সুতপা শিকদার ও ইরফান খান (ছবি-ফেসবুক)
সুতপা শিকদার ও ইরফান খান (ছবি-ফেসবুক)

'আমি কিচ্ছু হারাইনি',ইরফানের মৃত্যুর পর স্বামীর স্মৃতি আঁকড়ে সুতপা শিকদার

  • ইরফান খানের স্মৃতি আঁকড়ে বাঁচতে চান সুতপা শিকদার।তারকার মৃত্যুর পর সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রথম পোস্ট পত্নী সুতপার।

হয়ত অনেক কিছু বিশ্ব চলচ্চিত্রের ভান্ডারকে দেওয়ার ছিল ইরফানের, কিন্তু হল না। অনেক ছবির কাজই বাকি রয়ে গেল, না-ফেরার দেশে চলে গেলেন ইরফান খান। সব হিসেব-নিকেশ চুকিয়ে, ক্যানসারের সঙ্গে দীর্ঘ লড়াই থামিয়ে বুধবার চলে গেলেন বলিউডের মকবুল। স্বামীর মৃত্যুর পর প্রথমবার সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করলেন ইরফান খানের স্ত্রী সুতপা শিকদার। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নিজের ফেসবুকের প্রোফাইল পিকচার বদলালেন সুতপা। স্বামীর সঙ্গে একটি মিষ্টি মুহূর্তের ছবি উঠে এল তাঁর সোশ্যাল মিডিয়ায়। যেখানে দু'হাত দিয়ে ইরফানকে আগলে রেখেছেন তাঁর সুদীর্ঘ ৩৫ বছর পার্টনার।

সুতপা শিকদারের ফেসবুক পোস্ট
সুতপা শিকদারের ফেসবুক পোস্ট

সত্যিতো এইভাবেই গত দুবছর ইরফানকে নিশ্চিত মৃত্যুর হাত থেকে আগলে রেখেছিলেন সুতপা। এই ছবির ক্যাপশনে ইরফান পত্নী লেখেন, ' আমি কিচ্ছু হারাইনি, আমি সব দিক থেকে লাভ করেছি'। এই ছবিতে ধরা পড়েছে এই দম্পতির রসায়ন আর ভালোবাসার ঝলক।

ইরফান খান নিজের মুখে স্বীকার করে নিয়েছিলেন তাঁর সব লড়াইয়ের রসদ,তাঁর সব শক্তির উত্স-তাঁর স্ত্রী সুতপা শিকদার।আজীবন, ভালো-খারাপ সব সময় ইরফান খানের হাতটা শক্ত করে ধরে রেখেছিলেন এই বাঙালি কন্যা। গত মাসে মুম্বই মিররকে দেওয়া সাক্ষাত্কারে ইরফান বলেছিলেন,' সুতপাকে নিয়ে কী আর বলব? ২৪ ঘন্টা ও রয়েছে, আমার পাশে, আমার সঙ্গে। আমি যদি বাঁচার আরও একটা সুযোগ পাই, তাহলে সেই জীবনের একমাত্র কারণ সুতপা।

ইরফান-সুতপার দুই পুত্র বাবিল খান ও অয়ন খান। বাবার মৃত্যুর শোকের মাঝেও ইরফানের অনুরাগীদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন তাঁর বড় ছেলে বাবিল। ইনস্টাগ্রাম পোস্টে সে লেখে, 'আমার বন্ধুরা দুর্দিনে যে ভাবে আমার পাশে দাঁড়িয়েছে তাতে আমি ধন্য।আশা করি আপনারা সকলেই বুঝতে পারছেন যে, এই মুহূর্তে আমার শব্দভাঁড়ার শূন্য। আমি সবার কাছে ফিরে আসব। কিন্তু এই মুহূর্তে নয়। অনেক ধন্যবাদ। অনেক ভালোবাসা সবাইকে!'


ইরফান পূত্রের ইনস্টা পোস্ট
ইরফান পূত্রের ইনস্টা পোস্ট
বন্ধ করুন