়ানা। ছবিতে রণবীর কাপুর, প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে অভিনয় করেছিলেন তিনি। অবশ্য এই ছবির মাধ্যমে বলিউডে ডেবিউ করলেও অভিনেত্রী হিসেবে মোটেই নবাগতা ছিলেন না তিনি। ততদিনে দক্ষিণী ছবির জগতে বেশ বড়সড় নামে পরিণত হয়ে গেছিলেন তিনি। উল্লেখ্য, চলতি বছরের শুরুর দিকে ওটিটি দুনিয়াতেও পা রেখেছেন এই বলি-সুন্দরী। অভিষেক বচ্চনের বিপরীতে 'দ্য বিগ বুল' ছবিতে তাঁর অভিনয় প্রশংসিত হলেও দর্শকদের মধ্যে একেবারেই গৃহীত হয়নি সেই ছবি।

বন্ধ করুন