বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > 'চালবাজ' শ্রীদেবীকে মোটেই অনুকরণ করেননি, সাফ জানালেন ‘রুহি’ জাহ্নবী
জাহ্নবী কাপুর
জাহ্নবী কাপুর

'চালবাজ' শ্রীদেবীকে মোটেই অনুকরণ করেননি, সাফ জানালেন ‘রুহি’ জাহ্নবী

  • জাহ্নবীর কথায়, ‘আফজার চরিত্রে অভিনয় করার জন্য কোনও রেফারেন্স পয়েন্ট ছিল না'। 

রুহিতে দ্বৈত চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যাবে অভিনেত্রী জাহ্নবী কাপুরকে। শনিবার, শ্রীদেবী কন্যার জন্মদিন। আর এই বিশেষ উপলক্ষ্যে, হিন্দুস্তান টাইমসকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে জাহ্নবী মন খুলে আড্ডা দিলেন তাঁর আসন্ন প্রোজেক্ট নিয়ে।
জাহ্নবীর কথায়, ‘এই ছবিতে কাজ করে দারুণ লাগল। আমার মনে হয় রুহিতে অভিনয় করায় অভিনেত্রী হিসেবে নিজেকে আরও পরিণত মনে হচ্ছে। এর ফলে যে অভিজ্ঞতার সম্মুখীন হয়েছি তা থেকে অনেক কিছু শিখতে পেরেছি। আশা করছি আমি ঠিক করেছি’।

আফজার চরিত্রকে বর্ণনা করতে গিয়ে জাহ্নবী জানিয়েছেন, ‘অত্যন্ত প্রাণবন্ত এবং অমানবিক শক্তি’, সেখানে রুহি ‘দুর্বল, ভঙ্গুর এক চরিত্র’। জাহ্নবীর মা, প্রয়াত অভিনেত্রী শ্রীদেবী ‘চালবাজ’ ছবিতে দ্বৈত চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। কিন্তু সেগুলোকে অনুকরণ না করে সম্পূর্ণ নিজের মতো ছবিতে অভিনয় করার চেষ্টা করেছেন শ্রীদেবী কন্যা তেমনটাই জানিয়েছেন।

জাহ্নবীর কথায়, ‘আফজার চরিত্রে অভিনয় করার জন্য কোনো রেফারেন্স পয়েন্ট ছিলনা। আমি চরিত্রকে অনুকরণ না করে সম্পূর্ণ নিজের মতো করার চেষ্টা করেছি ছবিতে। আমার মনে হয় পৃথিবীর কেউই আমার মা যে ধৈর্য্য দিয়ে কাজটি করেছেন সেই স্তরের কাজ করতে পারবেন না। চালবাজ দেখার দেখার সময় বেশ কঠিন একটা সময় কাটিয়েছিলাম আমি, কারণ সেখানে মায়ের ভূমিকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিল। ছোট থাকাকালীন যতবারই আমি ছবিটা দেখেছি ট্রমাতে চলে যেতাম’।

আফজা চরিত্রে অভিনয় করার জন্য জাহ্নবীকে ‘The Exorcism of Emily Rose’ সহ আরো নানা হরর ঘরানার ছবি দেখতে হয়েছিল। সেই সম্পর্কে বলতে গিয়ে তিনি জানান, তিনি তাঁর শারীরিক আচরণ এবং সেই স্থানে থাকতে গেলে কেমন ব্যবহার করতে হয় সেই সবের দিকে নজর রেখেছিলেন। তিনি আরো বলেন, রুহির ক্ষেত্রে, ‘লেখক এবং আমি স্থির করেছিলাম প্রতিবার ভয় পেয়ে যাওয়ার সময় যেন এক ধরণের হৈচৈ পড়ে যায়, তাই আমি প্রচুর ভিডিও এবং ফিল্ম দেখেছি’। 

‘স্টার কিড’ হওয়ার দরুন নানা রকমের কটাক্ষ এবং কটূক্তির শিকার হতে হয়েছে জাহ্নবী কাপুরকে। সেই সম্পর্কে বলতে গিয়ে অভিনেত্রী বলেন, ছোটবেলা থেকে এই সমস্ত বিষয় দেখে এসেছেন তিনি। এগুলোর সঙ্গে কীভাবে মানিয়ে নিতে হয় এবং নেপোটিজম বিতর্কে যেখানে তাঁর বাবা-মা আজীবন কাজ করে সকলের ভালবাসা অর্জন করেছেন সেই ভাবে তিনিও মনে করেন, সকলের তাঁর কাজও দেখা উচিত। তিনি মনে করেন, যেখানে তাঁর বাবা-মা সকলের ভালবাসা পেয়েছে সেখানে তাঁকেও তাঁদের ঘেন্না করা উচিত নয়। অভিনেত্রীকে তাঁর কাজ দিয়ে বিচার করা উচিত।

জাহ্নবী স্বীকার করেছেন সুযোগের ক্ষেত্রে অনেক বৈষম্যতা হয়ে থাকে। তবে তিনি কোনও ক্ষেত্রেই সুযোগ-সুবিধে নেওয়ার চেষ্টা করেননি। তিনি জানিয়েছেন, তিনি যা করতে পারেন তাঁর দ্বিগুন কঠোর পরিশ্রম করে নিজেকে মেলে ধরার চেষ্টা করেছেন। নিজেকে প্রমান করার জন্য কঠোর পরিশ্রম করেছেন তিনি। জাহ্নবীর কথায়, তিনি যা ভালবাসেন সেগুলোই করেছেন। তিনি চেষ্টা করেছেন তাঁকে ভালবাসরার জন্য দর্শকদের মন জয় করতে। তিনি আনন্দিত যে, দশ জন আরো ব্যক্তি যাঁরা নিজেকে তাঁর থেকে বেশি প্রতিভাবান মনে করেন তাঁরা সেই সুযোগগুলি পাননি যা তিনি পেয়েছেন। তাই তিনি নিজের পরিচয় গড়ে চেষ্টা করবেন নিজেকে প্রমান করাবেন, যে তিনি এটার যোগ্য।

বন্ধ করুন