বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > সাহসী ও রোম্যান্টিক দৃশ্যে অভিনয়, প্রথম ছবিতে পরিচালকের কাছে প্রশংসিত হন ইলিয়ানা
ইলিয়ানা ডিক্রুজ
ইলিয়ানা ডিক্রুজ

সাহসী ও রোম্যান্টিক দৃশ্যে অভিনয়, প্রথম ছবিতে পরিচালকের কাছে প্রশংসিত হন ইলিয়ানা

  • ২০০৬ সালে রোম্যান্টিত তেলুগু ছবি ‘দেবাদাসু’ দিয়ে অভিনয় জগতে পথ চলা শুরু নায়িকার।

নিজের ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতার কথা শেয়ার করলেন অভিনেত্রী ইলিয়ানা ডিক্রুজ। ছোট থেকেই বডি শেমিং-এর শিকার ইলিয়ানা। শারীরিক গঠন আলাদা হওয়া দরুন নানান কটাক্ষের মুখোমুখি হতে হয়েছে তাঁকে। যদিও প্রথমবার ক্যামেরার সামনে সাহসী রোম্যান্টিক দৃশ্যে কাজ করতে কোমর উন্মুক্ত করেছিলেন অভিনেত্রী। এরপর পরিচালকের মুখে প্রশংসা শুনেছিলেন নিজের। অভিনেত্রীকে ‘রোম্যান্টিক এবং নারীসুলভ’ বলেছিলেন ছবির পরিচালক। 

এক সংবাদ মাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ইলিয়ানা জানিয়েছিলেন, ‘এটা আমার প্রথম ছবি ছিল। দারুণ হিট করেছিল ছবি এবং এটি একরকমভাবে রোমিও এবং জুলিয়েটকে দেখার মতো ছিল। অনস্ক্রিনে পুরো প্রেমের গল্প মত ছিল, খুব উৎসাহী এবং নিবিড়। এবং সেই ছবিতে একটি গান রয়েছে যার মধ্যে ক্রিমিক সেল এবং সেগুলি বেশ ভারী ছিল, সেগুলি আমার কোমরে ফেলে দেওয়া হয়েছিল। আমার মাত্র ১৮ বছর বয়স ছিল, আমি কিছু বুঝতে পারছিলাম না। আমি এত ছোট ছিলাম, এমনকি নির্বোধ’।

অভিনেত্রী আরো বলেন, ‘পরিচালক তখন আমাকে ব্যাখ্যা করেছিলেন, ‘তুমি জানো কী, এটি একটি কামুক শট। এটি ধীর গতিতে খুব সুন্দর দেখবে। এটি রোম্যান্টিক এবং মেয়েলি এবং শাঁসগুলিও মেয়েলি। এটাই এর পিছনে যুক্তি ছিল। যদিও আমি কিছু বুঝতে পারিনি আমার সবকটা কথা মনেও নেই। তবে আমাকে বুঝতে হবে ভেবে আমি এগিয়ে গিয়েছিলাম’।

ইলিয়ানার কথায়, ‘আমার কি তখনই সেটা করা উচিত, নাকি নয়। আমি সত্যিই বুঝতে পারিনি। আমি পুরোটাই শ্যুটিংয়ে ভালো লাগবে বলে এবং নারীসুলভ দেখাবে সেই হিসেবে করেছিলাম। আমার মনে হয়েছিল এটা আমার কাজের মধ্যে পড়ে, তাই আমি করেছি। আমি গান এবং নাচের জিনিস পছন্দ করি। মানে আমি একজন ভারতীয় ছবির অভিনেত্রী। আমি সব কিছু মিশ্রণ করতে পছন্দ করি। তো কে জানে। আপনি কখনো জানেন, সিরামিক শেল ভারি নাকি হালকা কিছু। এটি একটু ভারি ছিল, তবে আমার অ্যাবসের পেশী শক্তিশালী’।

৩৪ বছর বয়সী অভিনেত্রী আরো জানিয়েছেন, ছোট থেকে তিনি বডি শেমিং-এর শিকার। তাঁর মতে, বডি শেমিংয়ের ‘ক্ষত’ শুকিয়ে গেলেও মনের গভীর গোপনে এর দাগ দীর্ঘদিন পর্যন্ত থেকে যায়। সঙ্গে অভিনেত্রী আরও বলেন, ‘যে যা বলছে বলুক, পাত্তা দিই না’। 

 

বন্ধ করুন