ইরফানের অদেখা ভিডিয়ো প্রকাশ্যে আনল বড় ছেলে বাবিল খান 
ইরফানের অদেখা ভিডিয়ো প্রকাশ্যে আনল বড় ছেলে বাবিল খান 

ইরফান স্মরণে আবেগভরা পোস্ট দুই ছেলের, অভিনেতার অদেখা ভিডিয়ো প্রকাশ্যে আনল বাবিল

  • ফুচকা খেতে ব্যস্ত অভিনেতা ইরফান খান। বাবাকে স্মরণ করে প্রয়াত অভিনেতা অদেখা ভিডিয়ো প্রকাশ্যে আনল বড় ছেলে বাবিল খান।
  • বাবার সঙ্গে ছেলেবেলা ও বর্তমান সময়ের দু'টি ছবি পোস্ট করল ছোট ছেলে আয়ান খান।

ইরফান খানের মৃত্যু এখনও মেনেন নিতে পারছেন না তাঁর অনুরাগীরা। অভিনেতা অকালে চলে যাওয়াটা বড় ধাক্কা সিনেমাপ্রেমীদের কাছে। ইরফান খানকে স্মরণ করে দুদিন আগেই একটি আবেগঘন খোলা চিঠি লিখেছিলেন পত্নী সুতপা শিকদার। এবার প্রয়াত অভিনেতাকে স্মৃতিচারণ করল তাঁর দুই পুত্র বাবিল খান ও আয়ান খান। 

বাবার মৃত্যুর পর বাবিল খান তাঁর শুভাকাঙ্খীদের কথা দিয়েছিলেন শীঘ্রই ইনস্টাগ্রামের দুনিয়ায় ফিরবেন তিনি। কথা রাখলেন ইরফান পুত্র। ইনস্টাগ্রামে ফিরেই ইরফানের একটি অদেখা ভিডিয়ো শেয়ার করে নিলেন বাবিল। ভিডিয়োয় এক রেঁস্তোরায় বসে ফুচকা খেতে দেখা গেল ইরফান খানকে। এই ভিডিয়োর ক্যাপশনে বাবিল লিখেছেন-'যখন দীর্ঘ সময় তুমি ডায়েটে থাকো এবং শ্যুটিং শেষ হওয়ার পর তুমি ফুচকার স্বাদ নিতে পারো'।

ইরফানের এই অদেখা ভিডিয়ো দেখে চোখের জল ধরে রাখতে পারছেন না তাঁর অনুরাগীরাও।সকলেই ইরফানের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন কমেন্ট বক্সে।

ইরফান খানের ছোটছেলে আয়ানও বিভোর বাবার স্মৃতিতে। বাবার সঙ্গে ছেলেবেলা এবং এখনকার সময়ের দুটো ছবি পোস্ট করেছেন অয়ন। ক্যাপশনে লিখেছেন জে ইলেকট্রনিয়ার গানের লিরিকস, যার বাংলা তর্জমা করলে দাঁড়ায়- ‘আমাদের সশরীরে এই পৃথিবীতে ঘুরে বেড়ানোটা একটা আর্শীবাদ কোনও শপথ নয়..’।

ন্যাশান্যাল স্কুল অফ ড্রামায় পড়বার সময়কার (১৯৮৫) ইরফানের বেশ কিছু বিরল ছবিও শনিবার রাতে ইনস্টাগ্রামের দেওয়ালে সামনে এনেছে বাবিল খান। 

 

View this post on Instagram

NSD.

A post shared by Babil Khan (@babil.i.k) on

বুধবার সকালে মুম্বইয়ের ধীরুভাই কোকিলাবেন হাসপাতালে প্রয়াত হন ইরফান খান। ২০১৮ সাল থেকে মারণরোগ ক্যানসারের সঙ্গে লড়াই চালাচ্ছিলেন অভিনেতা। টুইটারে তাঁর মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেন পরিচালক সুজিত সরকার। বাবা হারানোর শোকের মাঝেও বুধবার রাতে ইনস্টাগ্রামে এই সুদীর্ঘ লড়াইয়ে পরিবারের পাশে থাকবার জন্য শুভাকাঙ্খীদের ধন্যবাদ জানিয়েছিলেন বাবিল। তিনি ইনস্টাগ্রামে একটি বার্তায় লেখেন, 'আমার বন্ধুরা দুর্দিনে যে ভাবে আমার পাশে দাঁড়িয়েছে তাতে আমি ধন্য।আশা করি আপনারা সকলেই বুঝতে পারছেন যে, এই মুহূর্তে আমার শব্দভাঁড়ার শূন্য। আমি সবার কাছে ফিরে আসব। কিন্তু এই মুহূর্তে নয়। অনেক ধন্যবাদ। অনেক ভালোবাসা সবাইকে!'

 

বন্ধ করুন