বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Shruti-Anindita: মায়ের বিয়েতে মেলেনি আমন্ত্রণ! ‘দূরত্ব তৈরি হল’ অনিন্দিতা-শ্রুতির সম্পর্কে
মা-মেয়ের সম্পর্কে চিড়

Shruti-Anindita: মায়ের বিয়েতে মেলেনি আমন্ত্রণ! ‘দূরত্ব তৈরি হল’ অনিন্দিতা-শ্রুতির সম্পর্কে

  • 'ওর প্রতি আমার ভালবাসা একটুও কমেনি। তবে যে দূরত্ব তৈরি হল সেটা বোধহয় পূরণ হবে না।’, জানালেন অভিমানী শ্রুতি। 

পর্দার মা-মেয়ে তবে বাস্তবে পরস্পরের অভিন্ন হৃদয় বন্ধু। শ্রুতি দাস ও অনিন্দিতা রায়চৌধুরীর এই সম্পর্কের রসায়ন কারুর অজানা ছিল না। ‘দেশের মাটি’ সিরিয়ালে একটানা ছয় মাস মা-মেয়ের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন তাঁরা। তাঁদের এই অফস্ক্রিন বন্ধুত্বের ঝলক বারবার ঘুরে ফিরে এসেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। শীত পড়তেই ‘মেয়ে’ শ্রুতির আবদারে তাঁকে জয়নগরের মোয়া খাইয়েছেন অনিন্দিতা আবার শ্রুতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোলড হতেই প্রতিবাদী হয়ে উঠেছেন পর্দার মা। 

কিন্তু আচমকাই তাল কাটল তাঁদের সম্পর্কে, আর সেটাও সুস্পষ্ট হল সোশ্যাল মিডিয়াতেই। গত ২৬শে জানুয়ারি সকলকে চমকে দিয়ে প্রেমিক সুদীপ সরকারের সঙ্গে বিয়ের পর্ব সেরে ফেললেন অভিনেত্রী অনিন্দিতা রায়চৌধুরী। সেই ঘরোয়া বিয়ের অনুষ্ঠানে টেলি পাড়ার অনেক সদস্যই হাজির থাকলেও দেখা মিলল না শ্রুতির। সেই থেকেই শুরু জল্পনা তবে কি মা-মেয়ের সম্পর্ক ভাঙল? এই জল্পনার আগুনে ঘি ঢালে অনিন্দিতার বিয়ের মিনিট কয়েকের মধ্যেকার একটি ফেসবুক পোস্ট। 

সেখানে শ্রুতি লেখেন, ‘আমায় একদিন তুই-ই বলেছিলিস ইন্ডাস্ট্রিতে কেউ কারওর বন্ধু হয়না শ্রুতি,সবাই কে এত বিশ্বাস করে ভালোবাসিস না,ঠকবি! আমি বলেছিলাম-তুই তো ওরকম না,ব্যাস আজ আমিই ঠকলাম তোকে ভালোবেসে। সুখি হ এটাই চাই'।

শ্রুতির ফেসবুক পোস্ট
শ্রুতির ফেসবুক পোস্ট

এই বিষয় নিয়ে অবশেষে মুখ খুললেন অভিমানী ‘নোয়া’। আনন্দবাজারকে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে শ্রুতি জানিয়েছেন, ‘আমি জানতাম না ও প্রেম করছে। আমি জানতাম না ও বিয়ে করছে। সব বাইরে থেকে জেনেছি। জানার পর অভিমান প্রকাশ করে বার্তা পাঠিয়েছিলাম। উত্তরে ‘ধন্যবাদ’ লেখা জবাব পেয়েছি শুধু।’ অনিন্দিতাকে বোকার মতো বিশ্বাস করে ঠকেছেন, এমন ভাবনাই এখন কুড়ে কুড়ে খাচ্ছে শ্রুতিকে। অপকপটে বললেন, 'ওর প্রতি আমার ভালবাসা একটুও কমেনি। তবে যে দূরত্ব তৈরি হল সেটা বোধহয় পূরণ হবে না।’

শ্রুতির অবাক একটা সময় অনিন্দিতার মুখে তিনি শুনেছিলেন ইন্ডাস্ট্রিতে তাঁর সবচেয়ে কাছের চারজন মানুষ, মানালি, আভেরি, ঈশানি আর শ্রুতি। প্রথম তিনজন বিয়েতে আমন্ত্রণ পেলেও ব্যতিক্রম কেবল শ্রুতি! 

যদিও গোটা বিষয়টিকে এমনভাবে দেখছেন না অনিন্দিতা। করোনা পরিস্থিতির জেরেই সীমিত সংখ্যক মানুষজনকে নিয়ে আইনি বিয়ের পর্ব সেরেছেন তিনি,স্পষ্ট জানালেন অভিনেত্রী। খুব শীঘ্রই নতুন জীবনের উদযাপনে পার্টি দেবেন তিনি আর সুদীপ। সেখানে জমিয়ে নাচবেন শ্রুতি বিশ্বাস তাঁর। 

যদিও বুধবার রাতে ফেসবুক পোস্ট কারুর নাম না করেই অনিন্দিতা লেখেন, ‘ যে কোনও সম্পর্কের সমীকরণ ব্যক্তিগত স্তরেই উদযাপন সাপেক্ষ! জনসমক্ষে নয়, অন্তত আমার কাছে তো নয়ই!!’ কার উদ্দেশে তাঁর এই বার্তা? অনেকেই বলছেন সংবাদমাধ্যমের সামনে মুখ খোলায়, শ্রুতির উপর অভিমানী অনিন্দিতা। অনুরাগীদের প্রার্থনা, দ্রুত ভুল বোঝাবুঝি মিটিয়ে ফেলুক দুজনে আর সত্যি মায়ের বিয়েতে না হোক অন্তত বিয়ের প্রীতিভোজে জমিয়ে নাচুক নোয়া। 

বন্ধ করুন