বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Durnibar-Oindrila: ‘ও শুধুই আমার’,দুর্নিবারকে জড়িয়ে ধরে জানালো প্রেমিকা, গায়কের জীবনে স্ত্রী মীনাক্ষী এখন অতীত!
নতুন প্রেমে দুর্নিবার

Durnibar-Oindrila: ‘ও শুধুই আমার’,দুর্নিবারকে জড়িয়ে ধরে জানালো প্রেমিকা, গায়কের জীবনে স্ত্রী মীনাক্ষী এখন অতীত!

  • আর কোনও রাখঢাক নয়, প্রকাশ্যে দুর্নিবারকে ভালোবাসার কথা জানিয়ে দিলেন ঐন্দ্রিলা সেন। 
  • গত বছর ফেব্রুয়ারি মাসে মীনাক্ষীকে ভালোবেসে বিয়ে করেছিলেন দুর্নিবার, তবে এখন সেই সম্পর্ক অতীত!

মাত্র দেড় বছর আগে সামাজিক বিয়ের পর্ব সেরেছিলেন দুর্নিবার সাহা ও মীনাক্ষী মুখোপাধ্যায়। তবে বছর ঘুরতে না ঘুরতেই সেই সম্পর্কে ইতি! হ্যাঁ, গায়কের জীবনে অন্য নারী আসবার গুঞ্জন মাথাচাড়া দিয়েছিল। জানা গিয়েছিল, এক সেলেব্রিটি ম্যানেজারের প্রেমে পড়েছেন দুর্নিবার। এতদিন ধরে মিডিয়ায় শুধুই চাপা গুঞ্জন, তবে আনুষ্ঠানিকভাবে সেই চর্চিত প্রেমে শিলমোহর পড়েনি। তবে দুর্নিবারের পরকীয়া নিয়ে চর্চা কম হয়নি! অবশেষে সব জল্পনায় জল ঢাললেন দুর্নিবারের প্রেমিকা। কোনওরকম রাখঢাক না রেখেই জানিয়েদিলেন, ‘ভালোবাসি’।

'বেশ করেছি প্রেম করেছি'- এমনই বার্তা ধরা পড়ল দুর্নিবারের নতুন প্রেমিকা ঐন্দ্রিলা সেনের পোস্টে। কী লিখেছেন তিনি? দুর্নিবারকে জড়িয়ে ধরে ঐন্দ্রিলা লেখেন,'জীবনটা সুন্দর যখন তুমি আশেপাশে থাকো। ধন্যবাদ আমার জীবনে আসবার জন্য এবং আমার পৃথিবীটা এতো সুন্দর করে তোলবার জন্য। হ্যাঁ, তোমাকে ভালোবাসি!'

এরপর সংবাদমাধ্যমের উদ্দেশে কড়া বার্তা ঐন্দ্রিলার। তিনি লেখেন, ‘অ্যানাউন্সমেন্ট অ্যালার্ট… সব সংবাদমাধ্যমের কর্মীদের বলছি, হ্যাঁ, ও আমার চিরকালের জন্য, আজীবনের জন্য… এবার আসল গল্পটা লিখুন’।

ঐন্দ্রিলার ফেসবুক পোস্ট
ঐন্দ্রিলার ফেসবুক পোস্ট

এই প্রেমের গল্পের প্রেক্ষাপট এখনও স্পষ্ট নয়। তবে প্রেমটা যে দুর্নিবার গতিতে এগিয়ে চলেছে তা বলবার অপেক্ষা রাখে না। ঐন্দ্রিলার পোস্টে দুর্নিবার পালটা লেখেন, 'ভাগ্য…ব্যাস এইটুকুই। আমি তোমাকে ভালোবাসি (মনে রেখো আমি তোমাকে বেশি ভালোবাসি)। 

২০১৭ সালে আইনি বিয়ে সেরেছিলেন মীনাক্ষী ও দুর্নিবার। ২০২১ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে গাঁটছড়া বাঁধেন দুজনে। তবে আচমকাই দুজনের সম্পর্কে তৈরি হয় দূরত্ব। মাস কয়েক ধরেই আলাদা থাকছিলেন দুজনে, আইনি পথে হেঁটে তাঁদের বিচ্ছেদ হয়েছে কিনা তা্ স্পষ্ট নয়। 

এদিন হিন্দুস্তান টাইমসের তরফে মীনাক্ষীর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে ব্যস্ততার কারণ দেখিয়ে কোনওরকম মন্তব্য করতে অস্বীকার করেন মীনাক্ষী। 

বন্ধ করুন