বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > মিয়া খলিফা ‘প্রয়াত’? ফেসবুক পেজ ঘিরে শোরগোল, শোকে কাতর ভক্তরা
মিয়া খলিফা

মিয়া খলিফা ‘প্রয়াত’? ফেসবুক পেজ ঘিরে শোরগোল, শোকে কাতর ভক্তরা

  • মিয়ার ফেসবুক প্রোফাইলটি মেমোরিয়াল পেজে পরিণত হয়েছে। এসব দেখে শোকে কাতর মিয়া ভক্তরা। যদিও সমস্তটাই গুজব বলে উড়িয়ে দিয়েছেন পর্ন তারকা।

পর্ন ইন্ডাস্ট্রির বেশ জনপ্রিয় নাম মিয়া খলিফা। লেবানিজ-আমেরিকান পর্ন তারকা হিসেবে বিশ্বজুড়ে খ্যাতি তাঁর। কিন্তু এই পর্ন তারকা নাকি প্রয়াত? অন্তত তাঁর ফেসবুক প্রোফাইলে চোখ রাখলে তেমনটাই বলছে। অজ্ঞাত কারণে তাঁর ফেসবুক প্রোফাইলটি মেমোরিয়াল পেজে পরিণত হয়েছিল। হ্যাক হয়েছে কিনা তা অবশ্য জানা যায়নি। 

গত শনিবার ফেসবুকে আচমকাই মিয়া খলিফার প্রোফাইলটিকে ‘মেমোরিয়ালাইজড’ অ্যাকাউন্ট পরিণত হয়। ফেসবুক পেজে প্রায় ৪২ লক্ষ অনুরাগী তাঁকে ফলো করেন। তাতে লেখা ছিল, ‘রিমেম্বারিং মিয়া খলিফা।’ সেখানে লেখা, ‘যাঁরা মিয়া খলিফাকে ভালোবাসতেন তাঁরা এই প্রোফাইলে এসে ওঁকে দেখে স্মৃতি রোমন্থন করতে পারবেন।’ এসব দেখে শোকে কাতর মিয়া ভক্তরা।

মিয়া খলিফার ফেসবুক প্রোফাইলটি মেমোরিয়াল পেজে পরিণত
মিয়া খলিফার ফেসবুক প্রোফাইলটি মেমোরিয়াল পেজে পরিণত

সোশ্যাল মিডিয়ায় রটে যায়, মিয়া খলিফার মৃত্যুসংবাদ। পরক্ষণেই ভুল ভাঙে মিয়ার একটি টুইটে। একটি মিম শেয়ার করেছেন তিনি। তাতে লেখা ‘আমি এখনও বেঁচে আছি। এখনও সুস্থ আছি।’ নিজের জীবিত থাকার খবর দেন সকলকে। যা শুনে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেন অনুরাগীরা। তাঁর ফেসবুক প্রোফাইলের সমস্ত ছবি এবং ভিডিয়োও মুছে গিয়েছে। যদিও এ বিষয় কোনও মন্তব্য করেননি মিয়া।

২০২০ সালেও এক বার মিয়ার মৃত্যুর ভুয়ো খবর সংবাদদমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছিল। কয়েক বছর আগে খবর চাউর হয়েছিল মিয়া নাকি এইচআইভি-তে আক্রান্ত। সে সব খবর অবশ্য বার বারই গুজব বলে উড়িয়ে দিয়েছিলেন এই পর্ন তারকা।

পড়াশোনায় ভীষণ মেধাবী ছিলেন মিয়া। ২০১৪ সালে আচমকাই নীল ছবির দুনিয়ায় পা রাখেন। তাঁর জন্ম লেবাননের মতো রক্ষণশীল দেশে। যদিও মাত্র ১০ বছর বয়সেই মার্কিন মুলুকে চলে এসেছিলেন। কয়েক মাস পর্ন দুনিয়াতে কাজ করবার পর, পরিবার তাঁর সঙ্গে সম্পর্ক ভেঙে দেয়। এরপরই পর্ন দুনিয়াকে বিদায় জানান মিয়া। প্রায় ছ-বছর আগে পর্ন ছবি ছাড়লেও আজও সার্চে সেরার তালিকায় উঠে আসে তাঁর নাম। সেই কারণেই এতো চর্চা এই সুন্দরীকে ঘিরে।

 

 

বন্ধ করুন