বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ডিভোর্স নিয়ে অবশেষে মুখ খুললেন ইমরান খানের স্ত্রী অবন্তিকা
মুখ খুললেন অবন্তিকা 
মুখ খুললেন অবন্তিকা 

ডিভোর্স নিয়ে অবশেষে মুখ খুললেন ইমরান খানের স্ত্রী অবন্তিকা

  • বিয়ে টিকিয়ে রাখা না ডিভোর্স কোনটা বেশি শক্ত? জানুন কী বললেন ইমরান পত্নী অবন্তিকা মালিকা।

বিয়ে ভাঙছে অভিনেতা ইমরান খানের। বছরখানেক ধরেই বলিউডে এই গুঞ্জন শোনা যায়। জানা যায় স্ত্রী অবন্তিকার সঙ্গে ‘কাট্টি বাট্টি’ অভিনেতার সম্পর্ক একদম তলানিতে ঠেকেছে। এখন আলাদা থাকেন ইমরান-অবন্তিকা। এর মাঝেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ইঙ্গিতবাহী পোস্ট শেয়ার করলেন অবন্তিকা। যেখানে ভাঙা বিয়ে, ডিভোর্স নিয়ে কথা বললেন ইমরান পত্নী।

ট্রুথ বম্ব নামে লেখক দেবন ব্রো'র একটি প্রখ্যাত উদ্ধৃতি ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করে নেন অবন্তিকা। যার বাংলা তর্জমা করলে খানিকটা দাঁড়ায়- ‘বিয়ে খুব কঠিন, তবে ডিভোর্সও কঠিন। এর মধ্যে থেকে তোমার পছন্দের শক্তটা বেছে নাও।স্থূলত্ব কঠিন, তবে ফিট থাকাও সহজ নয়। নিজের পক্ষে সহজটা বেছে নাও। ঋণগ্রস্ত থাকা খুব কঠিন, তবে অর্থনৈতিকভাবে স্বচ্ছল হওয়াটাও চ্যালেঞ্জিং। তোমার পছন্দের শক্তটা বেছে নাও। জীবন কখনই সহজ হবে না, তবে তোমাকে ভাবনা-চিন্তা করে সঠিক সিদ্ধান্তটা নিতে হবে’।

এই পোস্ট অবন্তিকা-ইমরানের ডিভোর্সের জল্পনা স্বভাবতই উস্কে দিল। অনেকেই কমেন্ট বক্সে ইমরান সম্পর্কে জানতে চান অবন্তিকার কাছে। দীর্ঘদিন ইমরানের সঙ্গে কোনও ছবি শেযার করেনি অবন্তিকা। এমনকি ইনস্টা প্রোফাইলে নিজের পদবিও বদলে ফেলেছেন তিনি, অবন্তিকা খান নন, এখন তাঁর প্রোফাইল নাম-অবন্তিকা মালিক।

View this post on Instagram

Serious truth bomb via @devonbroughsa #chooseyourhard

A post shared by Avantika Malik (@avantikamalik18) on

ডিভোর্সের গুঞ্জন শোনা গেলেও এই নিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে দুজনের কেউই মুখ খোলেনি। গত বছর জুন মাসে এক অনুষ্ঠানে ইমরানকে ডিভোর্স সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে প্রশ্ন করা হলে অভিনেতার জবাব ছিল- ‘এই ধরণের অনুষ্ঠানে কীভাবে আপনি এইরকম একটা প্রশ্ন করতে পারেন?’

২০১১ সালে আমির খানের ভাগ্না ইমরানের সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল অবন্তিকার। তাঁদের একমাত্র সন্তান ইমারা। 

View this post on Instagram

MELT 😍😍😍😍 #imaluckygirl

A post shared by Avantika Malik (@avantikamalik18) on

পিঙ্কভিলা সূত্রে খবর, বলিউডের ব্যর্থ কেরিয়ার ইমরানের দাম্পত্য জীবনকেও ব্যাপক প্রভাবিত রয়েছে। কাট্টি-বাট্টি ফ্লপ হওয়ার পর ছবির অফার প্রায় বন্ধ হয়ে যায়, এবং আর্থিক সংকটের মুখেও পড়েন এই দম্পতি। পিঙ্কভিলাকে এই দম্পতির এক ঘনিষ্ঠসূত্র জানিয়েছে- ধীরে ধীরে দুজনের সম্পর্কটা তিক্ত হয়ে উঠছিল, ঝগড়া বাড়ছিল। অনেক রকমভাবে বিয়ে বাঁচানোর চেষ্টা করেছে তাঁরা। তবে পরিস্থিতি এমন জায়গায় পৌঁছায় যে মেয়েকে নিয়ে আলাদা থাকার সিদ্ধান্ত নেন অবন্তিকা। 

বন্ধ করুন