বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Independence Day 2021: দেশপ্রেমের ‘জোশ’ বাড়িয়ে দেয় বলিউড ছবির এইসব গান
স্বাধীনতা দিবসে আপনার প্লে-লিস্টে থাকুক বলিউডের এই সকল গান 

Independence Day 2021: দেশপ্রেমের ‘জোশ’ বাড়িয়ে দেয় বলিউড ছবির এইসব গান

  • স্বাধীনতা দিবসে আপনার প্লে-লিস্টে থাকুক বলিউডের এই সকল গান-

রবিবার ভারতের ৭৫তম স্বাধীনতা দিবস। করোনা আবহে স্বাধীনতা দিবসের উদযাপনে রয়েছে কড়া বিধিনিষেধ। কিন্তু তাই বলে দেশাত্মবোধক গান শোনায় কোনরকম বিধিনিষেধ নেই। পরাধীনতার শৃঙ্খল ভেঙে হৃদয়ে দেশপ্রেমের জোয়ার আনে বলিউডের একাধিক ছবির গান। ছবির গানের পাশাপাশি রয়েছে একক সঙ্গীতেও দেশপ্রেমের ভাবনা ফুটে উঠেছে বারবার, লতা মঙ্গেশকরের ‘ইয়ে মেরে বতন কে লোগো’ বা এআর রহমানের ‘মা তুঝে সালাম’-এর মতো গান থাকবে এই তালিকার একদম শুরুর দিকে। 

ভারত কি বেটি (গুঞ্জন সাক্সেনা… দ্য কার্গিল গার্ল): 

গত বছর স্বাধীনতা দিবসে নেটফ্লিক্সে মুক্তি পেয়েছিল ‘গুঞ্জন সাক্সেনা.. দ্য কার্গিল গার্ল’। দেশের প্রথম মহিলা আইএএফ পাইলটের বায়োপিক নিয়ে বিতর্ক কম হয়নি। গুঞ্জনের ভূমিকায় ছবিতে দেখা মিলেছে জাহ্নবীর। অমিত ত্রিবেদীর সুরে সাজানো অরিজিত সিংয়ের গাওয়া এই ছবির ‘ভারত কি বেটি’ গানটি সাম্প্রতিক সময়ের দেশাত্মবোধক গানগুলির তালিকায় একদম শুরুর দিকে থাকবে। 

তেরি মিট্টি ( কেশরি,২০১৯)-  অক্ষয় কুমারের কেশরি ছবির এই গানে যোদ্ধার আত্মত্যাগের যে বর্ণনা রয়েছে যা চোখের কোণ ভেজায়। আফগানদের বিরুদ্ধে শিখ সৈনিকদের লড়াইয়ের ইতিহাস এই ছবির উপজীব্য আর গানেও ধরা পড়েছে তাঁদের আত্মসম্মান ও লড়াইয়ের প্রতিচ্ছবি। অর্কর কম্পোজিশনে এই গানটি লিখেছেন মনোজ মুন্তাসির। গেয়েছেন বি প্রাক।

ইয়ে বতন (রাজি, ২০১৮) - মেঘনা গুলজারের রাজির কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছে ভারতের এক কাশ্মিরী কন্যা সেহমতের অসাধারণ বীরত্বের গল্প। নিজের মাটি, নিজের দেশের থেকে দূরে থাকলেও দেশপ্রেমের ভাবনা একই থাকে তাই উঠে এসেছে রাজির ইয়ে বতন গানে। শঙ্কর-এয়সান-লয়ের সুরে গুলজারের লেখনিতে এই গানটিকে প্রাণ দিয়েছে সুনীধির সুরেলা কন্ঠ।

চক দে ইন্ডিয়া (টাইটেল ট্র্যাক, ২০০৭)- সুখবিন্দর সিংয়ের কন্ঠে শাহরুখ খানের ছবির এই গান দেশপ্রেমের জোশ অনেকখানি বাড়িয়ে দেয়। গানটির মিউজের দায়িত্বে ছিলেন সেলিম-সুলেমান, কথা লিখেছেন জয়দীপ সাহনি।

জয় হো ( স্লামডগ মিলিয়নিয়র, ২০০৮)- ড্যানি বয়েলের হলিউড ছবির গান এ আর রহমানে জয় হো। গানের দৃশ্যায়ণের মধ্যে দেশপ্রেমের সেই ভাব ধরা হয়নি, কিন্তু গানের সুরের মধ্যে একটা আলাদাই জাদু রয়েছে। এই গানটিও গেয়েছেন সুখবিন্দর সিং। জয় হো গানের গীতিকার গুলজার ও তনভি। একথা ভুললেও চলবে না এই গানের হাত ধরে ভারতে এসেছে দুটো অস্কার। 

রং দে বসান্তি (টাইটেল ট্র্যাক, ২০০৬)-  দেশের প্রেমের সব রঙ ধরা রয়েছে এই গানে। পঞ্জাবের মাটির সোঁধা গন্ধ, দলের মেহেন্দির জোশ ভরা কন্ঠ, এ আর রহমানের সুর- এই সব মিলিয়েই বলিউডের দেশ প্রেমের গানের তালিকায় এটি থাকতে বাধ্য।

সন্দেশে আতে হ্যায় (বর্ডার,১৯৯৯)- বলিউডের দেশাত্মবোধক গানের তালিকা অসম্পূর্ন বর্ডার ছবির সন্দেশে আতে হ্যায় ছাড়া। অনু মালিকের কম্পোজ করা এই আইকোনিক গানের গীতিকার জাভেদ আখতার। গানটিতে গলা মিলিয়েছেন সোনু নিগম এবং রূপকুমার রাঠোর।

হ্যায় প্রীত জাহাঁ কি (পূরব অউর পশ্চিম,১৯৭০) - ভারতীয় সিনেমার ভারত কুমার হিসাবে পরিচিত মনোজ কুমার। কারণ তাঁর ছবিতে যেভাবে দেশেপ্রেম ফুটে উঠেছে তা সত্যি অতুলনীয়। পূরব অউর পশ্চিম ছবির ‘হ্যায় প্রীত জাহাঁ কি রীত’ স্বাধীনতা দিবস পালনের অন্যতম অঙ্গ।

মেরে দেশ কি ধরতি (উপকার, ১৯৬৫)- ভারত পাকিস্তান যুদ্ধের আবহ ধরা পড়েছে এই ছবিতে। এই গান বলে আমাদের দেশেক কিষাণের কথা। 'জয় জওয়ান, জয় কিষাণ'-প্রাক্তন প্রধামন্ত্রী লালবাহাদুর শাস্ত্রীর এই স্লোগানই 'ভারত কুমার'-এর ছবির এই গানের মূল উপজীব্য।

এই তালিকায় আপনার পছন্দের দেশাত্মবোধক গান কোনটি?

বন্ধ করুন